প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনা প্রকল্পের সাহায্যে পেয়ে যান ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোন

KJ Staff
KJ Staff

করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই জারি বিশ্বব্যাপী৷ ভারতে দু’দফার লকডাউন চলছে এই মহামারীর চেনকে ভেঙে ফেলার জন্য৷ একদিকে যেমন মহামারীকে হারিয়ে বাঁচার লড়াই চলছে অন্যদিকে তেমনই অর্থনৈতিক ব্যবস্থাকেও ধরে রাখার মরিয়া প্রচেষ্টা চলছে দেশে৷ বিশেষ করে কৃষক থেকে ব্যবসায়ীদের জন্য একাধিক সুযোগ সুবিধার কথা ইতিমধ্যেই ঘোষণা করা হয়েছে সরকারের পক্ষ থেকে এবং সেইমতো কাজও চলছে৷

এই প্যানডেমিক পিরিয়ডে আত্মনির্ভরশীল হওয়ার ওপরও জোর দিচ্ছে সরকার৷ এই প্রসঙ্গে উল্লেখ্য প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনা৷ যার মাধ্যমে দেশের অগণিত নাগরিক নিজের উদ্যোগে নতুন করে কিছু শুরু করার কথা ভাবার সাহস পাবে৷

কী এই প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনা?

কেউ যদি লকডাউনের পরে নিজের ব্যবসা শুরু করতে চান তাহলে তিনি একবার এই যোজনা সম্পর্কে জেনে নিতে পারেন৷ ছোটখাটো ব্যবসা বা পুরনো ব্যবসাকে আরও একটু এগিয়ে নিয়ে যেতে ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোন দেওয়ার সুবিধা রয়েছে এই যোজনায়৷

প্রসঙ্গত, মোদী সরকার এই প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনার সূচণা করেছিলেন আগেই৷ অনেকেই রয়েছেন যারা ব্যাঙ্কের নিয়ম সম্পূর্ণ পালন করতে না পারার জন্য ঋণ বা লোনের সুবিধা পাননি এবং ব্যবসা শুরু করার স্বপ্ন ধাক্কা খেয়েছে৷ তাদের কথা ভেবেই মূলত এই উদ্যোগ নেওয়া হয়৷

প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনার ভিত্তিতে যে ব্যক্তিদের নাম কোনও কুটির শিল্পের সঙ্গে যু্ক্ত রয়েছে বা যার কাছে পার্টনারশিপের খসড়া বা দলিলপত্র রয়েছে তারা এই লোন নেওয়ার সুযোগ পাবে৷

এই যোজনায় তিন ভাগে ঋণের টাকা দেওয়া হয়ে থাকে৷ সরকার একে শিশু ঋণ, কিশোর ঋণ, তরুণ ঋণ এই তিনভাগে ভাগ করেছে৷

শিশু ঋণ- এই যোজনার ভিত্তিতে কেউ দোকান খোলার জন্য ৫০,০০০ টাকা পর্যন্ত লোন বা ঋণ নিতে পারেন৷

কিশোর ঋণ- এর ভিত্তিতে ঋণের টাকা ৫০,০০০ টাকা থেকে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত দেওয়া হতে পারে৷

তরুণ ঋণ- কোনও ব্যক্তি ছোটখাটো ব্যবসা শুরু করতে ইচ্ছুক হলে তাকে তরুণ ঋণের ভিত্তিতে ৫লক্ষ থেকে ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণ দেওয়া হতে পারে৷

মনে রাখতে হবে ছোট ব্যবসা শুরুর ক্ষেত্রেই এই লোনের সুবিধা পাওয়া যাবে৷ কেউ যদি মনে করেন কোনও বড় ব্যবসার জন্য এই লোন নেবেন তা কিন্তু একেবারেই সম্ভব নয়৷ উদাহরণস্বরূপ- ফল বা সবজির দোকান, ট্রাক চালক, মেরামতের দোকান, মেশিন পরিচালনা, ফুড প্রসেসিং ইউনিট, মৎস্যচাষ, পোলট্রি ফার্ম, মূলত এই ধরণের উদ্যোগের জন্য এই যোজনা৷

কোথায় পাবেন এই লোন?

প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনার ভিত্তিতে কোনও সরকারি ব্যাঙ্ক, গ্রামীণ ব্যাঙ্ক, প্রাইভেট ব্যাঙ্ক বা বিদেশি ব্যাঙ্ক থেকে এই লোনা নেওয়া যেতে পারে৷

জানা যাচ্ছে, ২৭ সরকারি ব্যাঙ্ক, ১৭ প্রাইভেট ব্যাঙ্ক, ৩১ গ্রামীণ ব্যাঙ্ক, ৪ সহকারি ব্যাঙ্ক, ৩৬ মাইক্রো ফিন্যান্স সংস্থা এবং ২৫ টি নন ব্যাঙ্কিং ফিনান্সিয়াল কোম্পানি বা এনবিএফসি-কে এই লোন দেওয়ার দায়িত্ব দিয়েছে৷

মুদ্রা কার্ড কী?

মুদ্রা কার্ড হল মুদ্রা লোনা অ্যাকাউন্টের ডেবিট কার্ড৷ এর থেকে যেমন টাকা তোলা যাবে তেমনই এর থেকে জানা যাবে টাকা জমা থেকে তোলার যাবতীয় তথ্য৷ দেশের যে কোননও এটিএম বা মাইক্রো এটিএম-এ এই মুদ্রা কার্ড ব্যবহার করা যাবে৷

প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনা সম্পর্কে আরও জানতে হলে এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইট -এ লগ ইন করুন - 

www.mudra.org.in

বর্ষা চ্যাটার্জ্জী (barshachatterjee.news@gmail.com) 

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters