বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকরা এখনও ক্ষতিপূরণ পাননি ? এখানে যোগাযোগ করুন

Tuesday, 25 February 2020 03:17 PM

তথ্য অনুযায়ী, উত্তর প্রদেশের ইটাওয়ায় কৃষকরা তাদের ফসলের ক্ষতিপূরণ পেতে শুরু করেছেন। এখানকার কৃষকরা গত বছর বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছিলেন। সেপ্টেম্বর থেকে অক্টোবরের মধ্যে বন্যার কারণে কৃষকদের ফসল নষ্ট হয়ে যায়। এখানে সদর ও চকনগর তহসিলের অনেক গ্রাম যমুনা ও চম্বল নদীর বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছিল। এমন পরিস্থিতিতে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের ফসলের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়।

প্রতিবেদন অনুসারে, দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ ২০ জন কৃষকের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ক্ষতিপূরণের অর্থ প্রেরণ করা হয়েছে। কিন্তু বাকি কৃষকরা এখনও অর্থ পান নি। তহসিলটিতে একটি সমীক্ষা করা হয়। এই সমীক্ষার ভিত্তিতে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার জন্য সরকারের কাছে ১ কোটি ২৬ লাখ ৬১ হাজার টাকা দাবি করা হয়। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত জেলাকে ক্ষতিপূরণ হিসাবে সরকারের পক্ষ থেকে ১ কোটি ৪০ লাখ ৭৩ হাজার টাকা সরবরাহ করা হয়েছিল। বর্তমান তথ্য অনুযায়ী, বাকি অর্থ সরকারকে ফেরত দেওয়া হবে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অফিসে প্রেরিত কৃষকদের তথ্য অনুসারে, ১২ হাজারেরও বেশি কৃষকের ফসল নষ্ট হয়ে গেছে।

ক্ষতিপূরণের পরিমাণ এবং অ্যাকাউন্ট নম্বর সহ কৃষকদের বিস্তারিত বিবরণ দুর্যোগ অফিসে লিপিবদ্ধ করা হচ্ছে। এলাকার এডিএম জানিয়েছেন, যে কৃষকদের ক্ষতিপূরণ তাদের অ্যাকাউন্টে প্রেরণের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে এবং শিগগিরই এই অর্থ কৃষকদের কাছে পৌঁছে যাবে।

২০ শে মার্চ পর্যন্ত কৃষকরা ক্ষতিপূরণ না পেলে অভিযোগ দায়ের করতে পারেন। এ জন্য কৃষকরা তাদের তহসিলদারের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। এছাড়াও, কৃষকরা এসডিএমের সাথে দেখা করতে পারেন। বলা হচ্ছে যে ৩১ শে মার্চ অবধি ক্ষতিপূরণের পরিমাণ কৃষকদের কাছে সরবরাহ করা হবে, তারপরে, বাকি অর্থ ১ ই এপ্রিল সরকারকে ফিরিয়ে দেওয়া হবে।

স্বপ্নম সেন (Swapnam@krishijagran.com)

English Summary: Flood -affected -farmers- have- not -received -compensation -yet?- contact -here

আপনার সমর্থন প্রদর্শন করুন

প্রিয় অনুগ্রাহক, আমাদের পাঠক হওয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আপনার মতো পাঠকরা আমাদের কৃষি সাংবাদিকতা অগ্রগমনের অনুপ্রেরণা। গ্রামীণ ভারতের প্রতিটি কোণে কৃষক এবং অন্যান্য সকলের কাছে মানসম্পন্ন কৃষি সংবাদ বিতরণের জন্যে আমাদের আপনার সমর্থন দরকার। আপনার প্রতিটি অবদান আমাদের ভবিষ্যতের জন্য মূল্যবান।

এখনই অবদান রাখুন (Contribute Now)

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.