আসামের টি রিসার্চ অ্যাসোসিয়েশন

KJ Staff
KJ Staff

চায়ের গবেষণা সুষ্ঠুভাবে করার জন্য ১৯00 সালে Indian Tea Association গঠিত হয়েছিল। এই অনুষঙ্গে ১৯১১ সালে আসামের জোরহাটে Toklai Experimental Station স্থাপিত হয়। এরপর চা-র ক্ষেত্রে গবেষণা সংক্রান্ত নানা কর্মকান্ড ভারতের উত্তর পূর্বাঞ্চলে ছড়িয়ে দেবার জন্য ১৯৬৪ সালে Tea Research Association (TRA) তৈরী করা হল। চা গবেষণার ক্ষেত্রে জোরহাটে অবস্থিত এই সংস্থা সারা বিশ্বে সবচেয়ে পুরানো গবেষণা কেন্দ্র হিসাবে মান্যতা পেয়েছে। হিমালয়ের উত্তর পূর্ব অঞ্চলের পাদদেশে দার্জিলিং, তরাই, নাগরাকোটা, তেজপুর, ডিব্রুগড়, শিলচর, আগরতলা যেখানে প্রায় সাড়ে তিন লক্ষ হেক্টর জুড়ে যে এক হাজারের ও বেশী (১০৭৬) চা –এর এস্টেট আছে, সেখানে এই গবেষণা কেন্দ্র নানা প্রযুক্তিকে কাজে লাগাতে ব্যস্ত। ইদানীং মেঘালয় ও অরুনাচল প্রদেশেও TRA তার গবেষণা কাজকে এগিয়ে নিয়ে যেতে উদ্যোগী হয়েছে। এই গবেষণা কেন্দ্রের উদ্দেশ্য হল –

  • চায়ের গুণমাণতা বৃদ্ধি করা।
  • উৎপাদন বাড়ানো।
  • চা-এর চাষ পদ্ধতিতে সার / কীটনাশক পদার্থ ব্যবহারের খরচ কমানো।
  • উন্নত চা তৈরীর পদ্ধতি নিয়ে সংশ্লিষ্ট চা বাগানগুলির উপদেষ্টা হিসেবে সাহায্য করা।
  • মাটি , জল, রাসায়নিক পদার্থ, সার ইত্যাদির পরীক্ষা করা।
  • চা এর residue anslysis (অবশেষ বিশ্লেষণ) সম্পন্ন করা।
  • চা –এর স্বাদ কে যাচাই করা।
  • Tea Breeding, Selection of Tea Garmplasm, DNA based genetic mark ইত্যাদি নিয়ে গবেষণা করা।

- রুনা নাথ

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters