Cumin (Jeera) Farming: জেনে নিন জিরা চাষ পদ্ধতি ও সম্পূর্ণ পরিচর্যা

রায়না ঘোষ
রায়না ঘোষ
Cumin tree (image credit- Google)
Cumin tree (image credit- Google)

জিরা (Jeera) একটা অত্যন্ত জনপ্রিয় মসলা যার ইংরেজী নাম Cumin | রান্নায় জিরার ব্যবহার সকলেরই জানা | জিরা একটি অত্যন্ত প্রয়োজনীয় মসলা | জিরার স্বাস্থ্য উপকারিতার মধ্যে রয়েছে হজমে ব্যাপকভাবে সাহায্য করার ক্ষমতা, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা উন্নত করা এবং পাইলস, হাঁপানি, অনিদ্রা, চর্মরোগ, শ্বাসকষ্ট, ব্রংকাইটিস, সাধারণ ঠান্ডা, স্তন্যদান, রক্তাল্পতা, ফুসকুড়ি এবং ক্যান্সার নিরাময়ে সাহায্য করা ।এই নিবন্ধে জিরা চাষ পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো,

মাটি ও জলবায়ু(Soil and climate):

নাতিশীতোষ্ণ এবং শুষ্ক আবহাওয়া জিরা চাষের জন্যে উপযুক্ত। সুনিষ্কাশিত উর্বর,গভীর এবং বেলে দোঁআশ মাটি জিরা চাষের জন্যে উত্তম। ফল ধরার সময়ে শুকনা ও ঠাণ্ডা আবহাওয়া এবং ফল পুষ্ট হওয়ার সময়ে নাতিশীতোষ্ণ ও শুষ্ক আবহাওয়া জিরা চাষের জন্যে আদর্শ। মেঘলা আবহাওয়া, অধিক বৃষ্টিপাত এবং অতিরিক্ত ঠান্ডায় জিরার ফলন ভালো হয় না।

জাত:

প্রধানত চার ধরনের জিরা দেখা যায়। লম্বা,বেঁটে, গোলাপী ফুল এবং সাদা ফুল। গোলাপী ফুল জিরার ফলন অনেক বেশি।

আরও পড়ুন - Intercropping Agriculture: কৃষিক্ষেত্রে মিশ্র চাষের গুরুত্ব ও সুবিধা

বীজের হার ও বপন:

ছিটিয়ে বীজ বপন করলে প্রতি হেক্টরে ১২-১৫ কেজি বীজ লাগে। এবং সারিতে মাদা করে লাগালে প্রতি হেক্টরে ৮-১০ কেজি বীজ লাগে। সারিতে বপন করলে দুরত্ব হবে। ২৫ x ১৫ সেমিঃ। জিরা বোনার আগে ২/৩ দিন ভিজিয়ে রাখতে হবে এবং বোনার আগে প্রতি কেজি বীজের সাথে ২ গ্রাম হারে ভিটাভেক্স/প্রোভেক্স মিশিয়ে বীজ শোধন করে নিতে হবে।

বীজ বপনের সময়:

অক্টোবর-নভেম্বর মাস বীজ বপনের জন্য উপযুক্ত সময়।

জমি তৈরি ও সার প্রয়োগ(Fertilizer):

৫-৮ টি লাঙ্গল এবং মই দিয়ে জমির মাটি ঝুরঝুরে করে নিতে হবে। হেক্টর প্রতি ১০ টন জৈব সার, এবং শেষ চাষের আগে ১০ কেজি নাইট্রোজেন, ২০ কেজি ফসফেট সার হিসেবে প্রয়োগ করতে হবে। এরপর বীজ বপনের ৩০ দিন পর একবার এবং ৬০ দিন পর আরেকবার ১০ কেজি করে নাইট্রোজেন উপরি প্রয়োগ করতে হবে। প্রত্যেকবার সার প্রয়োগের পর হালকা সেচ দিতে হবে।

পরিচর্যা:

বীজ বপনের ২৫-৩০ দিন পর আগাছা এবং অতিরিক্ত চারা তুলে ফেলতে হবে এবং চারার গোড়ার মাটি আলগা করে দিতে হবে। জমিতে যথেষ্ট পরিমাণ জো না থাকলে বীজ বপনের পরে হালকা সেচ দিতে হবে। পরবর্তীকালে আরো ২/৩ বার সেচ দিতে হবে। খেয়াল রাখতে হতে ফুল আসার সময়ে এবং জিরা পুষ্ট হওয়ার সময়ে যেন মাটি শুকনো না থাকে।

আগাছা দমন(Weed management):

জিরা চাষে আগাছা একটি বড় সমস্যা। জিরা বীজ বপনের ১ মাস আগে  এবং 2 মাস পরে আগাছা পরিষ্কার করা প্ৰয়োজন |অতিরিক্ত গাছপালা ধ্বংস করার জন্য গোড়ালি এবং আগাছার সময় পাতলা ক্রিয়াকলাপ করা উচিত। ভেষজনাশকের রাসায়নিক প্রয়োগের মাধ্যমে আগাছাও নিয়ন্ত্রণ করা যায়। ০.৫  থেকে ১.০ কেজি/হেক্টর বা ফ্লুক্লোরালিন বা পেনিমেথালিন ১.০ কেজি/হেক্টরে  টেরবুট্রিন বা অক্সকাডিয়াজোন প্রয়োগ করা খুব কার্যকর

ফলন:

জাত অনুসারে ৯০-১১০ দিনের মধ্যে জিরা তোলা যায়। ফসল পেকে গেলে ছোট ছোট আঁটি বেঁধে, খামারে এনে তারপর রোদে শুকিয়ে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে বীজ জিরা আলাদা করতে হয়। ভালোভাবে চাষ করলে হেক্টর প্রতি ৮০০-১০০০ কেজি ফলন পাওয়া সম্ভব।

আরও পড়ুন - Successful farming tips: সফল কৃষিকাজের চাবিকাঠি কি? জেনে নিন কিছু টিপস

Like this article?

Hey! I am রায়না ঘোষ . Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters