কৃষি বিপণন ও কৃষি রক্ষায় মহা-সমবায়

Tuesday, 20 November 2018 11:45 AM
ভারতে অনুষ্ঠিত NEDAC এর সভা

ভারতে অনুষ্ঠিত NEDAC এর সভা

ভারতের কৃষিজ উৎপাদনের এশিয়া ও ওশিয়ানিয়াতে বিপণন বাড়ানোর জন্য ভারত দুইদিনব্যাপী একটি সাধারণ সভা Network for Development of Agricultural Co-operatives in Asia and Pacific Conference(NEDAC) আয়োজন করেছে যাতে আঞ্চলিক বাণিজ্যের পরিকল্পনার নকসা তৈরি করা যায়। NEDAC এর জন্য গত বৃহস্পতিবার একটি বাণিজ্যিক সংবিধান তৈরি করেছে।

কৃষি, কৃষকোন্নয়ন ও পঞ্চায়েতিরাজ এর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী শ্রী পুরুষোত্তম কে. রুপালা অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন করেন এবং বলেন, “কৃষকদের দুর্দশা চিহ্নিত করে সেই দুরাবস্থাকে কাটানোর জন্য কৃষকদের আয় বৃদ্ধির প্রয়োজনীয়তা রয়েছে, যার জন্য প্রধানমন্ত্রী ২০২২ সালের মধ্যে কৃষকদের আয় দ্বিগুণ করবার জন্য ও কৃষকদের সম্মানজনক স্তরে উন্নীত করবার জন্য একটি ফলপ্রসূ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন।“ তিনি আরও বলেন, বিভিন্ন সমবায়গুলি অনেক বেশি সক্ষমতা অর্জন করেছে এবং তাদের সাফল্য গাথার প্রমাণও রেখেছে। তারা সম্মিলিতভাবে কাজ করে বাজার থেকে ভালো আমদানির প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। ভারত আজ যথেষ্ট দৃঢ়প্রতিজ্ঞ কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধি বা কৃষিজ সম্পদের সুষ্ঠ ব্যবহারের ক্ষেত্রে যা কিনা কৃষকদের বাণিজ্যিক সাফল্য লাভে অত্যন্ত সাহায্য করবে।

ভারতীয় সমবায়গুলির সাথে বিপণন যোগাযোগ স্থাপনের জন্য ASIAN দেশগুলির সঙ্গে সম্ভাব্য সকল প্রকার সমঝোতায় আসা হয়েছে, যাতে সমবায়গুলি তাদের উৎপাদিত দ্রব্যগুলি এশিয়া-প্যাসিফিকের বাজারগুলিতে বিপণনে সক্ষম হয়। জাতীয় সমবায় উন্নয়ন পর্ষদ এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর সন্দিপকুমার বলেছেন ভারত এই সভার উদ্যোগ নিয়েছে এই উদ্দেশ্যে যাতে দুই বা তার বেশি দেশগুলির বিভিন্ন সমবায়গুলি নিজেদের মধ্যে বাণিজ্যিক সম্পর্ককে বৃদ্ধি করতে পারে।

তিনি আরও বলেছেন, “এর সাহায্যে আমরা সমস্ত স্তরের মনুষ্য সম্পদকে সঠিকভাবে উত্তেজিত করে কাজে লাগাতে পারবো এবং উপযুক্ত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তাদের উৎপাদন ক্ষমতা বাড়াতে পারবো। এছাড়া সঠিকভাবে মনুষ্য সম্পদকে যদি আমরা ব্যবহার করতে পারি তাহলে আমাদের কাছে যে পরিমাণ কায়িক বা আর্থিক শক্তি আছে, তাই দিয়েই আমরা আমাদের দেশের উন্নয়নের সূচক বৃদ্ধি করতে পারি”

এই সভায় উপস্থিত ৮ টি দেশের ২২ টি সমবায় সম্মিলিত সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, তারা সমবায় থেকে সমবায়ের সহযোগিতায় ক্ষমতার উন্নয়ন ঘটিয়ে প্রাকৃতিক পরিবেশের পরিবর্তন থেকে কৃষিকে বাছিয়ে উপযুক্ত পরিমাণ উৎপাদন তোলার জন্য শক্ত চ্যালেঞ্জকে কীভাবে মুখোমুখি করা যায় তার দিকে গভীর লক্ষ্য দেবেন। তাদের মহাসমবায় হবে একটি পারস্পরিক সহায়তার দ্বারা পরিচালিত মহাসমবায়।

NEDAC ১৯৯১ সালে ইউনাইটেড নেশনস দ্বারা স্থাপিত হয়। এছাড়াও খাদ্য ও কৃষি সংগঠন (FAO), আন্তর্জাতিক সমবায় জোট (ICA) ও আন্তর্জাতিক শ্রমিক সংগঠন (ILO) গুলিও NEDAC প্রতিষ্ঠায় জাতিপুঞ্জকে অনেকভাবে সহায়তা করেছিলো।

ফিলিপিন্সের সমবায় উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ও NEDAC এর সহ-সভাপতি মিঃ ওলাডো আর. রাভানেরা মনে করছেন যে এশিয়া প্যাসিফিকের সমবায়গুলিকে একত্রে কাজ করা উচিত, তবে তারা আবহাওয়ার পরিবর্তনজনিত বাধাকে মিলিত ভাবে সম্মুখীন করতে পারবে যা কিনা এই মূহূর্তে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

- প্রদীপ পাল

Share your comments



Krishi Jagran Bengali Magazine Subscription Subscribe Online


Download Krishi Jagran Mobile App

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.