পদ্ম পুরস্কার ’১৯

KJ Staff
KJ Staff

পদ্ম পুরস্কার ২০১৯- এবছর পদ্ম পুরস্কারের জন্য ৫০ হাজারেরও বেশী মানুষের নাম সঙ্কলিত হয়েছে। ২৬শে জানুয়ারী সন্ধ্যায় পদ্ম পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত মানুষদের হাতে এই পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়েছে। এই নির্বাচিত নামগুলির মধ্যে ১১২ জনের নামের মধ্যে সরকারী মোহর লাগিয়েছেন, এর মধ্যে ৪ জন পেয়েছেন পদ্ম বিভূষণ, ১৪ জন পেয়েছেন পদ্মভূষণ, এবং বাকী ৯৪ জন পাচ্ছেন পদ্মশ্রী। পুরস্কার বিজেতাদের মধ্যে ১২ জন সফল ভারতীয় কৃষক, ১৪ জন ডাক্তার, ও ৯ জন খেলোয়ার রয়েছেন।

১২ জন কৃষকের মধ্যে জগদীশ প্রসাদ নির্বাচিত হয়েছেন সফল ভাবে গাজর উৎপাদনের জন্য, কম্বল সিং চৌহান নির্বাচিত হয়েছেন সফল ও উৎকৃষ্ট মানের ফুলকপি ও মাসরুম উৎপাদনের জন্য এবং বল্লভভাই বাসরাভাই মারবানিয়াও নির্বাচিত হয়েছেন সফলভাবে গাজর উৎপাদনের জন্য। এদের ছাড়াও কিছু প্রগতিশীল চাষী যারা তাদের ক্ষেতে নতুন ও বৈজ্ঞানিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে সফল হয়েছেন যেমন- রামসরন বর্মা, ভারতভূষণ ত্যাগী, ও বেঙ্কটেশ্বর রায় ইয়দলাপল্লী নির্বাচিত হয়েছেন। পুরানো পদ্ধতিতে পারস্পরিক উপায়ে বীজ ও সংবর্ধিত জৈবিক কৃষিকে সংরক্ষিত করে পুরানো পদ্ধতিকে বাঁচিয়ে রেখেছেন, যেমন-বাবুলাল দহিয়া, কমলা পূজারী, রাজকুমারী দেবী ও হুকুমচাঁদকে নির্বাচিত করা হয়েছিলো।

যে চোদ্দো জন ডাক্তার পদ্ম পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত হয়েছেন তাঁদের সবাই গরীব দরদী ডাক্তার, এবং তাঁদের এই জন দরদী ও পরোপোকারী ভাবমূর্তির জন্যই তাঁদেরকে সম্মানিত করা হয়েছে। এঁদের মধ্যে ওমেশ কুমার ভারতী (রেবিস), রামাস্বামী বেঙ্কটস্বামী (আগুনে পোড়া মানব অঙ্গের প্লাস্টিক সার্জারি), সুদাম কেট (সিকল সেল অ্যানিমিয়া), ও প্রতাপ সিংহ হার্ডিয়া (মোতিয়াবিন্দ) উল্লেখযোগ্য।

ডাক্তার স্মিতা ও রবীন্দ্র কোলহে (মহারাষ্ট্র), শ্যামা প্রসাদ মুখার্জি (ঝাড়খণ্ড), ও আর বি রমানি (আমিলনাড়ু), টর্সিং নোরব (লডাখ), ইলিয়াস আলী (আসাম), অশোক লক্ষণরাও কুকড়ে (মহারাষ্ট্র) প্রমূখ ডাক্তাররা দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলগুলিতে ডাক্তারি পরিষেবার সাথে সাথে গরীব মানুষদের আর্থিক সহযোগিতার জন্য নির্বাচিত করা হয়েছিলো।

দেশের বিভিন্ন চিকিৎসা সংস্থার ডাক্তার যাদের পদ্ম পুরস্কারে ভূষিত করা হয়েছে, তাঁরা হলেন জগত রাম (পি জি আই এম ই আর, চন্ডীগড় এর সম্পাদক), সন্দীপ গুলেরিয়া (ইন্দ্রপ্রস্ত অ্যাপোলো হাসপাতাল ও এ আই আই এম এস দিল্লী), শাদাব মোহম্মদ ( কিং জর্জ মেডিক্যাল ইউনিভার্সিটি, লখনৌ), এবং মম্মী চান্ডী (টাটা মেডিক্যাল সেন্টার কোলকাতা, এর সম্পাদক)।

আরও পড়ুন কীটনাশক বিক্রির লাইসেন্সের আবেদন পত্রের সঙ্গে প্রদেয় নথিপত্রের তালিকা

এছাড়াও আছেন খেলার জগতের ৯ জন বিভিন্ন খেলোয়ার। গৌতম গম্ভীর (ক্রিকেট), বোম্বায়লা দেবী লেশ্রাম (তিরন্দাজি), হরিকা দ্রোণাবল্লী (দাবা), প্রশান্তি সিং(বাস্কেটবল), সুনীল ছেত্রী (ফুটবল), বাচেন্দ্রী পাল(মাউন্টেনিয়ার), শরথনাথ কমল (টেবিল টেনিস) অজয় ঠাকুর (কবাডি), ও বজরং পুনিয়া (কুস্তী) উল্লেখযোগ্য।

পদ্ম পুরস্কার ২০১৯শে আদিবাসী নেতা করিয়া মুন্ডা, সমাজবাদী নেতা হুকুমদেব নারায়ন যাদব, শিখ নেতা সুখদেব সিং ঢিংসা, জমিন্দার মহাদলিত মহিলা নেতা ভাগীরথীদেবী ও শিখ উকিলও তালিকায় ছিলেন,যিনি ১৯৮৪ সালে দাঙ্গা পীড়িত হরবিন্দর সিং ফুলকার জন্য লড়াই লড়েছিলেন।

বিদেশে ভারতের বন্ধু, দক্ষিণ আফ্রিকার বর্তমান মন্ত্রী প্রবীন গৌড়ধনন্দ ও জিবুতীর অধ্যক্ষ ইস্মাইল উমর গুলেহ-কেও পদ্ম সম্মানে ভূষিত করা হয়েছে, এই বিষয়ে বলে রাখা ভালো প্রবীন গৌড়ধনন্দ দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ণবিদ্বেষী নেতা। এবং উমর গুলেহ যুদ্ধ বিদ্ধস্ত ইয়েমেন থেকে হাজার হাজার ভারতীয় নাগরিকদের বাঁচানোর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছিলেন।

সরকার পদ্ম পুরস্কার যেটাকে সরকারি পুরস্কার বলে, তাকে সাধারণ মানুষের পুরস্কার হিসেবে চিহ্নিত করেছেন। একজন সরকারি আধিকারিক জানিয়েছেন এই সব পুরস্কার বিজেতাদের মুল্যায়ন সম্পূর্ণ সাবধানতা অবলম্বন করে এবং সম্পূর্ণ নিরপেক্ষ পদ্ধতিতে করা হয়েছিলো।

- প্রদীপ পাল (pradip@krishijagran.com)

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters