স্বল্প পুঁজিতে শুরু করুন নিজের ব্যবসা

KJ Staff
KJ Staff

আপনি যদি স্বল্প পুঁজিতে নিজের ব্যবসা শুরু করতে চান, তবে সরকারের মুদ্রা লোণ প্রকল্পটি আপনার জন্য একেবারে উপযুক্ত। মুদ্রা লোণ প্রচলন করা হয়েছে, সকল স্তরের মানুষ যাতে নিজেদের পছন্দ ও সুবিধামতো স্বল্প পুঁজিতে ব্যবসা করে উপার্জন করতে পারেন সেই উদ্দেশ্যে। এই প্রকল্পের আওতায় বিভিন্ন পরিষেবা খাতের ক্রিয়াকলাপের জন্য ব্যাঙ্ক কর্তৃক লোণ প্রদান করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনা (পিএমএমওয়াই) এর আওতায় ব্যাংক এবং মাইক্রো ফিনান্স ইনস্টিটিউশনস (এমএফআই) দ্বারা লোণ তিনটি বিভাগে বিভক্ত:

শিশু (৫০,০০০ টাকা পর্যন্ত লোণ);

কিশোর (৫০,০০০ টাকা থেকে ৫,০০,০০০ টাকা পর্যন্ত লোণ);

তরুন (৫,০০,০০০ লক্ষ টাকা থেকে ১০,০০,০০০ টাকা পর্যন্ত লোণ)

লকডাউনের ফলে দেশের জনসাধারণ যারপরনাই বিপর্যস্ত। অনেকেরই বন্ধ উপার্জনের রাস্তা, যেন থমকে রয়েছে জীবন। কিন্তু জীবনধারণ করতে গেলে উপার্জন করা তো আবশ্যক। বেশি মূলধন নিয়োগ করে ব্যবসা শুরু করা সকলের পক্ষে সম্ভব হয় না। তাই স্বল্প পুঁজি বিনিয়োগ করে ব্যবসা শুরু করার জন্য এখানে ছ'টি ছোট ব্যবসায়িক ধারণা দেওয়া হল, যা আপনি প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনা (পিএমএমওয়াই), প্রকল্পের আওতায় শুরু করতে পারেন এবং ব্যাঙ্ক থেকে প্রয়োজন মতো লোণ পেতে পারেন।

খাদ্য পণ্য উত্পাদন ইউনিট – মুদ্রা লোণ প্রকল্পের আওতায় আপনি শুরু করতে পারেন পাঁপড়, আচার, জ্যাম/জেলি তৈরি, গ্রামীণ স্তরে কৃষিপণ্যের সংরক্ষণ, মিষ্টি দোকান, ছোট পরিষেবা খাবারের স্টল এবং প্রতিদিনের খাদ্য সরবরাহ/ক্যান্টিন পরিষেবা, কোল্ড স্টোরেজ, আইস মেকিং ইউনিট, বিস্কুট, রুটি এবং বান তৈরি ইত্যাদি।

কত বিনিয়োগের প্রয়োজন: আপনি এই ব্যবসাটি ২.০৫ লক্ষ টাকায় শুরু করতে পারেন।

কত লোণ পাওয়া যাবে: পাঁপড় ইউনিটের জন্য আপনি ৮.১৮ লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোণ নিতে পারবেন।

ভর্তুকি: সরকারের উদ্যোক্তা প্রকল্পের আওতায় পাঁপড় উৎপাদন ইউনিট শুরু করার জন্য আপনি ১.৯১ লক্ষ টাকা অনুদান পাবেন।

২) লাইন ইঞ্জিনিয়ারিং ইউনিট -

মুদ্রা প্রকল্পের আওতায় আপনি লাইন ইঞ্জিনিয়ারিং ইউনিট যেমন, নাট, বোল্ট, ওয়াশার, রিভেটস ইত্যাদি ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

কত বিনিয়োগের প্রয়োজন: আপনি এই ব্যবসাটি ১.৮৮ লক্ষ টাকায় শুরু করতে পারেন।

ব্যাঙ্ক কর্তৃক লোণ: লাইন ইঞ্জিনিয়ারিং ইউনিটের জন্য আপনি মেয়াদী লোণ হিসাবে ২.২১ লক্ষ টাকা এবং কার্যনির্বাহী মূলধন হিসাবে ২.৩০ লক্ষ টাকা লোণ নিতে পারবেন।

৩) কারী এবং রাইস পাউডার(চালের গুঁড়া) বিসনেস-

কত বিনিয়োগের প্রয়োজন: ১.৬৬ লক্ষ টাকায় এই ব্যবসাটি আপনি সহজেই শুরু করতে পারেন।

কত লোণ পাওয়া যাবে: আপনি ব্যাংক থেকে ৩.৩২ লক্ষ টাকার মেয়াদী লোণ এবং ১.৬৬ লক্ষ টাকার কার্যনির্বাহী লোণ পাবেন।

৪) কাঠের আসবাব উত্পাদন বিভাগ -

কত বিনিয়োগের প্রয়োজন- আপনি ১.৮৫ লক্ষ টাকায় এই ব্যবসাটি শুরু করতে পারেন।

কত লোণ পাওয়া যাবে: আপনি প্রায় ৭.৪৮ লক্ষ টাকার কম্পোসিট লোণ পাবেন। এছাড়াও ৩ মাসের কার্যকালীন মূলধন পাবেন ৩.৬৫ লক্ষ টাকা।

৫) পরিবহন যানবাহন -

অটো রিকশা, ছোট পণ্য পরিবহনের যানবাহন, তিন চাকার গাড়ি, ই-রিকশা, ট্যাক্সি ইত্যাদি ক্রয় করতে পারবেন পিএমএমওয়াইয়ের আওতায়। এছাড়া ট্রাক্টর/ট্র্যাক্টর ট্রলি/পাওয়ার টিলার –ও ক্রয়ের ক্ষেত্রে সহায়তা পাবেন। বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে ব্যবহৃত দু চাকার গাড়িও পিএমএমওয়াইয়ের আওতায় ক্রয় করতে পারবেন।

৬) ইক্যুয়িপমেন্ট ফিনান্স স্কিম ফর মাইক্রো ইউনিট-

প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম/যন্ত্রপাতি ক্রয় করে মাইক্রো এন্টারপ্রাইজ স্থাপন করতে পারেন। এতে ১০ লক্ষ টাকা অবধি লোণ পাবেন।

স্বপ্নম সেন

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters