বাঁশের গল্প :

Monday, 01 January 0001 12:00 AM

"কথায় বলে বাঙ্গালীরা নাকি বাঁশ দিতে আর খেতে ভালোবাসে"!! তবে যাই হোক এই পৃথিবীতে প্রায় ১০০০ ধরনের প্রজাতি রয়েছে এই বাঁশ জাতীয় তৃণ গাছটির! এর মধ্য কিছু প্রজাতির বাঁশ রয়েছে যা এক দিনে প্রায় ৩৬সেমি বাড়ে!! তাই বাঁশ খাওয়াটা স্বাভাবিক।কিন্ত সত্যি কিছু প্রজাতির বাঁশ রয়েছে যার কান্ড ও মূল অংশ এখনো পাহাড়ের কিছু মানুষের খাদ্য তালিকায় রয়েছে।আর "bamboo" (বাঁশ) শব্দটি এসেছে মূলতঃ কন্নড় শব্দ "Bambu'' থেকে।

বাঁশ গাছ যেমনই খাদ্য তালিকায় ব্যবহার হয় তেমনি বিভিন্ন ভাবে ব্যবহার করা হয় যেমন, ঘর ও আসবাব তৈয়ারীতে, বিল্ডিং এর আনুসাঙ্গিক সামগ্রী ও আমাদের দেশের গ্রামীন বা পাহাড়ি এলাকায় এখনো যেখানে আধুনিক প্রযুক্তি পৌঁছায়নি সেই জায়গায় সেতু বা বাঁশের ব্রীজ এর উপরই নির্ভর। এশিয়া এবং গোটা দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর তে এর আর্থ সামাজিক গুরুত্ব অপরিসীম। বৈজ্ঞানিক ভাবে বাঁশের নিদিষ্ট কিছু উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন চাপ সহন যোগ্য শক্তি রয়েছে যা কাঠ, ইট, কংক্রিট বা স্টিল এর থেকে বেশি।

- অমরজ্যোতি রায়



Krishi Jagran Bengali Magazine Subscription Subscribe Online

Download Krishi Jagran Mobile App

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.