ভাদ্রমাসের চাষবাস

KJ Staff
KJ Staff

শীতকালীন নানান সবজি চাষের জন্য বীজতলা তৈরি করুন এই মাসে। এক মিটার চওড়া, ১৫ সেন্টিমিটার উঁচু এবং উপযুক্ত দৈঘ্যের বীজতলা বানিয়ে নিন। বীজ শোধন করে সেখানে বুনুন। উপযুক্ত পুষ্ট ও নীরোগ চারা মূল জমিতে রোপণ করুন।

ভাদ্রমাস পেঁয়াজ, মাঝ-মরশুমি ফুলকপি, জলদি সাধারণ বাঁধাকপি, জলদি মটরশুঁটি, ফরাস-বীন এবং গাজর বোনার বা লাগানোর সঠিক সময়। চারা বা বীজ বসাতে হবে নিম্নলিখিত দূরত্বে: বড়কন্দের পেঁয়াজ ১৫x১০ সেমি, ছাঁচি পেঁয়াজ ৩০x১৫ সেমি; জলদি ও মাঝারি ফুলকপি ৬০x৪৫ সেমি, মাঝারি ও নাবি জাতের ফুলকপি ৬০x৪৫ সেমি; জলদি বাঁধাকপি ৬০x৪৫ সেমি; জলদি মটরশুঁটি ৩০x৫-১০ সেমি; লতানে ফরাস-বীন ৯০x১৫-২০ সেমি, বেঁটে ফরাস-বীন ৪৫x১৫-২০ সেমি।

শীতকালীন সবজির জমি তৈরির জন্য উপযুক্ত মাত্রায় কেঁচোসার বা গোবরসার প্রয়োগ করতে হবে। হেক্টর প্রতি জৈবসার প্রয়োগের মাত্রা নিম্নরূপ: পেঁয়াজ ৫-৬ টন কেঁচোসার এবং ফুলকপি, বাঁধাকপি, ফরাস-বীন ও গাজরে ১৫-২০ টন এবং মটরশুঁটিতে ২০-২৫ টন গোবরসার প্রয়োগ করতে হবে। প্রতি হেক্টর পরিমাণ জমির জন্য পেঁয়াজে ১২০:৫০-৬০:৬০-১০০; ফুলকপিতে ১২৫-২০০:৮০-১০০:৬০-১০০; বাঁধাকপিতে ১৫০-২০০:৮০-১০০:৮০-১০০; মটরশুঁটিতে ২০-২৫:৬০-৮০:৫০-৬০; ফরাস-বীনে ৬০-৮০:৬০-৮০:৪০ এবং গাজরে ৫০:৪০:৫০ কেজি নাইট্রোজেন, ফসফেট ও পটাশ সার প্রয়োগ করতে হবে। অণুখাদ্যের অভাবজনিত কারণে সুপারিশকৃত অণুখাদ্য প্রয়োগও জরুরী।

তথ্যসূত্র

ডঃ কল্যাণ চক্রবর্তী

বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়

- জয়তী দে

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters