বাংলার কৃষকরা কি এই সুবিধা পাবে?

Monday, 10 December 2018 10:20 AM
সোলার পাম্প

সোলার পাম্প

উত্তরপ্রদেশ সরকার কৃষকদের ৭০ শতাংশ ভর্তুকি দিয়ে সোলার পাম্প দেবে বলে ঘোষণা করেছে। চলতি আর্থিক বৎসর থেকেই এই ভর্তুকি চালু করা হবে বলে জানা গেছে।  সারা রাজ্যে সৌরবিদ্যুৎ চালিত পাম্প চালু করার জন্য প্রায় ১০০০০ সৌরপাম্প জলসেচের জন্য সরবরাহ করা হবে।  ‘প্রথমে আসুন, প্রথমে নিয়ে যান’ স্কিমের উপর নির্ভর করে কৃষকরা এই সৌরচালিত পাম্প পেতে পারে বলে জানা গেছে। বর্তমানে  সৌরবিদ্যুৎ চালিত পাম্পকে ডিজেল চালিত পাম্পের একমাত্র বিকল্প হিসাবে মনে করা হচ্ছে।

সৌর পাম্প বোল্টিক সেচ পাম্প যোজনা

উত্তরপ্রদেশ রাজ্যসরকার ‘সোউরপাম্প বোল্টিক সেচ পাম্প যোজনা’-এর অনুসারে ডিসি পাম্পের ক্ষমতা অনুযায়ী এই ভর্তুকি প্রদান করবে বলে জানা গেছে। ২ হর্সপাওয়ার পাম্পের জন্য পাম্প পিছু ভর্তুকি মিলবে ৫০,৮২০ টাকা, তেমন আবার ৮০,৯৯৬ টাকা ভর্তুকি মিলবে ২-৫ হর্সপাওয়ার পাম্পের জন্য। পাম্পের বাকী টাকা কৃষকদের প্রদান করতে হবে। এর সাথে এসি দ্বারা চালিত ২ হর্সপাওয়ার পাম্পের জন্য ভর্তুকি পাওয়া যাবে ৫১,৮৪০ টাকা, সেখানে ৭৭,৭০০ টাকা পাওয়া যাবে ২-৫ হর্সপাওয়ার এসি পাম্পের জন্য। সরকারি এই সুবিধা পেতে হলে কৃষকদেরকে ১৫ নভেম্বর থেকে ১০ ডিসেম্বরের মধ্যে ফর্মের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে। কৃষকদের নিজেস্ব টাকার অংশটি দিয়ে ব্যাঙ্কড্রাফটের সাহায্যে উত্তরপ্রদেশের কৃষিবিভাগের  পোর্টালে নিজের নাম নথিভুক্ত করতে হবে।

ছোট ও প্রান্তিক কৃষক

যোজনা অনুসারে ছোট ও প্রান্তিক কৃষকদের ২-৩ অশ্বক্ষমতা সম্পন্ন সৌরপাম্প দেওয়া হবে, এদের মধ্যে যাদের জমির পরিমাণ ১০-১৫ একরের মধ্যে, সেইসব কৃষকদের ৫ অশ্বক্ষমতা সম্পন্ন পাম্প দেওয়া যাবে। এক্ষেত্রে ২ হর্সপাওয়ার পাম্পের জন্য ৭০% ও ৫ হর্সপাওয়ার পাম্পের জন্য ৪০% ভর্তুকি দেওয়া হবে। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রি শ্রী অরুণ জেটলি বিগত ফেব্রুয়ারিতে বাজেট অধিবেশন চলাকালীন ঘোষণা করেছিলেন যে কেন্দ্রীয় সরকার চলতি অর্থবর্ষে দেশব্যাপী কৃষকদের ক্ষেতে সৌরপাম্প পৌঁছে দেওয়ার জন্য বিশেষ উৎসাহী। সেই সাথে রাজ্যসরকারদের নির্দেশ দিয়েছিলেন কিছু বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য যাতে কৃষকরা এই সৌরপাম্পের যন্ত্রপাতিসমূহ অনেক কম টাকায় পেতে পারে।

সৌরপাম্পগুলি দিয়ে কৃষকরা তাদের প্রয়োজনীয় সেচকার্য দিনের বেলাতেই সুসম্পন্ন করতে পারবে, তাই তাদের আর রাতের বেলা কষ্ট করে ক্ষেতে জল দিতে হবে না। এই ব্যবস্থাটি সেইসব অঞ্চলের কৃষকদের জন্যও বরদান হবে যাদের অঞ্চলে বিদ্যুৎ পৌঁছানোর কোনো ব্যবস্থা নেই। সৌর পাম্প যদি ভালোভাবে ব্যবহার করা যায় তাহলে বিদ্যুৎ উৎপাদন সংস্থাগুলিও বিদ্যুৎ-এর ঘাটতি মিটিয়ে দিতে পারবে, ভর্তুকি কমে যাওয়ার ফলে তাদের মুনাফার পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে, অর্থাৎ পুরো প্রক্রিয়াটিই সমগ্রিকভাবে কৃষির ক্ষেত্রে লাভজনক হতে চলেছে।

- প্রদীপ পাল(pradip@krishijagran.com)

Share your comments



Krishi Jagran Bengali Magazine Subscription Subscribe Online

Download Krishi Jagran Mobile App

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.