সার ভালো রাখার কিছু পরামর্শ

Monday, 09 July 2018 03:45 PM

সার, কৃষিকার্যে একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কৃষকদের ফসলের সুরক্ষার আগে সারের সুরক্ষা করা বিশেষ প্রয়োজন। এখানে আমরা কিছু অতি প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিলাম যার সাহায্যে আপনি সারকে খুব ভালো অবস্থাতে রাখতে সমর্থ হবেন। এক্ষেত্রে প্রথমেই বলা ভালো, সারের বস্তা যখন চালান গাড়িতে তোলা হয়, তখন মজুররা সারের বস্তায় আঁকশি মারে। এক্ষেত্রে মজুরদের আগে থেকেই তিনটি বিষয়ের উপর পরামর্শ দিয়ে দেবেন, যেমন- সারের বস্তায়  হুক মারা চলবে না, সারের বস্তা মাটির উপর টেনে হিঁচড়ে নেওয়া যাবে না, সারের বস্তায় যেন কোনোভাবে বৃষ্টির জল না লাগে ইত্যাদি।

সার নষ্ট হয়ে যায় প্রধানত কয়েকটি কারণে -

১) হুক মারার কারণে

২) মেঝেতে টেনে হিঁচড়ে নেওয়ার সময়, কোনো ধারালো বস্তুর আঘাতে বস্তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়

৩) জলধারণকারী কোনো উপাদানে তৈরি কোনো বস্তু, বিশেষত চটের বস্তাতে সার রাখা উচিত নয়, কারণ এতে বায়ুর আর্দ্রতা লেগে সার নষ্ট হবার আশংকা থাকে।

কেউ প্রশ্ন করতেই পারে, তবে কীভাবে সারকে উষ্ণতা ও আর্দ্রতা থেকে বাঁচাবো? ভালো কথা, সার পুরোপুরি বাঁচানো সম্ভবপর নয়, তবে একে আর্দ্র হওয়ার থেকে কিছুটা বাঁচানো যেতে পারে। উদাহরণস্বরূপ বলা যায়, সারকে সাধারণত ভালো আলো বাতাস যুক্ত ঘরে রাখা উচিত। সন্ধ্যাবেলায় যখন বাতাসের আর্দ্রতা বেশি থাকে তখন ওই ঘরের সমস্ত দরজা ও জানালা বন্ধ করে দেওয়া উচিত। এইভাবে সারকে ডাম্প হওয়া থেকে বাঁচানো যেতে পারে, সারে আর্দ্রতা লেগে গেলে সার জমাট বেঁধে যায়, এই জমাট বাঁধার প্রধান কারণ সারের রক্ষণাবেক্ষণের সঠিক পদ্ধতিগত সুযোগ সুবিধার অভাব। এই জমাট বেঁধে যাওয়া সার চাষীদের ব্যবহারের পক্ষে খুবই অসুবিধাজনক।

এখানে সারের রক্ষণাবেক্ষণের জন্য প্রয়োজনীয় কিছু পরামর্শ দেওয়া হল:

১) যে ঘরের মধ্যে সার মজুত করা হবে, সেখানে মেঝে যেন শুকনো হয় ও বাড়িটি যেন খুব পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন হয়, সারের বস্তা যাতে দেওয়াল বা ঘরের ছাদ ছুঁয়ে না যায় সেদিকে নজর রাখতে হবে

২) সারের মজুতকরণের সময় অনুসারে যদি পৃথক পৃথক ভাবে তাকের ব্যবস্থা করা হয় তবে তা অনেকটাই সুবিধাজনক হতে পারে, এতে কোন সারটি আগে এসেছে আর কোনটা পরে মজুতকরণের জন্য রাখা হয়েছে সেটি সহজেই জানা যায়, এতে অহেতুক পুরোনো সার পড়ে থাকে না।

৩) সারের বস্তাগুলিকে এমনভাবে পর পর সাজাতে হবে যাতে সেগুলি ধসে না যায়। এর জন্য সরাসরি বস্তাগুলি না সাজিয়ে একটু কোনাকুনি সাজাতে হবে। সারের বস্তা সাধারণত প্লাস্টিক জাতীয় পদার্থ দিয়ে তৈরি হয়, তাই এগুলিকে অনেকটা উঁচুতে রাখা উচিত নয়, অন্তত ৩ মিটারের বেশি তো নয়ই।

৪) ব্যাগ ভর্তি সারকে শুকনো ও পরিষ্কার মেঝেতে রাখা উচিত। মেঝেতে যদি বিটুমেন, অ্যাস্ফাল্ট ও আনুপাতিক হারে বালি মিশিয়ে লেপা থাকে সেক্ষেত্রে মেঝেতে আর্দ্রতা নিবারণ করা যায় কিন্তু এই প্রক্রিয়াটি অত্যন্ত ব্যায়সাপেক্ষ। তাই সাধারণ সিমেন্ট করা মেঝে সার সংরক্ষণের জন্য একান্ত প্রয়োজনীয়।

৫) যেখানে সার মজুত করা হবে সেখানে অন্য কোনো কৃষি উপাদান মজুত করা উচিত নয়।

এই উপরোক্ত পদক্ষেপগুলি যদি মেনে চলা হয় তবে আপনার মজুত সার অনেকদিন সুরক্ষিত থাকবে ও অনেকদিন যাবৎ রেখে ব্যবহার করতে পারবেন। অন্তত কম মূল্যের সার বিনষ্ট করে বেশির ভাগটাই আপনি চাষের কাজে ব্যবহার করতে পারবেন। এতে সাশ্রয়ও হবে প্রচুর, শুধু একটু সতর্কতার প্রয়োজন।

- প্রদীপ পাল

Share your comments



Krishi Jagran Bengali Magazine Subscription Subscribe Online


Download Krishi Jagran Mobile App

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.