মৎস্য খাতে চাষীদের আয় দ্বিগুণ করতে কেন্দ্র সরকারের প্রকল্প (PMMSY- GOV.SCHEME) প্রধানমন্ত্রী মৎস্য সম্পদ যোজনা

KJ Staff
KJ Staff

কেন্দ্রীয় সরকার ভারতে জলজ ক্ষেত্রে নীল বিপ্লব (Blue Revolution) ঘটাতে স্থায়ী ও দায়িত্বশীল বিকাশের মাধ্যমে মৎস্য পালনে উন্নয়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী মৎস্য সম্পদ যোজনা (PMMSY) প্রচলন করেছে।

প্রধানমন্ত্রী মৎস্য সম্পদ যোজনা’- তে সেন্ট্রাল সেক্টর স্কিম (CS) এবং সেন্ট্রাল স্পনসরড (CSS)  স্কিম নামে দুটি পরিকল্পনা রয়েছে। এই স্কিমগুলি আরও দুটি ভাগে বিভক্ত, -সুবিধাভোগী ভিত্তিক এবং সুবিধাভোগী ভিত্তিক। সিএস স্কিমের আওতায়, ব্যয়ের ১০০% ই ব্যয় বহন করবে কেন্দ্রীয় সরকার। যেখানে কেন্দ্রীয় মৎস্য উন্নয়ন বোর্ডের (NFDB) অন্তর্ভুক্ত কেন্দ্রীয় সরকারের সত্ত্বার অধীনে গৃহীত কোনও ব্যক্তিগত/গোষ্ঠী কার্যক্রম কেন্দ্রীয় সরকার সাধারণ বিভাগকে ৪০% এবং এসসি/এসটি বিভাগে ৬০% সহায়তা দেবে। সিএসএস স্কিমের অধীনে বেসরকারী-সুবিধাভোগী কার্যক্রমের জন্য ব্যয় প্রকল্পটি নিম্নলিখিত অনুপাতগুলিতে কেন্দ্র এবং রাজ্য/কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলি দ্বারা বিভক্ত করা হয়েছে -

উত্তর পূর্বাঞ্চল এবং হিমালয় রাজ্যগুলির ৯০% কেন্দ্রীয় ভাগ এবং ১০% রাজ্য ভাগ

অন্যান্য রাজ্য: ৬০% কেন্দ্রীয় ভাগ এবং ৪০% রাষ্ট্রীয় শেয়ার

কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলি (আইনসভা সহ এবং আইনসভা ছাড়া) ১০০% কেন্দ্রীয় ভাগ

সিএসএস প্রকল্পের আওতায় সুবিধাভোগীদের কর্মের ক্ষেত্রে কোনও প্রকল্পের জন্য সরকার কর্তৃক প্রদত্ত আর্থিক সহায়তা সাধারণ শ্রেণির জন্য ৪০% এবং এসসি/এসটি মহিলাদের জন্য ৬০% হবে। এই আর্থিক সহায়তা সরকার নিম্নে উল্লিখিত ভাগে ভাগ করে প্রদান করবে -

উত্তর পূর্বাঞ্চল এবং হিমালয় রাজ্যগুলির ক্ষেত্রে ৯০% সেন্ট্রাল শেয়ার এবং ১০% স্টেট শেয়ার

অন্যান্য রাজ্য ৬০% সেন্ট্রাল শেয়ার এবং ৪০% স্টেট শেয়ার

কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলি (আইনসভা সহ এবং আইনসভা ছাড়া) ১০০% সেন্ট্রাল শেয়ার (No UT Share)।

সরকার বেশ কয়েক বছর ধরে Blue Revolution- এর চেষ্টা করে চলেছে। মৎস্যসম্পদ ভারতের মোট জিডিপির ১% এবং এই দেশটির উত্পাদন ২০২৪-২৫ সালের মধ্যে ২২ মিলিয়ন মেট্রিক টনে বাড়ানোর লক্ষ্যে সরকার বার্ষিক ৯% এর বৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে। ভারতের মৎস্য শিল্প সঠিক অবকাঠামো এবং বিনিয়োগের অভাবে অবনমিত। COVID-19 এর প্রভাবে হওয়া লকডাউনে মৎস্য খাতের কার্যক্রম সম্পূর্ণ বন্ধ ছিল, যার ফলে এই শিল্পের উপর নির্ভরশীল প্রায় ১৬ মিলিয়ন মানুষ ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন এবং এমনকি সরকার যখন মৎস্য চাষ, পরিবহন ব্যবস্থা পুনরায় চালু করেন, তখনও জেলেদের তাদের মাছ বিক্রি করতে অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছে। তারা তাদের মাছ সাধারণ দামের তুলনায় অনেক কমে বিক্রি করতে বাধ্য হয়েছিলেন, ফলত আর্থিক দিক থেকে তাদের ক্ষতি অপূরণীয়।

সরকার আশা করে যে, নীল বিপ্লব এমন এক পরিবর্তন আনবে যা, পূর্বোক্ত সমস্যাগুলি দূর করবে। সরকারের পরিকল্পনা অনুযায়ী, এই প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে ২০২৪ সালের মধ্যে মৎস্য খাতে চাষীদের আয় দ্বিগুণ হবে এবং তাদের জন্য সামাজিক, শারীরিক ও অর্থনৈতিক সুরক্ষা প্রদান করা সম্ভব হবে

স্বপ্নম সেন

Related article - https://bengali.krishijagran.com/news/gov-announces-rs-20k-cr-scheme-for-fisheries-sector-pm-matsya-sampad-yojona/

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters