প্লাস্টিক নিয়ে স্টেশনে প্রবেশ হল নিষিদ্ধ

Friday, 13 September 2019 05:42 PM

প্লাস্টিক নিয়ে স্টেশনে প্রবেশ করলেই দিতে হবে মোটা অঙ্কের জরিমানা, ২ অক্টোবর থেকে কার্যকরী হতে চলেছে নতুন এই নিয়ম।

পশ্চিমবঙ্গ সরকার কোলকাতায় ২০ মাইক্রনের চেয়ে কম প্লাস্টিকের ব্যাগ ব্যবহার নিষিদ্ধ করেছে। কিন্তু সচেতনতার অভাব রয়েছে নগরবাসীর মধ্যে। বাজার বিভাগের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, প্লাস্টিক ব্যাগ বন্ধের জন্য গত বছরও কলকাতা পুরসভার বাজার বিভাগের পক্ষ থেকে বাজারে-বাজারে সচেতনতা সভা, ক্রেতা-বিক্রেতাদের চটের ব্যাগ বিতরণ করা হয়েছিল। তাতেও প্লাস্টিক ব্যাগের ব্যবহার –এ কোনরকম ঘাটতি দেখা যায়নি।

 ১৯৯৮ সালে প্রথম প্লাস্টিক নিষিদ্ধ হয় সিকিমে। এরপর ধীরে ধীরে হিমাচলপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু এবং অন্যান্য অনেক জায়গায় বন্ধ করা হয় প্লাস্টিকের ব্যবহার। পিছিয়ে রয়েছে শুধু পশ্চিমবঙ্গ।

পরিবেশে প্রভাব - শুধু নিকাশির পথেই বাধা নয় প্লাস্টিক। আরও নানা ভাবে সে পরিবেশ দূষিত করে। পরিবেশবিদরা জানাচ্ছেন, প্লাস্টিক হল বায়ো-ননডিগ্রেডেবল, অর্থাৎ মাটির নীচে থাকতে থাকতে তা কখনওই মাটির সঙ্গে মিশে যায় না। মাটির নীচে যে সব ব্যাক্টিরিয়া রয়েছে, সেগুলি প্লাস্টিক হজম করতে পারে না। এ এক বড় সমস্যা। একটি সমীক্ষা অনুযায়ী দেখা গেছে, আমরা বিভিন্ন অনুষ্ঠানে যে প্লাস্টিকের কাপ, গ্লাস ব্যবহার করি, সেগুলি মাটিতে কিংবা জলে পুরোপুরি বিলীন হয়ে যেতে আনুমানিক ৫০ বছর সময় নেয়। ওই ৫০ বছর ধরে প্লাস্টিক পরিবেশকে দূষিত করতে থাকে। আর সমুদ্রের জলে প্লাস্টিক মিশলে প্রায় ৬০০ বছর পর্যন্ত তা অক্ষয় হয়ে থাকে। 

প্লাস্টিক পুড়িয়ে ফেলার উপায়ও নেই। কারণ, প্লাস্টিক পুড়লে যে সকল গ্যাস পরিবেশে মেশে তা মানব শরীরের পক্ষে হানিকারক। সাম্প্রতিক সমীক্ষা বলছে, সমুদ্রে যে সব প্লাস্টিক জমা হয় সেগুলি রোদে, জলে এবং নানা রাসায়নিক প্রক্রিয়ায় ধীরে ধীরে ক্ষয়প্রাপ্ত হয় বটে, কিন্তু সেই ক্ষয়প্রাপ্ত হওয়ার সময়ে প্লাস্টিক থেকে ‘বিসফেনল এ’ নামের এমন একটি পদার্থ নিঃসৃত হয় যা মানুষ, গাছপালা কিংবা অন্য প্রাণীর শরীরে ঢুকলে বিভিন্ন কোষের ক্ষতি করে। প্রাণীর মৃত্যুর কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

তাই পরিবেশ রক্ষার উদ্দেশ্যে, সতর্কতা জারি করতে করা পদক্ষেপ গ্রহণ এবার সরকারের। স্টেশন চত্বরে প্রতিদিন প্রায় ৭,০০০-৮,০০০ প্লাস্টিক বোতল সাফ করা হয়। প্রতিদিন বাড়ছে এই সমস্যা। তাই তার মোকাবিলাতেই এই সিদ্ধান্ত। 
এখন থেকে প্লাস্টিক নিয়ে প্রবেশ করা যাবে না হাওড়া স্টেশনে। প্লাস্টিকের বোতল, ক্যারিব্যাগ বা প্যাকেট নিয়ে ধরা পড়লে ধার্য করা হবে মোটা টাকার জরিমানা। শুধু হাওড়া স্টেশনেই নয়, সমস্ত স্টেশনেই জারি হল এই নিয়ম।

প্ল্যাটফর্ম চত্বর পরিস্কার রাখতে হাওড়া-সহ পূর্ব রেলের সব স্টেশনগুলিতেই আগামী ২ অক্টোবর থেকে কার্যকরী হতে চলেছে নতুন এই নিয়ম। গত বুধবার পূর্ব রেলের জেনারেল ম্যানেজার, পি.সি.শর্মা জানান, প্রতিদিন বিপুল পরিমাণ প্লাস্টিক সাফাই করা হয় স্টেশনগুলি থেকে। এর ফলে পরিবেশ দূষণ হচ্ছে। তাই পরিবেশ রক্ষার স্বার্থেই গ্রহণ করা হল কড়া পদক্ষেপ।

স্বপ্নম সেন (swapnam@krishijagran.com)

 



Krishi Jagran Bengali Magazine Subscription Subscribe Online

Download Krishi Jagran Mobile App

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.