শহরের নতুন আশা টেরেস গার্ডেনিং

Thursday, 07 February 2019 09:39 AM
ছাদে বাগানচর্চা

ছাদে বাগানচর্চা

এখন ভারতের ভোটারদের মধ্যে সবথেকে বেশী সংখ্যক ভোটার হল যুবক সম্প্রদায়, এবং বর্তমান রাজনীতিতে নেতারা জানে যে যুবকদের বাদ দিয়ে আর যাই হোক অন্তত রাজনীতি করা সম্ভব নয়। নেতাদের ভাষণে বা কথায় আপনার জন্য রোজগারের কথা থাকুক বা নাই থাকুক আমরা আপনাকে রোজগারের এক অত্যন্ত কার্যকারী ও সহজ উপায় বলতে চলেছি।

টেরেস গার্ডেনিং কী?

আজকাল শহরাঞ্চলে টেরেস গার্ডেনিং এর একটা চল মানুষের মধ্যে পরিলক্ষিত হচ্ছে। টেরেস গার্ডেনিং এর জমি হল আপনার বাড়ির কিংবা অফিসের ছাদ। এই ছোট পরিসরে ছোটো বড় থলি, বাক্স বা গামলার ব্যবহার হয়ে থাকে। এই সমস্ত পাত্রে সঠিক মাত্রায় মাটি, সার, ও জল দিয়ে ভর্তি করা হয়। এই উপায়ে কৃষি করে মানুষ খুব ভালো উৎপাদনও করছে, এবং তাঁদের নিজেদের ফসল বেঁচে বেশ ভালো লাভও হচ্ছে।

কীভাবে করবেন শুরু?

টেরেস গার্ডেনিং করতে হলে সবার প্রথম দেখতে হবে যে আপনার কাছে যে পরিমাণ ছাদ রয়েছে তাতে পর্যাপ্ত জায়গা আছে কিনা, কারণ টেরেস গার্ডেনিং এর জন্য বড় ও খোলা ছাদের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। যদি আপনার কাছে পর্যাপ্ত জায়গা থাকে তাহলে বাড়িতে অব্যবহৃত বিভিন্ন জিনিষ যেমন কৌটো, গামলা, চটের ব্যাগ, কাঠ, টিনের বাক্স, কেনেস্ত্রা টিন, ইত্যাদি যেখানে গাছ লাগানো যায় এমন জিনিষ পত্র ব্যবহার করতে হবে। এরপর পর্যাপ্ত মাত্রায় মাটি জমি থেকে খুঁড়ে নিতে হবে। অবশ্য মাটি জমির ১ থেকে ২ মিটার গভীর থেকে সংগ্রহ করলে তা বেশী উর্বর হয়ে থাকে। এরপর সেই মাটিতে বীজ অথবা গাছ পুঁতে দিয়ে তাতে সামান্য জল দিয়ে দিতে হবে। প্রথমবার জল দেওয়ার পরবর্তী দুই দিন আর আপনাকে জল দিয়ে হবে না, দুইদিন পর আপনাকে নিয়ম করে সময়মত জল দিতে হবে। আট দশ দিন বাদে দেখবেন আপনার লাগানো বীজ ও গাছ ধীরে ধীরে বাড়তে থাকছে। অর্থাৎ আপনি যেমন আপনার সন্তান সন্ততিদের দেখভাল করেন তেমনি চারা গাছকেও ভালোভাবে দেখাশুনা করতে হবে।

সূর্যের প্রখর আলো থেকে বাঁচিয়ে রাখবেন

টেরেস গার্ডেনিং এ একটা বিষয় খুব সরল ও মনোযোগী হতে হবে, সেটি হল সূর্যালোক। সূর্যের রশ্মী এমন একটা বিষয় যা ভালো ভালো টেরেস গার্ডেনারদের নাকানি চোবানি খাওয়ায়। সূর্যালোক গরমকালে চারা গাছের খুব ক্ষতিসাধন করে, কারণ সূর্যের প্রখর আলো ও উত্তাপ সহন করার মতো শক্তি চারাগাছের থাকে না, ফলে অত্যাধিক রোদ ও উত্তাপে গাছগুলি মারা যেতে পারে। এর জন্য সবথেকে বড় বিষয় হল জল। গরমকালে চারাগাছের ক্ষেত্রে জলের কোনো অভাব যেন না থাকে, এবং গাছেদের গায়ে যেন প্রয়োজনের থেকে বেশী মাত্রায় রোদ বা উত্তাপ না লাগে। এর জন্য মাঝে মাঝে চারাগাছের নিরীক্ষণ হওয়া দরকার।

উপার্জন হবে দ্বিগুণ

যদি শুরু থেকেই সঠিক রণনীতি নিয়ে এগোনো যায় তাহলে টেরেস গার্ডেন থেকেই আপনি ভালো উপার্জন করতে পারেন এবং অতি সহজেই তা করতে পারেন, কারণ এই ধরণের কৃষি পদ্ধতিতে চাষের খরচ অনেক কম, পরিশ্রমও অনেক কম থাকে, এবং চাষের সবথেকে বড় ব্যাপার হল এটি সম্পূর্ণ আপনার নিজেস্ব হাতের নাগালের মধ্যে থাকবে। আপনি আপনার নিজের মতো করে রুপদান করতে পারেন, যেমন মাটির পরিবর্তন, সারের মাত্রায় পরিবর্তন, কীটনাশক ও অন্যান্য রাসায়নিকের মাত্রায় পরিবর্তন ইত্যাদি। এছাড়াও টেরেস গার্ডেনিং আর একটি ইতিবাচক দিক হল এখানে সূর্যালোক সমানভাবে প্রাপ্ত হয়। তাই একটু ভাবুন আক চিলতে বারান্দায় একটু ছোট করে হলেও আপনিও শুরু করতে পারেন আপনার মনের মতো সবজি।

- প্রদীপ পাল (pradip@krishijagran.com)



Krishi Jagran Bengali Magazine Subscription Subscribe Online

Download Krishi Jagran Mobile App

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.