শুকনো ফলে শুল্ক বৃদ্ধি- ভারত-আমেরিকা রপ্তানী বাণিজ্যে প্রভাব

Tuesday, 26 June 2018 01:48 PM

কাঠবাদাম (Almonds) হলো সুস্বাস্থ্যের প্রতীক। এই বস্তুটি অনেকে সুন্দর উপহার হিসেবেও অপর কোনো ব্যক্তিকে প্রদান করতে পারে। যদি এই পণ্যের দাম সামান্য কম হয় তাহলে তা বাজার ও ক্রেতা উভয়ের ক্ষেত্রেই আনন্দের বিষয় হবে। এর সাথে সাথে ক্রেতাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষিত ও দৃঢ় হবে। কিন্তু কাঠবাদামের শুল্ক বাড়ার ফলে এর দামও বাজারে বাড়তে শুরু করেছে। চেম্বার অফ কমার্স এজেন্সির কাঠবাদামের অত্যাধিক মূল্যবৃদ্ধিতে ও শুল্কবৃদ্ধির কারণে চোখ কপালে ওঠার জোগার।

আমেরিকা ওয়ালনাট ও আমন্ড আমদানির সবথেকে বড় উৎস। ক্যালিফোর্নিয়ার আমন্ড ভারতীয় বাজারে প্রবেশ মাত্রই তার শুল্কচাপের কারণে দাম হয়ে যাচ্ছে আকাশছোঁয়া। একটি সহজ পাটীগাণিতিক ধারণা থেকে এটা সহজেই বোঝা যায় আমেরিকা ভারতীয় কাঠবাদাম আমদানির পরিমাণকে ২৫% হ্রাস করতে চাইছে।

অনেক কারবারিদের মতে আমেরিকা বাদে অন্য কোনো দেশ নেই যারা আমন্ড বা ওয়ালনাট ভারতীয় বাজারে রপ্তানি করতে পারে...এই কারণে বর্তমানে শুকনো ফলের বাজারএ আগুন লেগেছে। ভারতীয় অর্থমন্ত্রক থেকে জানানো হয়েছে যে ওয়ালনাটের শুল্ক ৩০% থেকে বেড়ে ১২০% হয়েছে এবং আমন্ডের ক্ষেত্রে বেড়েছে ২০% অর্থাৎ এর অর্থ হলো  শুধু মাত্র আমেরিকার থেকে আমদানিকৃত দ্রব্যের ক্ষেত্রেই নয়, সমস্ত আমদানির জন্যি শুল্ক বৃদ্ধি ঘটেছে।

ভারতীয় চেম্বার অফ কমার্স এর থেকে জানা যাচ্ছে যে, ছোটো ছোটো শহরে, শহরতলি, ও গ্রামে কাঠবাদাম ও আমন্ডের চাহিদা ধীরে ধীরে কমতে শুরু করেছে, এবং আশঙ্কা করা হচ্ছে যে এইরকম মূল্যবৃদ্ধির হার যদি চলতে থাকে তাহলে বেশ চিন্তার বিষয়, এবং তা আমদানি, ও আভ্যন্তরিণ বাণিজ্যে বিশেষ প্রভাব ফেলবে।

- প্রদীপ পাল

English Summary: Almonds

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.