মাটি সম্পর্কে দু-চার কথা

Tuesday, 12 March 2019 10:52 AM

মাটির সংজ্ঞাঃ

মৃত্তিকা-বিজ্ঞানীগণ মাটির নানারূপ সংজ্ঞা দিয়েছেন, যেমনঃ

(১) ভূ-পৃষ্ঠের নরম আবরনের নাম মৃত্তিকা।

(২) উদ্ভিদ জন্মানোর উপযোগী খনিজ, জীব ও জৈব সমন্বয়ে গতিশীল প্রাকৃতিক বস্তুকে মাটি বলে।

(৩) সময়ের ব্যবধানে জলবায়ূ ও জৈব পদার্থের সমন্বিত প্রভাবে রূপান্তরিত উৎস শিলা সৃষ্ট গাছ জন্মানোর উপযোগী ভূ-পৃষ্ঠের প্রাকৃতিক বস্তর সমষ্টিকে মৃত্তিকা বলে।

(৪) পৃথিবীর উপরিভাগের যে নরম স্তরে গাছপালা মূল স্থাপন করে রস শোষণ করে জন্মায় ও বৃদ্ধি পায় তাকে মাটি বলে।

(৫) মাটি হচ্ছে কঠিন পদার্থের ছোট ছোট টুকরা, জল ও বায়ুর সমন্বয়ে গঠিত যৌগিক পদার্থ।

(৬) পৃথিবীর শক্ত আবণের সবচেয়ে উপরের স্তরকে মাটি বলে।

মাটির বৈশিষ্ট্য (Soil properties) - মাটিতে বিদ্যমান কঠিন, তরল বা বায়বীয় পদার্থ যৌথভাবে একটি বিশেষ প্রকৃতি উৎপন্ন করে। মাটির এই প্রকৃতি প্রকাশের জন্য মাটির সকল বৈশিষ্ট্যকে নিম্নরূপ ৩টি শ্রেণীতে বর্ণনা করা হয়। যেমন-

ক) মাটির ভৌত বৈশিষ্ট্য

খ) মাটির রাসানিক বৈশিষ্ট্য

গ) মাটির জৈবিক বৈশিষ্ট্য

জমি চাষাবাদ, ফসল উৎপাদন ও মৃত্তিকা উর্বরতা ব্যবস্থাপনায় মাটির ভৌত রাসায়নিক ও জৈবিক ধর্মের প্রভাব খুব তাৎপর্যপূর্ণ।

মৃত্তিকা বৈশিষ্ট্য প্রভাবিত করে এমন কতগুলি কৃষি প্রক্রিয়া নিচে উল্লেখ করা হলো -

১। বীজের অঙ্কুরোদ্গম

২। তাপমাত্রা ও বায়ুচলাচল

৩।  জল বাহন ও ভুমি ক্ষয়

৪। উদ্ভিদ শিকড়ের প্রতিষ্ঠা

৬। উদ্ভিদ ধারণ ও পুষ্টি 

- রুনা নাথ (runa@krishijagran.com)

English Summary: Characteristics of soil

আপনার সমর্থন প্রদর্শন করুন

প্রিয় অনুগ্রাহক, আমাদের পাঠক হওয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আপনার মতো পাঠকরা আমাদের কৃষি সাংবাদিকতা অগ্রগমনের অনুপ্রেরণা। গ্রামীণ ভারতের প্রতিটি কোণে কৃষক এবং অন্যান্য সকলের কাছে মানসম্পন্ন কৃষি সংবাদ বিতরণের জন্যে আমাদের আপনার সমর্থন দরকার। আপনার প্রতিটি অবদান আমাদের ভবিষ্যতের জন্য মূল্যবান।

এখনই অবদান রাখুন (Contribute Now)

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.