কেরালার বন্যায় আটকে শ্রমিকরা, পরিস্থিতি ফেরাতে তৎপর প্রধানমন্ত্রী

KJ Staff
KJ Staff

কেরালায় প্রবল বন্যায় আটকে পড়া রাজ্যের শ্রমিকদের নিয়ে উদ্বিগ্ন নবান্ন। তাদের ফিরিয়ে আনতে কেরালা প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে রাজ্য। রাজ্যের মুখ্যসচিব ইতিমধ্যেই কেরালার প্রশাসনিক আধিকারিকদের ফোন করেছেন বলে নবান্ন সূত্রে খবর। মালদা, মুর্শিদাবাদ, নদিয়া থেকে কয়েক হাজার মানুষ জীবিকার তাগিদে কেরালায় যান। প্রবল বন্যায় অনেকেই সেখানে আটকে পড়েছেন।প্রবল বন্যার দুর্বিসহ পরিস্থিতি থেকে তাঁদের নিরাপদে ফিরিয়ে আনার জন্য আটকে পড়া শ্রমিকদের পরিবারের তরফে রাজ্য সরকারের কাছে আর্জি জানানো হয়েছিল। তারপরই তৎপর হয়েছে নবান্ন। প্রশাসনিক সূত্রে খবর, প্রয়োজনে রাজ্যের বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীকেও কেরালায় পাঠানো হতে পারে। সেজন্য প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। তৈরি থাকতে বলা হয়েছে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীকে।  

বৃষ্টি ক্রমাগত বেড়েই যাওয়ায়  ক্রমশই অবনতি হচ্ছে কেরালার বন্যা পরিস্থিতির। ক্রমাগত বৃষ্টি ও ধসের জেরে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩২৪।আহতের সংখ্যা আশঙ্কাজনক, বন্যা দুর্গতদের দিন গুজরান মুশকিল হয়ে পড়েছে, খাদ্য ও ওষুধের অভাব,জামাকাপড় প্রভৃতির জন্য ত্রাণের আর্জি জানানো হয়েছে। সূত্রের খবর অনুযায়ী ১১৫৫ টি রিলিফ ক্যাম্প তৈরি করা হয়েছে যাতে ২৪০০ বন্যা দুর্গতদের উদ্ধার করে স্থান দেওয়া হয়েছে। পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে কেরালায় গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।  

আজ সকালে কেরালার বন্যাদুর্গতদের উদ্দেশ্যে একটি টুইট করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি লেখেন, "শুধু শব্দগুলোই যথেষ্ট নয় জানি। তাও, এই মুহূর্তে আমার কেরালাবাসী সকল ভাইবোনকে বলতে চাই, তোমাদের জন্য আমরাও ভাবছি। আমাদের প্রার্থনা তোমাদের প্রত্যেকের সঙ্গে আছে। যেসব পরিবার তাদের প্রিয়জনকে হারিয়েছে, তাদের সমবেদনা জানাই। কেরালায় বন্যার সঙ্গে যারা লড়াই করছে, তারা যেন এভাবেই শক্ত থাকতে পারে।"

- Sushmita Kundu

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters