ড্রোন হামলায় ক্ষতিগ্রস্থ সৌদি আরবের প্রধান তেল শোধনাগার

Wednesday, 18 September 2019 09:20 AM

শনিবার ভোরে সৌদি আরবের বিশ্বের বৃহত্তম তৈল পরিশোধনাগার ‘আরামকো’-র উপর হুথি জঙ্গিরা ড্রোনস আক্রমণ করে। এই ঘটনার ফলস্বরূপ বিশ্ববাজারে তেলের মূল্য নিয়ে আশঙ্কার মেঘ ঘনীভূত হতে শুরু করেছে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বিশ্ব বাজারে ১৯৯১ সালের পর এই প্রথম আরও একবার তেলের দাম বাড়তে চলেছে এমন তীব্র গতিতে।

সৌদিতে তৈলভাণ্ডারে ড্রোন হামলার পর অপরিশোধিত তেলের মূল্য বৃদ্ধি হয়েছে প্রায় ১৯ শতাংশ। যার ফলে, তেলের প্রতিটি ব্যারলের মূল্য দাঁড়িয়েছে ৭২ মার্কিন ডলারে। যা নিঃসন্দেহে বিশ্ববাজারে একটি বড় ক্ষতির দিককে ইঙ্গিত করে। সৌদির এই বিস্ফোরণে তৈল পরিবহণেও টান পড়েছে, যা সমগ্র বিশ্বের খারাপ পরিস্থিতির দিকটিকেই নির্দেশ করছে।

গত মাসে আক্রান্ত হয়েছিল সৌদির একটি প্রাকৃতিক গ্যাস উৎপাদন ক্ষেত্র। প্রতিবেশী দেশ ইয়েমেনের সঙ্গে এমিরাতি সীমান্তের কাছে সৌদি আরবের একটি প্রাকৃতিক গ্যাস উৎপাদন ক্ষেত্রে ড্রোন হানা চালিয়েছিল হুথিউপজাতি গোষ্ঠীর বিদ্রোহীরা। তাতে অবশ্য ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ ছিল সামান্যই। ইয়েমেনে হুথিদের দখল করা জায়গাগুলি মুক্ত করতে কয়েক মাস ধরেই বিমান হানা চালাচ্ছে রিয়াধ। তার জেরেই গত কয়েক মাস ধরে ইয়েমেনের হুথি জঙ্গিদের টার্গেট হয়ে উঠেছে সৌদির তেল ও প্রাকৃতিক গ্যাসের ক্ষেত্রগুলি। সীমান্তের এ-পার থেকে হুথি জঙ্গিরা লাগাতার ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র ছুঁড়ে যাচ্ছে সৌদির তেল ও প্রাকৃতিক গ্যাসের ক্ষেত্রগুলিকে লক্ষ্য করে।

স্বপ্নম সেন (swapnam@krishijagran.com)

English Summary: Fire- at- Aramco - in -Saudi -Arab

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.