ধান চাষের জমিতে শ্যাওলা ও রুস্না বা ঝাঁঝি নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা

Saturday, 06 October 2018 01:58 PM

অধিক জল জমে এমন ধান জমিতে বিশেষতঃ আমন মরশুমে শ্যাওলা ও ঝাঁঝি বিরাট সমস্যা হিসেবে দেখা দেয়। ধানের পাশকাঠি ছাড়ার সময় বা থোর ও ফুল আসার সময় এই জাতীয় আগাছার প্রকোপ বেশি দেখা যায় এবং জমিতে ২-৩ ফুট জল থাকায় এদের  প্রকোপ কমাবার মতো কোনও ব্যবস্থা নেওয়া যায় না। শ্যাওলা প্রবণ এলাকায় আমন ধান চাষের কৃষিকর্ম শুরু করতে হবে চৈত্র ও বৈশাখ মাস থেকেই। ফাকাজমি গভীর চাষ দিয়ে রোদ খাওয়ানো, জ্যৈষ্ঠ মাসে বিঘাপ্রতি ৪ কেজি ধয়ঞ্ছা বীজ বুনে চারা ৪০-৪৫ দিন বয়সে চাষ দিয়ে মাটির সাথে মিশিয়ে দেওয়া, বিঘাপ্রতি ২-৩ কেজি তুঁতে ও ৪০ কেজি চুন ছড়ানো, বিঘাপ্রতি ৪০ কেজি নিম খইল প্রয়গ-ইত্যাদির মাধ্যমে ক্ষতিকর শ্যাওলা বা ঝাঁঝির প্রকোপ কমানো সম্ভব। ৬-৮ ইঞ্চি জল দাঁড়ায়, এমন জমিতে বিঘাপ্রতি ৩ কেজি হারে তুঁতে অল্প অল্প করে কাপরে বেঁধে লাঠির আগায় ঝুলিয়ে নিয়ে ধান গাছের সারির মধ্যে দিয়ে টেনে নিয়ে যাওয়ার মাধ্যমে শ্যাওলা বা ঝাঁঝি নিয়ন্ত্রণ করা যায়। তুঁতে গোলা জলের সংস্পর্শে এদের মৃত্যু হয়। কিন্তু জমিতে প্রচুর জল থাকলে এই পদ্ধতির সুফল পাওয়া যায়। তুঁতের সাথে ৫০০ মিলি লিটার ২৫% অক্সিডায়াজন জলে গুলে স্প্রে করলেও সুফল ভহাল পাওয়া যায়। তবে এক্ষেত্রে লক্ষ রাখতে হবে যাতে স্প্রে নজেল ঠিক জলের উপরে থাকে এবং নিচের দিকে মুখ করা থাকে।

তথ্যসূত্র

কৃষি বিভাগ

পশ্চিমবঙ্গ সরকার

- জয়তী দে

English Summary: Rice cultivation controlling algae

আপনার সমর্থন প্রদর্শন করুন

প্রিয় অনুগ্রাহক, আমাদের পাঠক হওয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আপনার মতো পাঠকরা আমাদের কৃষি সাংবাদিকতা অগ্রগমনের অনুপ্রেরণা। গ্রামীণ ভারতের প্রতিটি কোণে কৃষক এবং অন্যান্য সকলের কাছে মানসম্পন্ন কৃষি সংবাদ বিতরণের জন্যে আমাদের আপনার সমর্থন দরকার। আপনার প্রতিটি অবদান আমাদের ভবিষ্যতের জন্য মূল্যবান।

এখনই অবদান রাখুন (Contribute Now)

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.