(Ekangi - Kaempheria galanga L.) একাঙ্গী সংরক্ষণ ও রোগ – পোকা নিয়ন্ত্রণ

KJ Staff
KJ Staff
Surabhi Ada
Surabhi Ada

যে কোন ফসল চাষে রোগ পোকা নিয়ন্ত্রণ একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। সঠিক পদ্ধতিতে রোগ –পোকা নিয়ন্ত্রণ না করতে পারলে কৃষিকাজে লাভের পরিবর্তে কৃষকের আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়ে থাকেন। তাই বিশেষজ্ঞের পরামর্শ মেনে কীট শত্রুর হাত থেকে শস্য সুরক্ষা আবশ্যক বটে।

ফসল সংগ্রহ এবং সংরক্ষণ:

কন্দ রোপনের মোটামুটি নয়-দশ মাস পর গাছের পাতা হলুদ হয়ে শুকিয়ে এলে সরু কোদাল দিয়ে এক পার্শ্বের মাটি সরিয়ে একাঙ্গীর কন্দ বা রাইজোম সংগ্রহ করা হয়। ফসল সংগ্রহের পর শুকনো পাতা ছাড়িয়ে জলে মাটি ধুয়ে নিতে হবে। তারপর গোলগোল করে কেটে ছায়াযুক্ত স্থানে বা ঘরের মেঝেয় বিছিয়ে চারদিন শুকাতে হবে। চতুর্থদিনে কন্দগুলি জড়ো করে সারারাত রেখে দিতে হবে। পরদিন আবার সেগুলি ছড়িয়ে দিয়ে শুকাতে হবে। তারপর ঠাণ্ডা জায়গায় একাঙ্গী মজুত রাখতে হবে। এতে একাঙ্গীর গুণাগুণ ভাল থাকে এবং বহুদিন সংরক্ষণ করা যায়।

ফলন :

বিঘায় ২-২.৫ হাজার কেজি কাঁচাকন্দ পাওয়া যায়। শুকালে এর ওজন দাঁড়ায় ৬৫০-৮০০ কেজি।

রোগ –পোকা নিয়ন্ত্রণ:

বীজ ও মাটিবাহিত ছত্রাক দ্বারা একাঙ্গী গাছ আক্রান্ত হতে পারে। এতে গাছ হলুদ হয়ে শুকিয়ে যায় এবং কন্দের বৃদ্ধি ব্যাহত হয়। ফলস্বরূপ গাছ মারা যায়। বিশেষত ভাদ্র ও আশ্বিন মাসে একাঙ্গীর ধ্বসা রোগের প্রাদুর্ভাব লক্ষ্য করা যায়। ধ্বসা রোধে প্রতিলিটার জলে হেক্সাকনাজল ৫ শতাংশ ও ক্যাপটান ৭০ শতাংশ ডব্লুপি ২ গ্রাম গুলে শ্রাবণ-আশ্বিন এই চার মাস ১৫ দিন অন্তর স্প্রে করতে হবেএছাড়া টেবুকোনাজল ৫০ শতাংশ ও ট্রাইফ্লক্সিস্ত্রবিন ২৫ শতাংশ ডব্লুজি ৫০০ মিলিগ্রাম প্রতি লিটার জলে গুলে অথবা জিনেব ৬৮ শতাংশ ও হেক্সাকনাজল ৪ শতাংশ ডব্লুপি ২ গ্রাম প্রতি লিটার জলে গুলে স্প্রে করতে হবে। ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণে গাছের গোড়ায় ও পাতায় জলবসা দাগ দেখা যায়। গাছ হলুদ হয়ে শুকিয়ে মারা যায়। আক্রান্ত জায়গা থেকে কন্দের টুকরো কেটে কাচের গ্লাসে জলে ভিজিয়ে রাখলে কিছুক্ষণ পর জল ঘোলাটে হয়ে যায়। ব্যাকটেরিয়ানাশক হিসেবে স্ট্রেপটোমাইসিন ৯১.৪ শতাংশ, টেট্রাসাইক্লিন ৪ শতাংশ এসপি ২০ লিটার জলে ২ গ্রাম মিশিয়ে স্প্রে করতে হবে। একাঙ্গী চাষে কীটনাশকের তেমন কোনও খরচ না হলেও জমি ভেজানোর দিনে ২-৩ কেজি কার্বেন্ডাজিম ৩ জি প্রয়োগ করলে ভালো। এতে কাটুই পোকা দমন করা যায়।

নিবন্ধ লেখনী - তনুশ্রী সাহা ও ডঃ সার্থক ভট্টাচার্য্য (গবেষক ও সহকারী অধ্যাপক)

(বিধান চন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, মোহনপুর, নদীয়া ও দি নেওটিয়া ইউনিভার্সিটি, সরিষা, দঃ ২৪ পরগণা)

Image source - Google

Related Link - (Ekangi Kaempheria galanga L.) কৃষকবন্ধুদের আয় বৃদ্ধির উদ্দেশ্যে এই পদ্ধতিতে একাঙ্গী চাষ করুন

Ekangi (Kaempheria galanga L.) একাঙ্গী চাষের জন্য উপযুক্ত জলবায়ু, মাটি শোধন প্রক্রিয়া ও সেচ পদ্ধতি

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters