অল্প খরচে কেঁচোসার তৈরি, লাভ চাষিদের

Monday, 01 January 0001 12:00 AM

অল্প জায়গায় কেঁচো সার তৈরি করে ব্যাপক সুবিধা। কারণ, কেঁচো সার তৈরি করতে খরচ কম হয় এবং বেশি লাভ পাওয়া যায়। কোনো গর্ত না করেই এবং কোনও পাত্র ব্যবহার না করে সহজেই ভালো মানের কেঁচো সার তৈরি করা যায়। এর জন্য প্রয়োজন জল না জমা ঢালু ও ছায়াযুক্ত জমি। নির্বাচিত জায়গায় ছয় ফুট লম্বা এবং তিন ফুট চওড়া একটি জায়গাকে দুরমুশ দিয়ে পিটিয়ে মাটি শক্ত করে নিতে হবে। এবং জায়গাটি তৈরির সময় দেখতে হবে তা যেন ঈষৎ ঢালযুক্ত হয়। ওই জায়গার কিনারা বরাবর ইট সাজিয়ে ৬ ইঞ্চি উঁচু একটি পাঁচিল তৈরি করতে হবে। যদি ইট সহজলভ্য না হয়, তা হলে ৬ ফুট লম্বা ও ৩ ফুট চওড়া ৬ ইঞ্চি ব্যাসের গাছের ডাল দিয়ে প্রাচীর তৈরি করা যেতে পারে। ইট দিয়ে পাঁচিল করলে সেক্ষেত্রে সিমেন্ট বা মাটি দিয়ে গেঁথে দিতে হবে, যাতে সহজে ভেঙে না যায়।

এভাবে জায়গাটিকে একটি চৌবাচ্চার আকার দিতে হবে। ওই চৌবাচ্চায় কেঁচো সার তৈরি করে ভালো টাকা আয় করা সম্ভব। জায়গাটি একটি মোটা পলিথিন দিয়ে ঢেকে দিতে হবে। যেদিকে ঢালু রাখা হয়েছে, সেদিকে একটি ছোট ছিদ্র করে দিতে হবে, যাতে কেঁচো সার তৈরির সময় জল দিলে বাড়তি জল বেরিয়ে যেতে পারে। এবার কেঁচোর চলাফেরা, খাওয়া ও ধরে রাখার জন্য বিছানা পাততে হবে। এর জন্য ৩ ইঞ্চি উচ্চতা পর্যন্ত ভেজা খড় বা পাতা বিছিয়ে দিতে হবে। এভাবে কেঁচোসার তৈরি করে বেশি লাভে বাজারে বিক্রি করা যায়, এবং এর বাজারমূল্যও বেশ।

- Sushmita Kundu

English Summary: Make vermicompsot at low cost

আপনার সমর্থন প্রদর্শন করুন

প্রিয় অনুগ্রাহক, আমাদের পাঠক হওয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আপনার মতো পাঠকরা আমাদের কৃষি সাংবাদিকতা অগ্রগমনের অনুপ্রেরণা। গ্রামীণ ভারতের প্রতিটি কোণে কৃষক এবং অন্যান্য সকলের কাছে মানসম্পন্ন কৃষি সংবাদ বিতরণের জন্যে আমাদের আপনার সমর্থন দরকার। আপনার প্রতিটি অবদান আমাদের ভবিষ্যতের জন্য মূল্যবান।

এখনই অবদান রাখুন (Contribute Now)

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.