গত ৪ বছরে ভারতের দুগ্ধ শিল্পে ৬.৪% বৃদ্ধি পরিলক্ষিত হয়েছে!

KJ Staff
KJ Staff

গত ৪ বছরে ভারতের দুগ্ধ শিল্পে ৬.৪% বৃদ্ধি পরিলক্ষিত হয়েছে যেখানে বিশ্বে এই বৃদ্ধির মান ১.৭%। ভারতে  ২০১৮-১৯ অর্থবর্ষে  দুধ উৎপাদন  ১৮ কোটি টন ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে। নেদারল্যান্ডসভিত্তিক রাবো ব্যাংকের সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনে এ পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। এরই মধ্যে চলতি অর্থবছরে দেশ থেকে আন্তর্জাতিক বাজারে  দুধ রফতানি বেড়েছে। মূলত বাড়তি রফতানি চাহিদার জেরে ভারতীয় খামারিরা বাড়তি দুধ উৎপাদনে আগ্রহী হয়েছেন। ভারত সরকার দুগ্ধপণ্য রফতানিতে ভর্তুকির পরিমাণ ২০ শতাংশ বাড়িয়েছে। রফতানির চাহিদা বেশি থাকায় মহারাষ্ট্র, গুজরাট, উত্তর প্রদেশ সহ বিভিন্ন রাজ্যে তরল দুধ উৎপাদন কয়েক গুণ বেড়েছে।

 

রাষ্ট্রীয় পশুপালন ও দুগ্ধ মন্ত্রী শ্রী গিরীরাজ সিং বলেছেন যে আমাদের দেশ দুগ্ধ উৎপাদনে প্রথম হলেও বছরে প্রতিটি গরুর দুগ্ধ উৎপাদন হার অনেক কম - ১,৮০৬ কেজি যা অন্যান্য দেশে ২,৩১০ কেজি প্রতি গরু । এই হার বাড়াতে আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহারে জোর দিতে হবে। তিনি আরো বলেন যে আমাদের দেশের  প্রায় ৮০ মিলিয়ন ভূমিহীন গ্রামীন ক্ষুদ্র ও মাঝারি কৃষক পরিবার দুগ্ধ উৎপাদন করে জীবিকা নির্বাহ করে।

এদিকে ভারত থেকে আন্তর্জাতিক বাজারে দুধের রফতানিতেও চাঙ্গাভাব বজায় রয়েছে। চলতি ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসে (এপ্রিল-সেপ্টেম্বর) ভারত থেকে মোট ৯ হাজার ৬০০ টন তরল দুধ রফতানি হয়েছে। আগের অর্থবছরের একই সময়ে ভারত থেকে মোট ৪ হাজার ৭৫০ টন দুধ রফতানি হয়েছিল। সেই হিসাবে এক বছরে ভারতের তরল দুধ রফতানি বেড়েছে ৪ হাজার ৮৫০ টন। বাড়তি রফতানি চাহিদা ও কেন্দ্রীয় সরকারের গো-রক্ষা কার্যক্রম দেশে তরল দুধের উৎপাদন বৃদ্ধির পেছনে  ভূমিকা রেখেছে বলে মনে করছেন খাতসংশ্লিষ্টরা।

রুনা নাথ(runa@krishijagran.com)

 

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters