বহুগুন সম্পন্ন আতা ফলের চাষাবাদ:- রোগ ও তার সহজ প্রতিকার ব্যবস্থা

Tuesday, 11 May 2021 10:07 PM
Sugar Apple (Image Credit - Google)

Sugar Apple (Image Credit - Google)

আতা এক ধরণের মিষ্টি যৌগিক ফল | প্রধানত, পর্তুগিজ ভাষায় একে "আতা ফল" বলা হয় | শরিফা, মেওয়া নাম পরিচিত এই গাছের উচ্চতা প্রায় ১০ মিটার পর্যন্ত হয়ে থাকে | এই ফল ফেব্রুয়ারী র্মাচ মাসে সংগ্রহ করা হয়।

আতা চাষের উপযুক্ত মাটি ও জলবায়ু:

এই ফল চাষের জন্য আপনাকে উঁচু জমি নির্বাচন করতে হবে, যে জমিতে সহজেই জল উপরে উঠে যায়না | অল্প ছায়াযুক্ত স্থানেও আতা চাষ করা যায় | এই চাষের জন্য উপযুক্ত মাটি হলো দোআঁশ মাটি | শুষ্ক ও গরম পরিবেশে এই ফলন ভালো হয় |

চারা রোপণের প্রক্রিয়া:

বীজ থেকে চারা তৈরী হলেও, বর্তমানে কলমের মাধ্যমে চারা তৈরী হয়ে থাকে | সবসময় নীরোগ ও পুষ্ট বীজ থেকে চারা উৎপাদন করতে হয় | বীজ থেকে চারা উৎপাদন হতে ২-৩ মাস সময় লাগে | তাই বীজ জলে ভিজিয়ে বপণ করলে তাড়াতাড়ি অঙ্কুরিত হয় | জুন-জুলাই চারা রোপণের জন্য সঠিক সময় |

চাষের জন্য জমি প্রস্তুত:

নির্বাচিত জমির আগাছা পরিষ্কার করে ভালো করে চাষ করে মাটি ঝুরঝুরে করতে হবে | চারা গাছ থেকে গাছের ও সারি থেকে সারির দুরত্ব হতে হবে ৪ মিটার | গর্তের মাপ হতে হবে ৬০*৬০*৬০ সে.মি | গর্তপ্রতি ২৫০ গ্রাম এমপি সার, ২০ কেজি পচা গোবর সার মিশিয়ে গর্ত ভরিয়ে ১৫-২০ দিন রেখে দিতে হবে | এহেন অবস্থায়, গর্তের মাঝে খাড়াভাবে চারা রোপণ করতে হবে | সার দেওয়ার পর প্রয়োজনে সেচ ব্যবস্থা চালু করতে হবে | প্রতিবছর ফেব্রুয়ারী, মে ও অক্টোবর মাসে একটি ফলন্ত গাছে ১৫০-১৭৫ গ্রাম এমপি সার, ১৫০-১৭৫ গ্রাম ইউরিয়া, ১৫০-১৭৫ গ্রাম টিএসপি প্রয়োগ করতে হবে |

আতা ফলের রোগ ও প্রতিকার:

আতা গাছে মিলিবাগ নামের এক ধরণের পোকার আক্রমণ দেখা যায় | বাজারে ব্যবহৃত কীটনাশক ব্যবহার করে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায় | মাঝে মাঝে হাত দিয়ে ফল পরিষ্কার করে রক্ষা পাওয়া যায় | আতা ফল এনথ্কাস রোগে আক্রন্ত হয়ে কালো হয়ে নষ্ট হয়ে যায় | সেই ধরণের ফল গাছ থেকে কেটে ফেলতে হয় এবং যে সব গাছের ডাল মরে গেছে সেগুলিও কেটে ফেলতে হবে |

আরও পড়ুন - জানুন আম গাছে মিলিবাগ বা ছাতরা পোকার সংক্রমণ ও দমনের ব্যবস্থাপনা

ফল সংগ্রহ:

প্রধানত, ফুল ফোটার ৩-৪ মাসের মধ্যে ফল পুষ্ট হয় | ফল পুষ্ট হলে হালকা সবুজ থেকে হলুদ ভাব হয়েথাকে। সংগ্রহ করা পরিপক্ক ফল গুলো ১ থেকে ২ দিনের মধ্যে পাকতে শুরু করে। ৩ থেকে ৪ বছর বয়সী গাছে ১৫০ থেকে ২৫০ টি পযর্ন্ত ফল ধরে। এক একটি ফলের ওজন ১৫০ থেকে ২৫০ গ্রাম পর্যন্ত হয়।

আরও পড়ুন - দুর্দান্ত সহজ পদ্ধতিতে বাড়ির টবে জবা চাষ, রইলো গুরুত্বপূর্ণ ট্রিকস

English Summary: Cultivation of multi-purpose sugar apple fruit: - Disease and its easy remedy

আপনার সমর্থন প্রদর্শন করুন

প্রিয় অনুগ্রাহক, আমাদের পাঠক হওয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আপনার মতো পাঠকরা আমাদের কৃষি সাংবাদিকতা অগ্রগমনের অনুপ্রেরণা। গ্রামীণ ভারতের প্রতিটি কোণে কৃষক এবং অন্যান্য সকলের কাছে মানসম্পন্ন কৃষি সংবাদ বিতরণের জন্যে আমাদের আপনার সমর্থন দরকার। আপনার প্রতিটি অবদান আমাদের ভবিষ্যতের জন্য মূল্যবান।

এখনই অবদান রাখুন (Contribute Now)

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.