কমখরচে বেলগাছ চাষ করে প্রচুর আয় করুন

KJ Staff
KJ Staff

বিগত কয়েক বৎসর কৃষিকাজ নিয়ে মানুষের ভাবনা চিন্তা কিছুটা হলেও বদল ঘটেছে। এখন কৃষকই হোক বা অন্য কোনো ব্যক্তিই হোক, তাঁরা পরম্পরাগত চাষবাসের তুলনায় ব্যবসায়ীক কৃষিকাজকেই বেশী পছন্দ করছেন, কারণ এক্ষেত্রে লাভের মাত্রা খুবই বেশী। কৃষকই হোক বা কোনো ব্যক্তিই হোক কেউ নিশ্চই নিজের লোকসান চায় না। সবাই চায় যে, সে যতটাই পরিশ্রম করে তাঁকে তার থেকেও বেশী উপার্জন করতে হবে। আজকে আমি আপনাদের এমনই এক উদ্ভিদের কথা বলবো যা আপনাকে শুধুমাত্র লাভই দেবে তাই নয় আপনাকে মালামাল করে দেবে।

বেলপত্র কী - বেলপত্র হল গরম জলবায়ুতে অভিযোজিত একটি উদ্ভিদ, যা প্রায়ই ফাঁকা স্থানে দেখতে পাওয়া যায়, ক্রান্তিয় জলবায়ু অঞ্চল এই গাছের বৃদ্ধির জন্য উপযুক্ত স্থান। হিন্দুরা এই বেলপাতা ভগবান শিবের মাথায় উৎসর্গ করে কারণ, কথিত আছে ভগবান শিব শুধুমাত্র বেলপাতাতেই তুষ্ট হন। বেল পাতার বিষয়ে তো আপনারা এই সাধারণ বিষয়গুলির ব্যাপারে সবই জানেন, কিন্তু এটা জানেন কী যে বেল পাতার একটা চমৎকার ঔষধি গুণ রয়েছে। বেল পাতা দিয়ে ববাসির, আলসার, আর না জানি কত রোগের আয়ুর্বেদিক উপায়ে উপশম সম্ভব।

কীভাবে করবেন এই বেল গাছের চাষ - বেল গাছের চাষ করা খুব সহজ। এই গাছের বীজ বা চারাগাছ আপনার নিকটবর্তী নার্সারি থেকে পাওয়া যাবে। যদি আপনার কাছে এক একর বা তারও অধিক জমি থাকে তাহলে বেল গাছের চাষ করে বিস্তর লাভ পাবেন। আপনাকে শুধু প্রথমে এটাই করতে হবে যে চারাগাছের খুব ভালো করে যত্ন নিতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে গাছে যেন জল কম না দেওয়া হয় বা বেশী সূর্যকিরণ না লাগে। সময়ে সময়ে বেল গাছের কাটিং নিতে হবে এবং খুব ভালো জৈব সার প্রদান করতে হবে।

বাজারে বেচবেন বেল - এটা অবশ্যই মনে রাখবেন যে বেলপাতা আপনি আপনার নিকটবর্তী যে কোনো বাজারে বিক্রয় করতে পারবেন। বেল গাছ হল একটি মহৌষধি গাছ যা কিনা আপনাকে পরবর্তী কালে প্রচুর লাভ দেবে। যে সমস্ত সংস্থা কেবল আয়ুর্বেদিক ঔষধ তৈরি করে তাঁদের কাছেই গাছের উৎপাদন বেচবেন। কীভাবে কোম্পানিদের সাথে যোগাযোগ রাখবেন তা জানতে হলে আপনাকে ইন্টারনেটের সাহায্য নিতে হবে। ইন্টারনেটের মাধ্যমে আপনি বেল কেনার মত ডিলারদের নাম্বার পেয়ে যাবেন।

বেলের উপকারিতা কী?

  • জ্বর অথবা শরীর খারাপের ব্যাপারে বেলের পাতার রস খুব উপকারী
  • যাঁদের হার্ট অ্যাটাকের সম্ভাবনা খুব বেশী তাঁদের ক্ষেত্রে বেলের রস সেবন খুবই লাভদায়ক
  • পেট খারাপের সময় বা পেট গরমের সময় বেল পাতা কুচিয়ে জল সহকারে খেলে খুব ভালো উপকার পাওয়া যায় এবং পেট ঠাণ্ডা থাকে।
  • ববাসির রোগে বেলের গুঁড়ো খুবই লাভদায়ক।
  • ক্ষুদ্রান্তের রোগে বেল খুব উপাকারী ভূমিকা পালন করে তাছাড়া বাচ্চাদের পায়খানার সমস্যা থাকলে বেলপাতা খুব কার্যকরী ভূমিকা পালন করে।তাই যদি জমি থাকে হাতে, বেল গাছ পুঁতুন তাতে।

- প্রদীপ পাল (pradip@krishijagran.com)

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters