এই ফলের মিষ্টতা কৃষকদের উপার্জন দ্বিগুণ করবে

Friday, 06 March 2020 05:45 PM

কৃষক তার জমিতে বপন করা ফসলের ভাল ফলনের জন্য অনেক ধরণের প্রচেষ্টা করেন এবং তাদের এক অন্যতম প্রধান লক্ষ্য হল অধিক মুনাফা অর্জন। এর জন্য কৃষকরা শাকসবজি এবং ফুলের চাষের পাশাপাশি আঙ্গুর চাষ করতে পারেন। সুমিষ্ট আঙুরের চাষ কৃষকদের আয় দ্বিগুণ করতে পারে। একর জমিতে যদি এর চাষ করা হয়, তবে এক বছরে এর ফলন থেকে কয়েক লক্ষ টাকা উপার্জন করা যায়। বিশেষজ্ঞদের মতে, এক একরে আঙ্গুর চাষ করলে প্রতি বছর প্রায় ৬ থেকে ৭ লক্ষ টাকা পর্যন্ত লাভ হয়। এমনকি যদি এই লাভ থেকে কৃষির ব্যয় অপসারণ করা হয়, তবুও লভ্যাংশের পরিমাণ মেলে ভালোই।

আঙ্গুর চাষের জন্য প্রয়োজন অনুকূল আবহাওয়া -

এই চাষের ক্ষেত্রে উন্নতমানের ফলনের জন্য প্রয়োজন অনুকূল আবহাওয়া। মহারাষ্ট্রের নাসিক শহরে আঙ্গুর ব্যাপক পরিমাণে চাষ হয়। কৃষকরা যদি চান তবে, তারা সবুজ আঙ্গুরের সাথে কালো রঙের আঙ্গুর চাষ করতে পারেন। এর কয়েকটি জাতের গুণগত মান এতটাই উন্নত যে, কেবল এর মাধুর্যেই মিষ্টত্ব মিশে আছে। এ কারণে, শুধু দেশে নয় বিদেশেও এর ভাল চাহিদা রয়েছে। ভারত সহ বিশ্বব্যাপী প্রায় ১০ টি আঙ্গুর উত্পাদনকারী দেশ রয়েছে। জাতীয় উদ্যান বিভাগের মতে, এটি উষ্ণ এবং শুষ্ক আবহাওয়ায় চাষ করা হয়। এর চাষের জন্য পর্যাপ্ত তাপমাত্রা ২৫ থেকে ৩২ ডিগ্রি।

বিদেশে এই জাতের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে

উদ্যান বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে, বছরে মাত্র একবার আঙ্গুর গাছে ফসল আসে। এই শস্যটি প্রস্তুত করতে প্রায় ১১০ দিন সময় লাগে। যদি এক একর জমিতে আঙ্গুরের ফলন হয়, তবে প্রায় ১২০০ থেকে ১৩০০ কেজি আঙ্গুর পাওয়া যাবে। দেশ থেকে বিদেশে বিভিন্ন আঙ্গুরের চাহিদা রয়েছে।

বাগানে বেড়া দিয়ে কৃষিকাজ করা হয়

বাগানে বেড়া লাগিয়ে আঙ্গুর চাষ করা উচিৎ, এতে এর ফলন ভাল হয়। কৃষক যদি চান, তবে তিনি বাগানে একটি লোহার কোণ বা কাঠের বাঁশের উপর জাল প্রস্তুত করতে পারেন। বাগানে বেড়া প্রস্তুত করার পরে, সারি দিয়ে আঙ্গুর গাছ লাগান। একটি সারি থেকে অপর সারির দূরত্ব প্রায় ৯ ফুট হওয়া উচিত এবং একটি গাছ থেকে অন্য গাছের দূরত্ব প্রায় ৫ ফুট রাখলে ভালো। গাছগুলি বাঁশ বা লোহার কোণের সাহায্যে জালের উপরে উঠে যায়। মনে রাখা দরকার যে, বছরে ২ বার গাছের বার নির্ধারণ করা উচিত। উদ্যান বিশেষজ্ঞদের থেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সংগ্রহ করে কৃষকরা এর চাষ করলে অধিক মুনাফা অর্জন করতে পারবেন।

স্বপ্নম সেন (swapnam@krishijagran.com)

English Summary: The sweetness of this fruit will double its earnings

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.