পশ্চিমবঙ্গ সরকার পাটকলগুলি (Jute Mill) পুনরায় চালু করার অনুমতি দিয়েছে

KJ Staff
KJ Staff

করোনাভাইরাসের প্রভাব বিদ্যমান থাকলেও ধীরে ধীরে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসছে রাজ্যের শিল্প সংস্থানগুলি। মন্থর গতিতে হলেও বিভিন্ন বেসরকারি শিল্প প্রতিষ্ঠান, দোকান পাট খুলতে শুরু করেছে সবই। চালু করা হচ্ছে গুরুত্বপূর্ণ খাতগুলি। এমতাবস্থায় সরকারের সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার নিয়মাবলী অনুসরণ করে সমস্ত মিলকে পুনরায় চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

পশ্চিমবঙ্গের বৃহত্তম শ্রমনির্ভর শিল্প পাট, দক্ষিণবঙ্গে ৬০ টি পাটকলে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত প্রায় ২,০০,০০০ জন। এ রাজ্যে প্রায় ৩ লক্ষ মানুষ রয়েছেন, যাদের জীবিকা প্রত্যক্ষভাবে পাটকলগুলির সাথে সম্পর্কিত এবং আরও ৪০ লক্ষ মানুষ পাটচাষী। ৫৩ টি পাটকলের মধ্যে ৩৪ টি ইতিমধ্যে কার্যক্রম শুরু করেছে।

শ্রম বিভাগের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, উত্তর চব্বিশ পরগনা, হুঁকুমচাঁদ, আগরপাড়া, শ্যামনগর, উত্তর চব্বিশ পরগণার কেলভিন, ব্যান্ডেল, ডালহৌসি, হুগলীর নর্থব্রুক, প্রেমচাঁদ, হুগলী, বিড়লাপুর, বাজ, দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার সেভিয়ট, লাড়লো, অম্বিকা, হাওড়ার বাউরিয়া সহ প্রায় সব জেলায় মিলগুলি চালু হয়েছে।

লকডাউনের ফলে পাটকলগুলি বন্ধ থাকায় এখানে কর্মরত শ্রমিকদের সঙ্গে সঙ্গে ক্ষতি হয়েছে সমগ্র শিল্পটিরও। কারণ এই মরসুমটি ছিল ভিন রাজ্যে পাট রফতানির শীর্ষ সময়। তবে পাটকলগুলিতে পুনরায় কার্যক্রম চালু হওয়ায় আশার আলো দেখছেন শ্রমিকরা।

স্বপ্নম সেন

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters