শূণ্য়ের ছায়া নৃত্য় মঞ্চে,জীবনযুদ্ধে হার মানলেন পণ্ডিত বিরজু মহারাজ

Saikat Majumder
Saikat Majumder
প্রয়াত নৃত্য়শিল্পী বিরজু মহারাজ

ভারতীয় শাস্ত্রীয় নৃত্য জগতে ইন্দ্রপতন! প্রয়াত হলেন নৃত্য়শিল্পী বিরজু মহারাজ (Birju Maharaj)। রবিশঙ্কর তাঁর নাচ দেখে বলেছিলেন, ‘তুমি তো লয়ের পুতুল’! কত্থকের সেই ‘মহারাজা’ আর নেই। দিল্লিতে  নিজের বাড়িতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন কিংবদন্তী পণ্ডিত বিরজু মহারাজ।  রবিবার মধ্যবর্তী রাতে  শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি । মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর।   বিরজু মহারাজের মৃত্যুর খবরে সঙ্গীতপ্রেমীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে। 

গতকাল রাতে নাতির সঙ্গে খেলতে গিয়ে অজ্ঞান হয়ে পড়েন

সূত্রের খবর, রবিবার রাতে বিরজু মহারাজ তাঁর নাতির সঙ্গে খেলছিলেন। সেই সময় আচমকাই তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন তিনি।  দ্রুত তাকে সাকেত হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।  তার পরিবার জানিয়েছে, দীর্ঘদিন ধরেই কিডনির সমস্যায় ভুগছিলেন এই কিংবদন্তি শিল্পী। তাঁর নিয়মিত ডায়লিসিসও চলত। গায়ক মালিনী অবস্থি এবং আদনান সামি সহ শিল্প, চলচ্চিত্র এবং সঙ্গীত জগতের বিভিন্ন ব্যক্তিত্ব তাকে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন।

বিরজু মহারাজ একজন কথক নৃত্যশিল্পীর পাশাপাশি একজন শাস্ত্রীয় গায়ক

কত্থকের ‘মহারাজা’ পরিবারে জন্ম। সাত পুরুষ ধরে তাঁদের পরিবারে কত্থক নাচের চর্চা। তিনি লখনউয়ের কালকা বিনন্দাদিন ঘরানার সদস্য ছিলেন। বিরজু মহারাজের পুরো নাম ছিল ব্রিজ মোহন নাথ মিশ্র। তিনি ১৯৩৭  সালের ৪ ফেব্রুয়ারি লখনউয়ের বিখ্যাত কত্থক নৃত্যশিল্পী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। একাধারে নাচ, তবলা এবং কণ্ঠসঙ্গীতে সমান পারদর্শী ছিলেন বিরজু মহারাজ । ছবিও আঁকতেন।

তাঁর নাতনি জানিয়েছেন, বিরজু মহারাজ এক মাস ধরে চিকিৎসাধীন ছিলেন । গতকাল রাত ১২ থেকে সাড়ে ১২.৩০ টার মধ্যে হঠাৎ অজ্ঞান হয়ে পড়েন তিনি। আমরা সঙ্গে সঙ্গে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাই, কিন্তু তাকে বাঁচানো যায়নি। রাগিনী মহারাজ জানিয়েছেন,তাঁর সদা হাস্যোজ্জ্বল মুখ সবসময় আমার চোখের সামনে থাকবে।  

আরও পড়ুনঃ কৃষিতে নেই সামগ্রিক নিতি

সত্যজিৎ রায়ের (Satyajit Ray) ‘শতরঞ্জ কে খিলাড়ি’ সিনেমার দু’টি গানের কোরিওগ্রাফি করেছিলেন বিরজু মহারাজ। পরে ২০০২ সালে সঞ্জয় লীলা বনশালি পরিচালিত ‘দেবদাস’ ছবিতে ‘কাহে ছেড়ে মোহে’ গানে মাধুরী দীক্ষিতকে নাচ শিখিয়েছিলেন। পেয়েছিলেন সংগীত নাটক অকাদেমি পুরস্কার। পদ্ম বিভূষণ সম্মানে ভূষিত হয়েছিলেন। প্রিয় ‘পণ্ডিতজি’কে হারিয়ে শোকাহত তাঁর অনুরাগীরা। অনেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় শ্রদ্ধা জানিয়েছেন কত্থক কিংবদন্তিকে। 

আরও পড়ুনঃ করোনায় আক্রান্ত শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়,নিভৃতবাসে রয়েছেন সাহিত্যিক

আমরা শিল্পক্ষেত্রের প্রতিষ্ঠানকে হারিয়েছি:আদনান সামি

আদনান সামি সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন – মহান কথক নৃত্যশিল্পী পণ্ডিত বিরজু মহারাজ জির মৃত্যুর খবরে গভীরভাবে দুঃখিত। শিল্পক্ষেত্রে আজ আমরা হারিয়েছি এক অনন্য প্রতিষ্ঠানকে। তিনি তার প্রতিভা দিয়ে প্রজন্মকে প্রভাবিত করেছেন।

Published On: 17 January 2022, 10:22 AM English Summary: Pandit Birju Maharaj admits defeat in the battle of life

Like this article?

Hey! I am Saikat Majumder. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters