Red ladies finger farming: লাল ঢেঁড়শ চাষ করে ব্যাপক সাফল্য পেয়েছেন মধ্যপ্রদেশের কৃষক

রায়না ঘোষ
রায়না ঘোষ
Red ladies finger (image credit- Google)
Red ladies finger (image credit- Google)

হ্যাঁ, সবুজ নয় এটি সম্পূর্ণ লাল ঢেঁড়শ | ঢেঁড়শ খেতে প্রায় সবাই পছন্দ করেন | সবুজ রংয়ের এই আনাজ খেতে পছন্দ করেন অনেকেই। তবে লাল রংয়ের ঢেঁড়শ দেখেছেন কখনও? কিছু সংখ্যক লোক ছাড়া প্রায় কেউই শোনেনি এই লাল ঢেঁড়শের কথা | এমনই অবাক করা সবজি ফলিয়ে রাতারাতি তাক লাগিয়ে দিয়েছেন মধ্যপ্রদেশের কৃষক মিছরিলাল রাজপুত।

তার একমাত্র ভরসা এক চিলতে জমি। তাতেই চাষাবাদ করে সংসার চালান ওই কৃষক। ছোট থেকে মাঠেই দিন কাটে তাঁর। রোদে পুড়ে, জলে ভিজে নিজের হাতে চাষ করা ফসলে যখন মাঠ ভরে যায়, তখন আনন্দে খুশি হয়ে ওঠেন তিনি | তবে সামান্য আয়ে সংসার টানা যেন বড় দুরূহ ব্যাপার। তাই চাষে কিছু বদল এনে কীভাবে আয় বাড়াতে পারেন তা নিয়ে ভাবছিলেন তিনি।

ইতিমধ্যে লাল রংয়ের ঢেঁড়শ চাষের কথা ভাবেন কৃষক। বেনারস অ্যাগ্রিকালচারাল ইনস্টিটিউট থেকে ১ কেজি বীজ কেনেন। আর সেটি চাষ করেন। জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহে বীজ পোঁতেন তিনি। ঠিক ৪০ দিন পর মাথা তুলে দাঁড়ায় ঢেঁড়শ গাছ। কৃষকের দাবি, জল ছাড়া আর কিছুই দেননি তিনি। কোনও রাসায়নিক ব্যবহার করেননি। বর্তমানে তাঁর খেত ভরে গিয়েছে লাল ঢেঁড়শে।

আরও পড়ুন - Cabbage Farming: জেনে নিন বাঁধাকপি চাষাবাদের পদ্ধতি

কৃষক জানান, হৃদরোগ, উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা, মধুমেহ, কোলেস্টেরলের সমস্যায় যাঁরা ভুগছেন তাঁদের স্বাস্থ্যের পক্ষে অত্যন্ত উপযোগী লাল ঢেঁড়শ। তবে এই লাল ঢেঁড়শ কিনতে গৃহস্থকে একটু বেশি টাকা খরচ করতে হবে। কারণ, ৫০০ গ্রাম লাল ঢেঁড়শ বাজারে ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা দরে বিক্রি হয়। তবে এ ধরনের ঢেঁড়শ চাষে লক্ষ্মীলাভ বেশি হওয়ায় মুখের হাসি চওড়া হয়েছে কৃষকের।

পরিচর্যা:

গাছের স্বাভাবিক বৃদ্ধির জন্য জমিকে আগাছামুক্ত রাখতে হবে গাছের প্রাথমিক বৃদ্ধির সময় নিড়ানী দিয়ে আগাছা পরিষ্কার ও মাটির উপরিভাগ আলগা করে দিতে হবে। মাঝে মাঝে বিশেষ করে সেচ দেয়ার জমিতে জো আসলে কোদালের পাতলা কোপ দিয়ে মাটির উপরের চট ভেঙ্গে দিতে হবে। এতে মাটির ভিতরে আলো-বাতাস ঢুকতে পারে এবং মাটি অনেকদিন রস ধরে রাখতে পারে ফলে গাছ তাড়াতাড়ি বেড়ে উঠবে। আগাম মৌসুমে ঢেঁড়স চাষ করলে পানি সেচ দেয়া বিশেষ প্রয়োজন। শুষ্ক আবহাওয়ায় মাটির প্রকার ভেদে ১০/১৫ দিন অন্তর সেচ দেয়া প্রয়োজন হতে পারে। বর্ষাকলে গাছের বৃদ্ধি গাছের বৃদ্ধি ও পানি নিষ্কাশনের সুবিধার জন্য ২৫-৩০ সে. মি উঁচু করে বেড তৈরী করতে হবে। শুষ্ক আবহাওয়ায় প্রতি কিস্তি সার প্রয়োগের পর জমিতে সেচ দিতে হবে।

আরও পড়ুন - Indian Jujube Farming: দেখে নিন কুল চাষের সঠিক পদ্ধতি

Like this article?

Hey! I am রায়না ঘোষ . Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters