আই.পি.এম. বা সুসংহত উপায়ে রোগ পোকা নিয়ন্ত্রন

Friday, 08 March 2019 11:48 AM

সুসংহত রোগ পোকা নিয়ন্ত্রন বা আই.পি.এমের (ইন্ট্রিগেটেড পেস্ট ম্যানেজমেন্ট) মাধ্যমে একটি বিশেষ পরিবেশে সকল প্রকার নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থার সমন্বয় ঘটিয়ে ক্ষতিকারক পোকা ও রোগের সংখ্যা  বা পরিমাণ ফসলের অর্থনৈতিক ক্ষতিকর পর্যায়ের নীচে রাখা হয়। এই পদ্ধতিতে অযৌক্তিক ও অপ্রয়োজনীয় ওষুধ ব্যবহার বন্ধ করে পরিবেশ দূষণ রোধ করা যায়।

সুসংহত রোগ পোকা নিয়ন্ত্রন পদ্ধতি -

  • রোগ প্রতিরোধি ও উচ্চ ফলনশীল জাত নির্বাচন।
  • উপযুক্ত জমি ও শস্য পর্যায় নির্বাচন, শেষ ফসলের অবশিষ্টাংশ পুড়িয়ে ফেলা, আল পরিষ্কার ও গ্রীষ্মকালীন লাঙল দিয়ে মাটি রোদ খাওয়ানো।
  • বীজ শোধন।
  • শিম্বগোত্রীয় ফসলে বীজের সঙ্গে রাইজোবিয়াম কালচার মেশানো।
  • জৈবসার ব্যবহার।
  • সঠিক সময়ে এবং সঠিক দূরত্বে বীজ বপন।
  • জিঙ্ক ও বোরন যুক্ত সিঙ্গল সুপার ফসফেট প্রয়োগ।
  • অম্ল জমিতে অগ্রিম চুন প্রয়োগ।
  • একক জায়গায় নির্দিষ্ট সংখক গাছ রাখা।
  • নিয়ম মত আগাছা পরিষ্কার, সেচ প্রয়োগ ও জল নিকাশি ব্যবস্থা রাখা।
  • পোকা আক্রান্ত পাতা, ফল, ডাঁটা জমিতে ফেলে না রেখে এক জায়গায় জড়ো করে সন্ধ্যার সময় পুড়িয়ে ফেলা।
  • পরজীবী বন্ধু পোকা দ্বারা শত্রু পোকা নষ্ট করা।
  • যদি ফসলের ১০ সেমি লম্বা ডাটাতে ৪০-৫০ টি জাবপোকা থাকে বা ৩০ শতাংশ গাছ আক্রান্ত হয় তখন রাসায়নিক কীটনাশকের প্রয়োগের দরকার পড়ে।রাসায়নিক কীটনাশক নির্দিষ্ট সময়ে সঠিক মাত্রায় ব্যবহার করা দরকার। আক্রমণের প্রথম ধাপে নিমজাত কীটনাশক ও জীবানু ঘটিত কীটনাশক প্রয়োগ করা যুক্তি যুক্ত।

- রুনা নাথ (runa@krishijagran.com)

Share your comments



Krishi Jagran Bengali Magazine Subscription Subscribe Online

Download Krishi Jagran Mobile App

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.