৮ টি কৃষি ব্যবসায়িক ধারণা যা কম মূলধনে শুরু করে অধিক মুনাফা অর্জন করা যেতে পারে

Saturday, 28 March 2020 09:14 PM

আমাদের দেশে অনেক কৃষকই প্রচলিত কৃষিকাজ থেকে অতিরিক্ত অর্থ উপার্জনে ব্যর্থ। বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই তারা কৃষি খাতে নতুন লাভজনক ব্যবসা শুরু করতে চান, কিন্তু উপযুক্ত ধারণা ও তথ্যের অভাবে তারা বুঝে উঠতে পারেন না কোন ব্যবসা করলে স্বল্প পুঁজি বিনিয়োগ করে তারা লাভবান হবেন। দেখে নিন স্বল্প বিনিয়োগে লাভজনক কয়েকটি ব্যবসা, যা ক্ষুদ্র পর্যায় থেকে শুরু করে বড় স্তরে লক্ষ লক্ষ টাকা মুনাফা দেবে আপনাকে-

১) শুষ্ক ফুলের ব্যবসা

ফুলের উৎপাদন বর্তমান কৃষিতে অন্যতম দ্রুত বর্ধনশীল একটি ব্যবসা। বাজারে সর্বদা সব ধরণের ফুলের চাহিদা থাকায় এ জাতীয় ব্যবসা থেকে ভাল আয় হয়।

২) সার বিতরণ ব্যবসা

মধ্যম পুঁজি বিনিয়োগের মাধ্যমে কেউ সার বিতরণ ব্যবসা শুরু করতে পারেন। এই ব্যবসা বেশিরভাগ সরকার দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। ফলত লাভের সম্ভবনা থাকে অধিক।

৩) জৈব ফার্ম গ্রিন হাউস

জৈবিকভাবে বিকশিত কৃষি পণ্যের চাহিদা গত কয়েক বছরে লক্ষণীয় ভাবে বেড়েছে। রাসায়নিক পণ্য ও সারের মাধ্যমে উত্পন্ন খাবার অস্বাস্থ্যকর। এই ঝুঁকি এড়াতে মানুষের কাছে জৈব খাবারের চাহিদা বাড়ছে। এর ফলে কৃষি ব্যবসায়ের বিকাশ ঘটেছে । এই ব্যবসা শুরু করে সহজেই অতিরিক্ত উপার্জনও করতে পারেন।

৪) হাঁস-মুরগি পালন –

হাঁস-মুরগি পালন এমন একটি পেশা, যা সময়ের সাথে সাথে প্রযুক্তিগত-বাণিজ্যিক শিল্পে রূপান্তরিত হয়েছে। এই ব্যবসা পোল্ট্রি ফার্মিং নামেও পরিচিত, এটি কৃষি খাতে একটি দ্রুত বর্ধনশীল ব্যবসা।

৫) মাশরুম চাষ -

মাশরুম চাষ করে, কয়েক সপ্তাহের মধ্যে প্রচুর লাভ করা যায়। এই ব্যবসার শুরুতে খুব বেশি মূলধন বিনিয়োগ করারও প্রয়োজন হয় না। মাশরুম চাষ সম্পর্কে যদি সামান্য জ্ঞান থাকে, তাহলে এই ব্যবসায় আপনি সহজেই অধিক লাভ করতে পারবেন।

৬) হাইড্রোপনিক ব্যবসা -

হাইড্রোপনিক্স হল মাটিবিহীন চাষ পদ্ধতি। দ্রুত নগরায়ন এবং শিল্পায়নের ফলে চাষযোগ্য জমির পরিমাণ ক্রমাগত সংকোচিত হতে শুরু করেছে। এমতাবস্থায় পৃথিবীর বাড়তে থাকা জনসংখ্যাকে পর্যাপ্ত খাদ্য সরবরাহ করতে হলে, এটি একটি আদর্শ ব্যবসা। অনেকেই নিজেদের লোভনীয় চাকরি ছেড়ে বেরিয়ে এসে হাইড্রোপনিক চাষের ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করছেন এবং বাণিজ্যিক আকারে নিজেদের ব্যাবসা শুরু করেছেন।

৭) সূর্যমুখী চাষের ব্যবসা -

সূর্যমুখীকে বাণিজ্যিক নগদ শস্যও বলা হয়। এটির চাষ শুরু করার জন্য প্রাথমিকভাবে প্রয়োজন জমি। মধ্যম পুঁজি বিনিয়োগের মাধ্যমে এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন। সূর্যমুখীর বীজ থেকে শুরু করে প্রতিটি অংশেরই চাহিদা রয়েছে বিভিন্ন খাতে। লাভজনক ফসলের মধ্যে এটি অন্যতম।

৮) মাছ চাষ -

আপনি বছরের যে কোনও সময় এই ব্যবসাটি শুরু করতে পারেন। মৎস্য চাষের জন্য প্রয়োজন আধুনিক কৌশল এবং মধ্যম পুঁজি বিনিয়োগ। অভিজ্ঞমণ্ডলীর পরামর্শ নিয়ে এই ব্যবসা শুরু করলে প্রভূত লাভের সম্ভবনা রয়েছে।

এগুলি ছাড়াও, এমন অনেক ব্যবসা রয়েছে, যা শুরু করে আপনি অতিরিক্ত উপার্জন করতে পারবেন। যেমন - ফলের রস উত্পাদন, প্রাণী খাদ্য উত্পাদন, কাজু-বাদাম প্রক্রিয়াজাতকরণ, চিনাবাদাম প্রক্রিয়াজাতকরণ, চিংড়ি চাষ, শূকরশালা, ফিশ হ্যাচারি, মশলা প্রক্রিয়াকরণ, সয়াবিন প্রসেসিং, সবজি চাষ, চা ব্যবসা, রজনীগন্ধা চাষ, ই-শপিং পোর্টাল, ক্যাকটাসের ব্যবস্থা, দুধ উত্পাদন, ঔষধি উদ্ভিদ চাষ, ভুট্টা চাষ ইত্যাদি।

স্বপ্নম সেন (swapnam@krishijagran.com)

English Summary: 8 Agriculture Business Ideas that can earn better profits by starting at a lower cost


Krishi Jagran Bengali Magazine Subscription Subscribe Online

Download Krishi Jagran Mobile App
Helo App Krishi Jagran

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.