জাতীয় বিজ্ঞান দিবস কৃষিতে বিজ্ঞানের গুরুত্ব

KJ Staff
KJ Staff

২৮ ফেব্রুয়ারি সমগ্র দেশে জাতীয় বিজ্ঞান দিবস পালিত হয়। এই দিনে, দেশের মহান বিজ্ঞানী সি.ভি রমন 'রমন প্রভাব' আবিষ্কার করেছিলেন। এর জন্য তিনি নোবেল পুরষ্কার অর্জন করেন। এই দিনটি জাতীয় বিজ্ঞান দিবস হিসাবে তাঁর আবিষ্কারের সম্মানে ১৯৮৬ সাল থেকে পালিত হতে শুরু করে। ১৯৫৪ সালে ভারত সরকার তাঁকে ‘ভারতরত্ন’ দ্বারা ভূষিত করে। তিনি এই পুরষ্কার প্রাপ্ত এশিয়ার প্রথম বিজ্ঞানী। এই বছর জাতীয় বিজ্ঞান দিবসের প্রতিপাদ্য বিষয় ‘ওমেন ইন সাইন্স’। এই দিন বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট, পরীক্ষাগার, বিজ্ঞান একাডেমি, স্কুল, কলেজ এবং প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটগুলিতে প্রোগ্রামের আয়োজন করা হয়।

বৈজ্ঞানিক স্যার সিভি রমন -

সিভি রমন ১৮৮৮ সালের ৭ই নভেম্বর ব্রিটিশ ভারতের তৎকালীন মাদ্রাজ প্রেসিডেন্সি (তামিলনাড়ু) -তে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। বিজ্ঞানের ছিল তাঁর পছন্দের বিষয়, তাই তিনি ইন্ডিয়ান অ্যাসোসিয়েশন ফর কাল্টিভেশন অফ সাইন্স ও কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবরেটরিতে গবেষণা শুরু করেন। স্টিলের বর্ণালী প্রকৃতি, স্টিলের গতিশক্তি, হীরার কাঠামোগত অনেকগুলি রঞ্জক পদার্থের অপটিক্যাল আচরণ সম্পর্কিত গবেষণা সহ তাঁর বেশ কয়েকটি বড় আবিষ্কার রয়েছে। স্যার সিভি রমন সারা বিশ্বের মানুষের জন্য অনুপ্রেরণা।

জাতীয় বিজ্ঞান দিবসের মূল উদ্দেশ্য -

এই দিনটির উদ্দেশ্য হ'ল যুবসমাজকে বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে আরও অগ্রগতির জন্য উদ্বুদ্ধ করা। নতুন পরীক্ষা, বিজ্ঞান এবং বৈজ্ঞানিক সাফল্য সম্পর্কে সচেতন হওয়ার প্রতি তাদের আকৃষ্ট করা। বিজ্ঞানের অগ্রগতি আমাদের জীবনযাত্রাকে সুখী করেছে।

কৃষিতে বিজ্ঞানের গুরুত্ব

কৃষিতে বিজ্ঞানের গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে। কেবলমাত্র বিজ্ঞানের যথাযথ ব্যবহারেই কৃষিকে ধারাবাহিকভাবে অগ্রগতির পথে নিয়ে যাওয়া সম্ভব। বিজ্ঞান ছাড়া সম্ভবত কৃষিকে কল্পনাই করা যায় না। আধুনিক কৃষি বৈজ্ঞানিক নীতি ও পদ্ধতি ব্যবহার করে কৃষিক্ষেত্রকে শক্তিশালী করছে। কৃষকদের কৃষিক্ষেত্রে বৈজ্ঞানিক কৌশলের কারণে খরচ সাশ্রয় হয়।  আগে কৃষকদের উপর অর্থনৈতিক বোঝা ছিল বেশি, তবে এখন কৃষকদের জন্য বিজ্ঞান অনেক নতুন কৌশল এনে কৃষির সাথে সম্পর্কিত অনেক সমস্যার সমাধান করেছে। এগুলি তাদের কৃষিকাজ করার সঠিক বৈজ্ঞানিক দিকনির্দেশনা দেয়। আজ, এমন অনেক কৌশল রয়েছে যার মাধ্যমে কৃষকরা কয়েক মিনিটের মধ্যেই খামার, ফসল, জলবায়ু, তাপমাত্রা সহ আরও অনেক তথ্য সহজেই জানতে পারেন। ফলত, নিঃসন্দেহ বলা যায়, আজ কৃষকরা বিজ্ঞানের অগ্রগতির দরুন কৃষিতে লাভবান হচ্ছেন।

স্বপ্নম সেন (swapnam@krishijagran.com)

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters