Sweet Potatoes Farming procedure মিষ্টি আলু চাষে হয়ে উঠুন লাভবান

Sweet Potatoes Framing
Sweet Potatoes Framing

খেতে অত্যন্ত সুস্বাদু। ছেলে থেকে বুড়ো সবার প্রিয় এই সবজি পিঠে-পুলি বানানোর জন্য আদর্শ এক সবজি। সিদ্ধ করেও যেমন খাওয়া যায়, তেমনই পুড়িয়েও এই সবজি খাওয়া যায়। বাজারে এই সবজি সহজলভ্যও বটে। পুষ্টিগুণে সমৃদ্ধ এই মিষ্টি আলু চাষ করে বর্তমানে অনেক চাষি লাভের মুখ দেখছেন।

মিষ্টি আলুর স্বাস্থ্যসম্মত দিক (Health Benefit)

মিষ্টি আলু নিয়মিত খেলে শরীরে শ্বেতকণিকার পরিমান বাড়ে। এছাড়াও এই সবজিতে পর্যাপ্ত পরিমানে ম্যাঙ্গানিজ থাকায়, নার্ভ ভালো রাখতে এবং ধমনী ও হার্ট ভালো রাখতেও কার্যকরী ভূমিকা নেয়। মিষ্টি আলু ভিটামিন বি৬-এর আধার। আমাদের শরীরে হোমোসাইস্টিন নামের কেমিক্যাল এই সবজি অনেকাংশে কমিয়ে দেয়, এবং হার্ট ভালো রাখতে সাহায্য করে। মিষ্টি আলুতে প্রচুর পরিমানে পটাশিয়াম থাকায়, এটি খেলে মানব শরীরের হৃদস্পন্দন ঠিক থাকে সাথে সাথে কিডনির রোগও দূর হয়।

মিষ্টি আলু চাষের উপযুক্ত মৃত্তিকা (Soil)

দোঁআশ ও বেলে দোআঁশ মাটি মিষ্টি আলু চাষের জন্য সর্বোত্তম। এছাড়াও যে কোনও মাটিতে এই আলুর চাষ করা যায়। বালি প্রধান মাটিতেও মিষ্টি আলুর ফলন ভালো হয়।

মিষ্টি আলুর চারা রোপণ (Planting)

মিষ্টি আলু চাষ অক্টবরের মাঝামাঝি সময় থেকে শুরু করে নভেম্বরের মাঝামাঝি সময় অবধি করা যায়। লতার সংখ্যা প্রতি শতকে ২২০-২৩০ টি প্রয়োজন হয়। লতার মাথা থেকে ১ম ও ২য় খন্ড রোপণ করা উচিত। সারি থেকে সারির দূরত্ব কম করে ৬০ সেমি এবং আলু থেকে আলুর দূরত্ব কম করে ৩০ সেমি হওয়া উচিত।

সার প্রয়োগ (Fertilizer)

চারা রোপনের সময় গোবর, টিএসপি, ইউরিয়া ও এমটি সারের চার ভাগের এক ভাগ জমিতে উপযুক্ত উপায়ে মিশিয়ে দিতে হবে। বাদবাকি পড়ে থাকা ইউরিয়া এবং এমপি সার বপনের দুই মাস পর সারির পার্শ্বস্থ অংশে প্রয়োগ করতে হবে।

আরও পড়ুন:Rabbit Rearing Procedure: অতি সহজে শিখুন খরগোশ পালন

সেচ দেওয়ার রীতিনীতি (Irrigation)

মাটি বুঝে সাথে সাথে জমির আর্দ্রতা অনুযায়ী ক্ষেতে ২-৩ টি সেচ দিতে হবে। ইউরিয়া সার পার্শ্ব প্রয়োগের সময় ২ বার গাছের গোড়া বেঁধে দিতে হবে।

পোকামাকড় ও তার প্রতিকার (Insects management)

মিষ্টি আলুর ক্ষেতেও বিভিন্ন পোকার আক্রমণ লক্ষ্য করা যায়, যার মধ্যে উইভিল পোকা অন্যতম। এই পোকা মিষ্টি আলু চাষের ক্ষেত্রে অনর্থ তৈরী করতে পারে। পূর্ণ বয়স্ক উইভিল ৬ মি.মি পর্যন্ত লম্বা হতে পারে। এই পোকা কন্দমূলের ভিতর ছিদ্র করে ঢুকে পড়ে, এবং কন্দের রস খেয়ে নেয়। এই পোকার আক্রমণ হলে কন্দমূল আর খাওয়ার যোগ্য থাকে না।
উইভিল পোকা আক্রমণ করলে মিষ্টি আলু গাছের গোড়ার মাটি তুলে ফেলা উচিত। আক্রান্ত মিষ্টি আলু কখনোই ভাল মানের আলুর সঙ্গে রাখা যাবে না। সুমিথিয়ন কীটনাশক এই পোকা দমনের অন্যতম এক উপায়।

ফসল সংগ্রহ (Harvest)

মিষ্টি আলু ফলাতে গেলে বেশিদিন অপেক্ষা করতে হবে না। চারা লাগানোর ১৪০ থেকে ১৫০ দিনের মাথায় এই ফসল তুলে নেওয়া যায়।

আরও পড়ুন: Onion farming Process: সহজে পেঁয়াজ চাষ শিখুন আর হয়ে উঠুন লাখপতি

Like this article?

Hey! I am কৌস্তভ গাঙ্গুলী. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters