সিভিল অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং এ HMCE এর অনবদ্য উদ্যোগ

KJ Staff
KJ Staff

আমাদের চারপাশে পরিবেশ তৈরি করা হয়েছে জল বায়ু, মাটি দিয়ে, দীর্ঘদিন যাবত জনসংখ্যা বৃদ্ধির জন্য আমাদের পরিবেশের ভারসাম্য আমরাই নষ্ট করে চলেছি। এর প্রত্যক্ষ প্রভাব পরছে চাষাবাদের ক্ষেত্রে, বর্তমান প্রগতির ঘোড়ায় সওয়ার হয়ে উন্নয়নের রঙিন চশমা পরেছে মানুষ। কিন্তু লাগামছাড়া উন্নয়ন আধার নামিয়ে আঞ্ছে,তা জেনেও বুঝতে চাইছে না মানুষ তাই ভূমণ্ডলীয় উষ্ণতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাকেই আমরা বলছি বিশ্বউস্নায়ন বা গ্লোবাল ওয়ার্মিং। চারিদিকে যে বিশ্বউস্নায়নের চাপে জেরবার মানুষ তা আসলে কি?  গ্রিন হাউস গ্যাসের প্রভাব ওজন স্তরের ক্ষয়, অরণ্যচ্ছেদ প্রভৃতির কারনে বায়ুমণ্ডলের উষ্ণতা ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে। গ্রিন হাউস গ্যাস গুলি হল কার্বন ডাই অক্সাইড, মিথেন ও নাইট্রাস অক্সাইডের সমন্বয়ে গঠিত একটি গ্যাস। তবে এই মিথেন গ্যাসের উৎপত্তির কারণেও রয়েছে ধানক্ষেত। পশ্চিমবঙ্গের একটি আবর্জনা বর্জিত করার জায়গা হল ধাপা। এখানে বর্জ্য পদার্থ দীর্ঘদিন ধরে জমে থাকার কারনে ভূগর্ভস্থ জল ব্যবহারের অযোগ্য হয়ে উঠছে সাথে মাটির উর্বর ক্ষমতা ও বায়ুমণ্ডলীয় পরিবেশ নষ্ট করছে। এই সমস্ত কারনে জল মাটি পরিশোধনের ব্যবহার করা খুবই আবশ্যক। ফলস্বরূপ ২১ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করার জন্য সিভিল অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং এর দ্বারা সৃজনশীল সমস্যা সমাধান হওয়া আবশ্যক, এই উদ্দেশ্যকে সামনে রেখেই হেমনলিনি মেমোরিয়াল কলেজ অব ইঞ্জিনিয়ারিং এর অনবদ্য উদ্যোগ। যেখানে সিভিল অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে স্নাতক স্তরে পড়াশোনার ব্যবস্থা করা হয়েছে, এর পাশাপাশি মেধাবী ও দরিদ্র ছাত্রছাত্রীদের বৃত্তির ব্যবস্থা আছে। সিভিল অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে জয়েন্ট এন্ট্রান্স  মাধ্যমে এবং লাটেরাল এন্ট্রি এবং বি. এস.সি  মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীরা ভর্তি হতে পারে।

- জয়তী দে

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters