ধেয়ে আসছে ভয়ঙ্কর ঘূর্ণিঝড় আমফান (Amphan), রাজ্যে জারি সতর্কতা

KJ Staff
KJ Staff

একদিকে করোনা মোকাবিলায় তৎপর রাজ্য, আর তারই মধ্যে এবার হাজির ভয়ঙ্কর ঘূর্ণিঝড় আমফান (Amphan). এই ঝড়ের কেন্দ্রস্থল ওড়িশার পারাদ্বীপ থেকে ৫৭০ কিলোমিটার দক্ষিণে, পশ্চিমবঙ্গের দিঘা থেকে ৭২০ কিলোমিটার দূরে৷

জানা যাচ্ছে, মঙ্গলবার বিকেল থেকেই পশ্চিমবঙ্গ (West Bengal) উপকূলবর্তী এলাকায় ঘন্টায় ৪৫-৫৫ কিমি বেগে ঝোড়ো হাওয়া (Cyclone Amphan) বইতে শুরু করবে। ক্রমশ এই গতিবেগ বাড়তে থাকবে এবং বুধবার কলকাতা, হাওড়া, হুগলি সহ বিভিন্ন জেলাগুলিতে ভারী থেকে হালকা বৃষ্টিপাত হতে পারে৷

আমফানের সর্বোচ্চ বেগ হতে পারে ঘণ্টায় ১৯৫ কিমি, সুতরাং এর প্রভাব কতটা ভয়ঙ্কর হতে পারে তা মাথায় রেখে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে৷ জাতীয় দুর্যোগ মোকাবিলা বাহিনী বা ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স ফোর্স (NDRF) ১৭ টি দল মোতায়েন করেছে বাংলা এবং ওড়িশায়৷ প্রতিটি দলে রয়েছে ৪৫ জন৷

পশ্চিমবঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নবান্নে বৈঠক করে এ প্রসঙ্গে আলোচনা করেন, এবং তিনি জানান, দিনরাত এক করে কাজ করা হবে৷ প্রত্যেককে সাবধানে থাকার কথা বলেন এবং এর পাশাপাশি প্রশাসনের পক্ষ থেকেও বারংবার সতর্কতা জারি করা হয়েছে৷ সমুদ্রের কাছে যেতে, বা মৎস্যজীবীদের এই কয়েকদিন মাছ ধরতে যাওয়ার ক্ষেত্রে নিষেধ করা হয়েছে৷ রাজ্যকে বিপর্যয় মোকাবিলায় সবধরণের সাহায্য করা হবে বলে আশ্বাস দিয়েছে কেন্দ্র৷

ইতিমধ্যেই, উপকূলবর্তী এলাকা থেকে কয়েক হাজার মানুষকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে নিরাপদ স্থানে৷ এর আগে গত বছর নভেম্বর মাসে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের (Cyclone Bulbul) তাণ্ডব দেখেছিল রাজ্য। সে সময়ও যথেষ্ট সতর্কতার সঙ্গেই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছিল৷ তবে তার কিছু প্রভাব পড়ে রাজ্যে৷ গত বছরই ফণী (Cyclone Fani) নামে আরও একটি ঘূর্ণিঝড়ের আগমন ঘটেছিল, তবে তার প্রভাব বেশি পড়েছিল ওডিশায়৷ আর চলতি বছরে আমফানের প্রভাবে প্রবল ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করা হচ্ছে৷ এবার আমফান মোকাবিলার ক্ষেত্রেও কড়া ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে৷ 

প্রসঙ্গত, ২০০৪ সালে ঝড়ের নামের যে তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছিল, তাতে সর্বশেষ এই ঝড়ের নামকরণ করেছিল থাইল্যান্ড৷ ২০০৪ সাল থেকেই ঝড়ের এই নামকরণ তৈরিতে ভারতও যুক্ত হয়৷ এছাড়া যুক্ত হয় বাংলাদেশ, পাকিস্তান, থাইল্যান্ড, মায়ানমার সহ আরও কয়েকটি দেশও৷

বর্ষা চ্যাটার্জি

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters