ফসলের রোগ দমনে এবং মান বৃদ্ধিতে ঠিক কীভাবে প্রয়োগ করতে হবে ট্রাইকোডার্মা ভিরিডি, দেখে নিন বিস্তারিত

KJ Staff
KJ Staff

এখনও অনেক কৃষক তাদের ফসলে রোগ-পোকার আক্রমণ ঘটলে রাসায়নিক ব্যবহার করে থাকেন। রাসায়নিকের ক্ষতিকর প্রভাব সম্পর্কে তারা অবহিত নন। কিন্তু এই রাসায়নিকগুলির বেশ কিছু ক্ষতিকর প্রভাব রয়েছে। ফসলে প্রয়োগের পরে তা শুধু রোগ-পোকা ধংস করেই থেমে থাকে না, তার ক্ষতিকর প্রভাব পরে পরিবেশের উপর। এমনকি এই রাসায়নিকযুক্ত ফসল গ্রহণ করলে মানুষ এবং অন্যান্য প্রাণীরও স্বাস্থ্যে ঝুঁকির আশঙ্কা থাকে। অপরদিকে জৈব রোগনাশক প্রয়োগ করলে ফসলের সাথে সাথে স্বাস্থ্যও থাকে রোগমুক্ত এবং প্রাণবন্ত। এরকমই একটি জৈব রোগনাশক হল টি.ভি। কিন্তু জানেন কি, ফসলের রোগ দমনে কতটা কার্যকরী ট্রাইকোডার্মা ভিরিডি? কীভাবে এর প্রয়োগ করলে ফসলের মান বৃদ্ধি পাবে? জেনে নিন, বিশদে এর সম্পর্কে।

ট্রাইকোডার্মা ভিরিডি (টি.ভি) নামক ছত্রাক একটি কার্যকরী জৈব রোগনাশক হিসাবে কাজ করে। এটি সাধারণত বাহকের সঙ্গে মেশানো অবস্থায় পাওয়া যায়। এটি আলুর ধ্বসা ও কন্দ পচা, বিভিন্ন সব্জির গোড়া পচা; বেগুন, টমেটো, লঙ্কা ও আখের ছত্রাকজনিত ঝিমিয়ে পড়া বা গোড়া পচা; আলু, পান ও গোলমরিচের শেকড় বা কান্ডের পচন রোগকে দমন করতে পারে। যেখানে বারবার রাসায়নিক ছত্রাকনাশক ব্যবহার করার ফলে এর প্রতিরোধী ছত্রাকের জাত সৃষ্টি হয়েছে, সেখানে এটি খুবই কার্যকরী। ট্রাইকোডার্মা ভিরিডি (টি.ভি) বীজের অঙ্কুরোদগমে, গাছের বৃদ্ধি ও দ্রুত ফুল আসতে সহায়তা করে। এছাড়া গাছ, ফুল ও ফলের গুণগত মান বৃদ্ধি করে। এটি পরিবেশের কোনরকম ক্ষতি করে না।

প্রয়োগ বিধি –

বীজ শোধন – ৫ গ্রাম টি.ভি ১০০ মি.লি জলে গুলে ১ কেজি পরিমাণ বীজের সাথে ভালোভাবে মিশিয়ে ছায়ায় শুকিয়ে বীজ বপন করতে হবে।

চারার শেকড় শোধন – ১০০ গ্রাম টি.ভি ১ লি. জলে গুলে তার মধ্যে চারার শেকড় ৩০ মিনিট থেকে ১ ঘন্টা ডুবিয়ে রেখে চারা রোয়া করতে হবে।

কন্দ শোধন – ১০ গ্রাম টি.ভি ২৫০ মি.লি. জলে গুলে ১ কেজি পরিমাণ আলু, পটল, আখ ইত্যাদি ফসলের কন্দ বা কাটিং-এ স্প্রে করে তারপর বপন করতে হবে।

মূল জমির মাটিতে প্রয়োগ – কুইন্ট্যাল প্রতি জৈব সার/কম্পোস্টের সাথে ১ কেজি টি.ভি ভালোভাবে মিশিয়ে ১ বিঘা জমিতে ব্যবহার করুন।

ফসলে স্প্রে – প্রতি লিটার জলে ৫ গ্রাম টি.ভি মিশিয়ে স্প্রেয়ার দিয়ে গাছের গোড়ার মাটি খুব ভালোভাবে সিক্ত করে দিন।

বীজতলা শোধন – ১০০ গ্রাম টি.ভি ২০ লি. জলে গুলে ঝাঁঝরি দিয়ে ৪-৫ শতক বীজতলার গাছ ও মাটি ভালোভাবে ভিজিয়ে নিতে হবে।

সতর্কতা –

রোদ, তাপ, রাসায়নিক সার ও কীটনাশক থেকে দূরে রাখুন।

প্যাকেটে উল্লিখিত সময়ের মধ্যে ব্যবহার করুন।

ট্রাইকোডার্মা ভিরিডি ব্যবহারের আগে বা পরে রাসায়নিক ছত্রাক-নাশক স্প্রে করা উচিৎ নয়।

কোন রাসায়নিক সারের সঙ্গে মিশিয়ে ব্যবহার করা যাবে না।

বিকেলের দিকে ঠান্ডা আবহাওয়াতে ব্যবহার করাই শ্রেয়।

ব্যবহারের আগে স্প্রে মেশিনটি খুব ভালো করে ধুয়ে নেওয়া দরকার।

এই ছত্রাকের কোন বিষক্রিয়া নেই, তাই সব্জি, পান ও যে কোন ফসলে ব্যবহার করার পরেই ফসল তোলা যায়।

তথ্যসূত্র – শুভ্রজ্যোতি চ্যাটার্জ্জী  

Image source - Google

বিশ্বের যে কোনও জায়গায় হতে পারে জাফরানের চাষ

(Herbicides on crops) গুরুত্বপূর্ণ কিছু সবজী ফসলের আগাছানাশক স্প্রে করার সময়সূচী

বর্তমান সময়ে জল সংরক্ষণ (Importance of water conservation)-এর গুরুত্ব

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters