অ্যাকোয়ারিয়াম মাছের মধ্যে অন্যতম হল গোল্ডফিশ

Friday, 15 February 2019 03:09 PM

গোল্ডফিশ বিশ্বের অ্যাকোয়ারিয়াম মাছের মধ্যে অন্যতম। এটি কার্প পরিবারের তুলনামূলকভাবে একটি ছোট সদস্য। এবং এটি পূর্ব এশিয়ারতে বেশী পাওয়া যায়। এই প্রজাতিটি হাজার হাজার বছর আগে চীনে প্রথম পাওয়া গেছিলো। এবং তারপর থেকে বিভিন্ন অন্যান্য স্বতন্ত্র প্রজাতিতে উন্নত করা হয়েছে। গোল্ডফিশ প্রজাতি আকার, পাখনার আকৃতি, শরীরের আকৃতি এবং রঙের জন্য আলাদা আলাদা হয়। তাদের শরীরের রঙ সাদা, কমলা, হলুদ, বাদামী, লাল এবং কালোর বিভিন্ন সমন্বয়  দ্বারা হয়।

গোল্ডফিশের সাধারণত দুজোড়া করে পাখনা বুকের দিকে ও শ্রোর্ণীর দিকে থাকে এবং পিঠের দিকে, ল্যাজের দিকে ও পায়ুর দিকে একটি করে পাখনা থাকে। প্রাপ্তবয়স্ক মাছের দৈর্ঘ্য ১২ থেকে ২২ সেন্টিমিটারের মধ্যে এবং সর্বাধিক ৪৫ সেন্টিমিটার হয়। পরিপক্ব মাছের সর্বোচ্চ রেকর্ড ওজন ৩ কেজি।  গোল্ডফিশ  উদ্ভিদ, কীটপতঙ্গ (যেমন মশার লার্ভা), জোয়োপ্লাঙ্কটন খায়। গোল্ডফিশ শুধুমাত্র পর্যাপ্ত জল এবং সঠিক পুষ্টিগত খাবারের সাহায্যে পরিপক্ক হতে পারে। বর্তমানে গোল্ডফিশ, অ্যাকোয়ারিয়ামে শোভাময় মাছ হিসাবে ব্যবহার করা হয়। বিশেষত গোল্ডফিশ আক্রমনাত্মক নয়। এরা সাধারণত মিষ্টি জলে পাওয়া যায়। অ্যাকোয়ারিয়ামে এদের রাখলে, প্রত্যেক দু-সপ্তাহ অন্তর জল পরিবর্তন করা ভালো। এরা অনেকদিন বাঁচে। তাদের গড় আয়ু অ্যাকুয়ারিয়ামে প্রায় ১০ বছর। বর্তমানে গোল্ডফিশ চাষ উল্লেখযোগ্য আকারের শিল্প হয়ে উঠেছে। প্রতি বছর লক্ষ লক্ষ মাছ উৎপাদিত হয় এবং মাছ উৎসাহীদের জন্য অ্যাকোয়ারিয়াম দোকানগুলিতে বিক্রি হয়।

- দেবাশীষ চক্রবর্তী



Krishi Jagran Bengali Magazine Subscription Subscribe Online

Download Krishi Jagran Mobile App

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.