গ্রিন টি সম্পর্কিত কিছু তথ্য

Thursday, 25 July 2019 11:40 AM

বাজারে অনেক ধরণের স্বাস্থ্যকর পানীয় আছে, এই পানীয়গুলির স্বাস্থ্যগত গুনমান বিচার না করেই আমরা এগুলি ক্রয় করি ও পান করি। অতিরিক্ত পরিমাণে এই পানীয়গুলি পান করলে তা আমাদের শরীরের ক্ষতি করে। সাধারণ মানুষ এই ক্ষতিকারক দিকগুলি সম্পর্কে অজ্ঞাত থাকে। সাম্প্রতিককালে ‘গ্রীন টি’ একটি জনপ্রিয় পানীয় রূপে পরিচিতি লাভ করেছে। এই পানীয়টির মধ্যে প্রচুর পরিমাণে রয়েছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ফলে তা আমাদের শরীরের জন্য খুবই উপকারী। শরীরের ওজন হ্রাস, ডায়াবেটিসের সমস্যা, প্রস্টেট ক্যানসার, অ্যালার্জি, ব্রেস্ট ক্যানসার, ডিপ্রেশন ইত্যাদি সমস্যার সমাধানের ক্ষেত্রেও গ্রিন টি প্রভূত কার্যকরী।

এত উপকারীতা থাকা সত্ত্বেও অপরিমিত পরিমাণে গ্রিন টি সেবন করলে তা শরীরের উপকার করার বদলে কিন্তু ক্ষতি করবে। কারণ গ্রিন টি- মূলত অম্লজাতীয় পানীয়। যে সমস্ত মানুষদের আলসার, গ্যাস্ট্রোইনটেস্টিনাল-এর সমস্যা আছে তাদের জন্য গ্রিন টি ক্ষতিকর। তারা গ্রিন টি সেবন করলে পাকস্থলীজনিত সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন। আর সাধারণ মানুষও যদি বেশী পরিমানে গ্রিন টি পান করেন, তাহলে অ্যানিমিয়ার সমস্যা দেখা দিতে পারে। কারণ গ্রিন টি রক্ত থেকে লৌহ শোষণ করে। এই কারণে অন্তঃসত্ত্বা মহিলা এবং বাচ্চাদের গ্রিন টি খাওয়া একেবারেই অনুচিত। যারা গ্রিন টি পান করেন তাদের বেশী করে জল খাওয়া উচিৎ, না হলে দেখা দিতে পারে কিডনিতে স্টোনের মতো রোগ। অন্যান্য চা বা পানীয় গরম পান করলেও এই গ্রিন টি চিনি এবং দুধ ছাড়া ঠাণ্ডা করে পান করতে হবে।  আর সুস্থ থাকতে হলে  দিনে দু বারের বেশী কখনই গ্রিন টি পান করা উচিৎ নয়।

স্বপ্নম সেন (swapnam@krishijagran.com)

English Summary: Advantages- and- disadvantages- of- green- tea

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.