বাড়ির ছাদে সহজেই লাউ চাষ করে উপার্জন করুন মোটা টাকা

KJ Staff
KJ Staff

শুধু শীতকালেই নয়এখন সারাবছরই লাউ-এর পাওয়া যায় বাজারে৷ তবে বাড়ির ছাদে শাক-সবজি চাষের শখ থাকলে আপনি লাউ বাড়ির ছাদেও চাষ করে অর্থ উপার্জন করতে পারেন৷  

লাউশীতকালেই মূলত এর ফলন ভালো হলেওএখন সারা বছরই এর চাষ হয়৷ অনেকেই বাড়িতে লাউ ফলান৷ বাড়িতে ফলানো সম্ভব এমন বেশ কিছু সবজির মধ্যে লাউ অন্যতম৷ এর চাষে যেমন বেশি সমস্যা নেই তেমনই এই সবজির গুণাগুণও অনেক৷ এবং সেই সঙ্গে বিক্রি করলে লাভের মুখ দেখার সম্ভাবনাও রয়েছে৷ চলুন প্রথমে দেখে নেওয়া যাক লাউ-এর গুণাগুণ সম্পর্কে৷  

লাউ-এর গুণ- জানা যায় এই সবজির জন্ম আফ্রিকায়৷ শুধু লাউ নয়লাউ-এর পাতাএর খোসা সব কিছুই খুব পুষ্টিকর এবং তা খাওয়াও হয়৷ লাউ-এর থেকেও বেশি পুষ্টিকর এর শাক৷ লাউ কম ফ্যাট ও ক্যালোরি সম্পন্ন হওয়ায় একে অনেকেই নিজের ডায়েট চার্টে রাখেন৷ এটি যেমন ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করেতেমনই রক্তে কোলেস্টেরলকেও নিয়ন্ত্রণ করে৷  

এছাড়া লাউয়ে প্রচুর দ্রবণীয় এবং অদ্রবণীয় ফাইবার রয়েছে যা খাবার হজমে সাহায্য করে এবং হজম সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করে৷ লাউয়ের মূল উপাদান জল হওয়ায় তা খেলে শরীর ঠাণ্ডা থাকে৷ এছাড়া এতে প্রোটিন-ভিটামিন থাকায় তা ত্বকের ঔজ্জ্বল্যও বৃদ্ধি করে৷ মুখে ব্রণর সমস্যা কমায় লাউ৷ তাই শুধু অর্থকরী দিক থেকে নয়শরীরের ভালোর জন্য লাউয়ের জুড়ি মেলা ভার৷ 

এবার চলুন দেখি বাড়িতে সহজে কি করে লাউ ফলানো সম্ভব৷ এর জন্য বেশ কয়েকটি বিষয় মাথায় রাখতে হবেনিচে বিস্তারিত দেওয়া হল সেগুলি৷ বাড়ির ছাদে আপনি চাইলে টবে বা ড্রামে লাউ চাষ করতে পারেন৷  

প্রথমে মাটি তৈরি করে নিতে হবে- এক্ষেত্রে মাটি যেন নরম হয় এবং জল ধরে রাখতে পারে গাছের চাহিদা অনুযায়ী সে দিকে নজর রাখতে হবে৷ লাউ চাষের জন্য জৈব পদার্থ সমৃদ্ধ দো-আঁশএঁটেল দো-আঁশ মাটি খুবই উপযুক্ত৷ ২ ভাগ দোআঁশ মাটির সঙ্গে ২ ভাগ জৈব সার মিশিয়ে বীজতলা তৈরি করে নিতে হবে৷ এই সবজি চাষের ক্ষেত্রে ভালো সার হল টিএসপিএমপিবোরক্সসেই সঙ্গে প্রয়োজনে গোবর সারও ব্যবহার করতে পারেন৷  

এবার বীজ থেকে চারা তৈরির পদ্ধতি দেখে নেওয়া যাক৷ এই বীজ বপনের কম করে এই লাউবীজকে ১২ ঘন্টা জলে ভিজিয়ে রাখতে হবে৷ তারপর সার মেশানো মাটি পলি ব্যাগে ভরে তার বেশ কিছুটা ভিতরে বীজ রাখতে হবে৷ প্রতিদিন নিয়ম করে দু বার এতে জল দিতে হবে৷ মনে রাখবেন প্রতি পলি ব্যাগে মাত্র ২ টো করেই বীজ দিতে পারবেন৷ ১৬-১৭দিন বয়সের চারা ড্রামে লাগানোর জন্য উপযুক্ত৷ তবে মনে রাখবেন একটি চারার জন্য একটি ড্রাম বরাদ্দ করলে ভালো হয়৷ এবং সেই ড্রামগুলিকে নির্দিষ্ট দূরত্বে রাখতে হবে এবং ভালো ফলনের জন্য মাচা তৈরি করে দিলে ভালো হয়৷  

ছাদে লাউ চাষের জন্য হাফ ড্রাম যদি ব্যবহার করেন তাহলে ওই হাফ ড্রামের তলায় ৪ থেকে ৫ টি ছিদ্র করতে হবে যাতে সহজেই অতিরিক্ত জল বেরিয়ে যেতে পারে। ড্রামের তলার ছিদ্রগুলো ছোট ছোট ইটের টুকরো দিয়ে বন্ধ করে রাখতে হবে৷ চারা রোপনের পর ড্রামে চারদিকের মাটি একটু চেপে চেপে দিতে হবে এবং ধীরে ধীরে এতে জল দেওয়ার পরিমাণ বাড়াতে হবে কারণ লাউ গাছের প্রচুর জলের প্রয়োজন হয়। সঙ্গে এও দেখে নেবেন যাতে ড্রামের মধ্যে আগাছা না জন্মায়৷ জন্মালে তা অবশ্যই তা তুলে ফেলতে হবে সাবধানে যাতে লাউ গাছটির কোনও ক্ষতি না হয়  

লাউ গাছের পরিচর্যায় কিছু ঘরোয়া পদ্ধতির ব্যবহার করতে পারেন৷ যেমন এর মাচায় পাখি বসার ব্যবস্থা তা অনেকটা প্রাকৃতিকভাবে পোকা দমন করতে সাহায্য করবে৷ অনেক সময় পিঁপড়ে লাউ গাছের ফুলে আক্রমণ করতে পারেতাই পিঁপড়ে সরাতে ছাই ব্যবহার করতে পারেন৷ কিছু দিন পর পর লাউ গাছের মাটি একটু হালকা করে খুঁচিয়ে দেবেন তাতে পর্যাপ্ত অক্সিজেন ভিতরে প্রবেশের সুযোগ পায়৷ লাউ গাছের ছোট ছোট ডালপালা কেটে দিতে হবে সাবধানেকারণ এগুলি গাছের ভালো ফলনে ব্যাঘাত ঘটায়৷  

 

বর্ষা চ্যাটার্জ্জী

barshachatterjee.news@gmail.com 

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters