ট্রাক্টর ও ডিজেল চালিত পাম্পসেট রক্ষণাবেক্ষণের পদ্ধতির সংক্ষেপ আলোচনা

Monday, 01 January 0001 12:00 AM

কৃষি যন্ত্রগুলি কেনার পর নিয়ম মেনে রক্ষণাবেক্ষণ করলে দীর্ঘদিন সমস্যাবিহীন ভাবে কৃষকেরা তা ব্যবহার করতে পারবেন ও সাশ্রয়ও হবে, কারণ যান্ত্রিক ত্রুটি সারাতে খরচ বাড়ে। তাই কৃষি যন্ত্রের যত্ন ও রক্ষণাবেক্ষণ উভয়েই জরুরি। কৃষক বন্ধুদের সুবিধার্থে ট্রাক্টরের রক্ষণাবেক্ষণ পদ্ধতি আলোচনা করা হল।

ট্রাক্টর চালু করার আগে যে বিষয়গুলি পরীক্ষা করে দেখতে হবে সেগুলি হল –

  • জ্বালানি তেল ঠিক মত আছে কিনা,
  • রেডিয়েটরে জল ঠিকমতো আছে কিনা,
  • ইঞ্জিন অয়েল ঠিকমতো আছে কিনা , 
  • চাকার হাওয়া পরীক্ষা করে নিতে হবে,
  • ট্রান্সমিশন লিভারগুলি নিরপেক্ষ (neutral) জায়গায় আছে কিনা দেখে নিয়ে ট্রাক্টর চালু করা উচিত।

ট্রাক্টরটি চালু হবার পর দেখতে হবে লুব্রিকেটিং অয়েল, প্রেসার মিটার ঠিক মতো উঠছে কিনা এবং ডাইনামো ঠিকমতো ব্যটারিকে চার্জ দিলে এবং সব কিছু ঠিক থাকলে তবেই ট্রাক্টর নিয়ে মাঠে কাজে যাওয়া উচিত। ট্রাক্টরের কাজ হয়ে গেলে ইঞ্জিন ঠান্ডা হতে দিতে হবে। এরপর  ট্রাক্টরটি পরিষ্কার করে ধুয়ে ফেলতে হবে ও কোথাও কোন লিক আছে কিনা চেক করে নিতে হবে।

এরপর প্রতি ২৫০ ঘন্টা চালানোর পর যা যা করতে হবে সেগুলি হল –

  • লুব্রিকেটিং অয়েল ও লুব্রিকেটিং অয়েল ফিল্টার পরিবর্তন,
  • ফ্যান-বেল্ট এর টেনশন চেক,
  • এয়ার ক্লিনার নেট পরিষ্কার,
  • লিফট পাম্পের প্রি ফিল্টার পরিষ্কার ইত্যাদি।

প্রতি ৫০০ ঘন্টা চালানোর পর যা যা করতে হবে সেগুলি হল –

  • সব কটি ক্ল্যাম্প, ক্লিপ, লক, হোস, কাল্টিভেটর চাকার সব কটি নাট বোল্ট চেক করে দেখা ও
  • ট্যাপাক ক্লিয়ারেন্স অ্যাডজাস্ট করে নেওয়া।

প্রতি ১০০০ ঘন্টা চালানোর পর যা যা করণীয় –

  • সেল্ফ স্টার্টার ও ডাইনামোর বিয়ারিং এর বুশগুলি চেক,
  • ফ্রন্ট হুইল গ্রিজিং,
  • ফুয়েল ট্যাঙ্ক পরিষ্কার,
  • রেডিয়েটর সার্ভিসিং।

প্রতি ২৫০০ ঘন্টা ট্রাক্টর চালানোর পর ফুয়েল পাম্পের লুব্রিকেটিং অয়ের পরিবর্তন করতে হবে। এছাড়া ট্রাক্টর পুরানো হলে কিছু সমস্যা দেখা যায় যেমন –

  • বেশী লুব্রিকেটিং অয়েল লাগে,
  • বেশি ধোয়া বের হয়,
  • সহজে স্টার্ট হতে চায় না।

এই সব সমস্যা দেখা দিলে সার্ভিসিং সেন্টারে নিয়ে যাওয়া উচিত।

ডিজেল চালিত পাম্প সেটের রক্ষণাবেক্ষণ -

  1. প্রথমত মনে রাখতে হবে পাম্পসেট একটানা ৬-৭ ঘন্টার বেশী চালানো উচিত নয়।
  2. মেশিনের প্রস্তুতকারক কোম্পানীগুলির সুপারিশকৃত পরিমাণ অনুযায়ী মোবিল অনুমোদনপ্রাপ্ত ডিলারের কাছ থেকেই কেনা তথা মেশিনে ব্যবহার করা উচিত। কমদামি মোবাইল ব্যবহার করলে মেশিনের বিয়ারিং নষ্ট হয়ে যেতে পারে।
  3. ১২০-১৫০ ঘন্টা মেশিন চালানোর পর মোবাইল পাল্টে নিতে হবে।
  4. প্রতি ৩০০ ঘন্টা অন্তর জ্বালানি তেলের ফিল্টার পরিবর্তন করা উচিত।
  5. মেশিনের এয়ার ক্লিনার জালটি প্রতি মাসে কেরোসিন দিয়ে পরিষ্কার করা উচিত।
  6. জলের পাম্পের বিয়ারিংটি প্রতি সপ্তাহে গ্রিজিং করা উচিত।
  7. দীর্ঘদিন ব্যবহারের ফলে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দিলে অভিজ্ঞ মেকানিক দিয়ে ‘ISI’ চিহ্নযুক্ত যন্ত্রাংশ কিনে মেরামত করাতে হবে।

- রুনা নাথ

Share your comments



Krishi Jagran Bengali Magazine Subscription Subscribe Online


Download Krishi Jagran Mobile App

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.