ধান ও গমের জমিতে সাথী ফসল পেঁপে চাষ করে অধিক লাভবান কৃষক

KJ Staff
KJ Staff

আধুনিক যুগে কৃষকরা অনেক উন্নত পদ্ধতিতে চাষাবাদ করছেন। তারা সাধারণ ফসলের সাথে সাথী ফসলের চাষ করে অধিক মুনাফা অর্জন করছেন। এর মধ্যে পেঁপে চাষও রয়েছে। পেঁপের গবেষণা শুরু হয় ১৯৮২ সালে এবং উন্নত প্রযুক্তিতে এর ফলন আরও বৃদ্ধি করার অনুসন্ধান এখনও চলছে। আম, কলা এবং আনারসের পরে পেঁপে পশ্চিমবঙ্গের চতুর্থ গুরুত্বপূর্ণ ফসল, এখানে ৭,৫৪০ হেক্টর এলাকা জুড়ে পেঁপের চাষ হয় এবং গড়ে ৩৪.৩ টন/হেক্টর পেঁপে উৎপাদন হয়।

ধান ও গমের জমিতে পেঁপে চাষ -

কৃষকরা যে জমিতে আগে শুধু ধান ও গম চাষ করতেন এখন সেখানে পেঁপে চাষ করতে শুরু করেছেন। এতে তারা ৫ গুণ বেশি মুনাফা পাচ্ছেন। এছাড়া কৃষকদের ফসল বিক্রি করতে ঘুরে বেড়াতে হবে না, কারণ স্থানীয় বাজারে পেঁপের চাহিদা খুব বেশি। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই সময়ে জেলার প্রায় ২২ একর জমিতে পেঁপে চাষ হচ্ছে।

অনেক সফল কৃষক জানিয়েছেন যে, ২০১৭ সালে প্রথমবার তারা খুব ছোট স্তরে পেঁপে চাষ শুরু করেছিল। চাষের ব্যয় কম হওয়ায় তারা প্রচুর মুনাফা অর্জন করেছেন। এরপর, পরের বছর কৃষকরা বড় আকারে পেঁপের আবাদ শুরু করেছিলেন।

রাজ্যে বিজয় নগরে অনেক কৃষক পেঁপে চাষ করছেন। তারা জানিয়েছেন, আগে যে জমিতে ধান ও গমের চাষ করতেন, এখন বেশি মুনাফার জন্য সেই জমিতে পেঁপে চাষ করছেন। এতে তারা কোন ধরণের সমস্যার সম্মুখীন তো হন-ই নি, উপরন্তু আগের চেয়ে পাঁচগুণ বেশি লাভ করছেন। স্বাভাবিকভাবেই তাদের আর্থিক স্বচ্ছলতা ফিরে এসেছে। তাদের দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে এ জেলার অনেক কৃষকই এবার পেঁপে চাষ করেছেন।

কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রের মত -

কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র বলছে যে এখানকার মাটি পেঁপে চাষের জন্য খুব অনুকূল বলে বিবেচিত হয়েছে। এই ফসলটি উচ্চ এবং সমতল উভয় ক্ষেত্রেই চাষ করা হয়। তবে লক্ষ্য রাখতে হবে যে, পেঁপে আবাদকালীন সময়ে জমিতে যেন জল কোনভাবেই আটকে না থাকে। কারণ জমিতে জল জমে থাকলে তা উদ্ভিদটির পক্ষে খুব ক্ষতিকারক।

পেঁপে চাষ করার সঠিক সময় -

পেঁপে চাষের সঠিক সময় ফেব্রুয়ারি থেকে এপ্রিলের শেষ সপ্তাহ পর্যন্ত। এই উদ্ভিদ ৪০ ডিগ্রী পর্যন্ত তাপমাত্রা সহ্য করতে পারে। চারা রোপণের সময় একটি উদ্ভিদ থেকে অপর উদ্ভিদের মধ্যে কমপক্ষে ২ মিটার দূরত্ব রাখা উচিত। কৃষকরা যদি সমতল জমিতে কৃষিকাজ করেন, তবে প্রথমে জমি সঠিকভাবে প্রস্তুত করতে হবে, যাতে বৃষ্টির জল জমিতে জমতে না পারে।

উল্লেখ্য, বিহারের মাটি পেঁপে চাষের পক্ষে অনুকূল হওয়ায় এখানে অনেক জেলার কৃষকরা অন্যান্য রাজ্যের তুলনায় বড় আকারের পেঁপে চাষ করতে সক্ষম হয়েছেন। তবে সঠিক পদ্ধতিতে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়ে পেঁপে চাষ করলে চাষীদের মুনাফা যথেষ্টই আসবে।

স্বপ্নম সেন

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters