Aman Paddy cultivation: আমন ধান চাষে লক্ষ্মী লাভের উপায়

Aman Paddy Cultivation
Aman Paddy Cultivation

ধান উৎপাদনে আমাদের পশ্চিমবঙ্গ দেশের মধ্যে শীর্ষস্থানে, একথা অস্বীকারের কোনও উপায় নেই। ভারতের বার্ষিক ধানের যত ফলন, তার অধিকাংশ আসে আমাদের রাজ্য থেকে। পশ্চিমবঙ্গ ছাড়া, অসম ও উড়িষ্যায়ও ধানের চাষ বেশ ভালো পরিমাণে হয়। পাঞ্জাবে গমের উৎপাদন প্রচুর পরিমাণে হলেও, ধানেরও কিছু কিছু চাষ হয় পাঞ্জাবে। 

আমন চাষের উপযুক্ত জমি ( Suitable land for Aman Paddy Cultivation) :

মূলত বছরে তিনবার ধান চাষ হয়। আউশ ধানের চাষ দিয়ে বছর শুরু শুরু হওয়ার পর, তারপর আসে আমন ধান এবং সবশেষে হয়  রবি মরশুমে বোরো ধানের চাষ হয়। আমন ধান এই তিন ধানের মধ্যে অধিক জনপ্রিয়। মূলত এই বিশেষ প্রজাতির ধানের চাষ বর্ষার শুরুতে আরম্ভ হয়। নিচু অথবা মোটামুটি নিচু জমিতে আমন ধানের সর্বোত্তম চাষ হয়। এঁটেল মাটি ছাড়াও দোঁয়াশ মাটিতেও এই চাষ ভালো হয়। আমন ধানের চাষ ক্ষারযুক্ত জমি বেছে নিয়ে করলে ফল অধিক উত্তম হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। অন্য কোনও শস্য লবনাক্ত মাটিতে না করা গেলেও, আমন ধান সহজেই লবনাক্ত মাটিতে চাষ করা যায়। কাদা জমিতেও এই চাষ উত্তম মানের হয়।

চাষের পদ্ধতি (Procedure of Cultivation) :

বর্ষা আসা মাত্রই জমিতে হালকা লাঙল দিয়ে উপযুক্ত পরিমাণে জৈব সার প্রয়োগ করতে হবে। এরপর বীজ বোনার পালা। জমি কাদা থাকাকালীন আমন ধান পুঁতলে আগাছার মাত্রা কম হয়। বর্তমানে এম. টি. ইউ-৭০২৯ এবং এ. আর-৬৪, আমন ধানের দুই উচ্চ ফলনশীল বীজের চাহিদা বাজারে সবচাইতে বেশি ।

সার প্রয়োগ (Fertilizer): আমন ধান চাষে সাফল্য আনতে সঠিক মাত্রায় সার প্রয়োগ খুবই জরুরি। জমিতে অধিক ফলনের লক্ষ্যে প্রয়োজনে বৈজ্ঞানিকদের পরামর্শে জমিতে জৈব সার (মাত্রা অনুযায়ী গাওঁবোৰ সার) প্রয়োগ করতে পারেন।  

নিয়ম করে সার প্রয়োগ করলে আমন ধানের উৎপাদন খুবই ভালো হয়। জৈবসার প্রয়োগে আমনের উৎপাদন বাড়ে। রাসায়নিক সার দেওয়া যেতেই পারে তবে তা মাটির গুণাগুণ পরীক্ষা করে নিয়ে। সারের ঘাটতি অনুযায়ী, মাটি পরীক্ষা করে নিয়ে সেই অনুযায়ী সার প্রয়োগ করা উচিত। সার প্রয়োগের অনুপাত নিম্নরূপ:

পটাস- ২৫ কেজি/হেক্টর

নাইট্রোজেন-২৫ কেজি/ হেক্টর

ফসকেট-২৫ কেজি/হেক্টর

আমন ধান রোপণের ১৫-১৬ দিন বাদে এই অনুপাতে উল্লেখিত সার প্রয়োগ করতে হবে।

ফসফেট ঘটিত সার: আমন খেতে ফসফেট সারের দরকার পড়ে ধানগাছের বেড়ে ওঠা, পুষ্ট দানা ও শিকড়ের কার্যকারিতা বাড়ানোর জন্য। সুপার ফসফেট এই ক্ষেত্রে খুবই ভালো একটি ফসফেট ঘটিত সার।  ফসফেট সার একদম ফলনের অন্তিম সময়ে প্রয়োগ করা উচিত।

নাইট্রোজেন: আমন ধানের শিষ আসার কয়েক সপ্তাহ আগে নাইট্রোজেন সার প্রয়োগ করলে উৎপাদন বৃদ্ধি পায়। নাইট্রোজেন প্রয়োগে শিষ উন্নত হয় সাথে সাথে শিষের দানা বেশি পরিমাণে পাওয়া যায়। ইউরিয়া অথবা অ্যামোনিয়াম সালফেট নাইট্রোজেন হিসাবের প্রয়োগ করতে হবে। সবথেকে ভালো হয় যদি ইউরিয়া ঠিকঠাক পরিমাণে প্রয়োগ করা হয়।

সময় (Time of Cultivation) ঘনঘোর বর্ষাকাল, অর্থাৎ আষাঢ়-শ্রাবণ মাসে এমন ধানের  চারা  রোপন করা সবথেকে ভালো। মনে রাখতে হবে আমন ধানের চারা দুই ইঞ্চির বেশি রোপণ করা উচিত নয়।

সেচ প্রধান (Irrigation):

উন্নত ফলনের লক্ষ্যে চাষে সেচ প্রদান একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।   ধান গাছে ফুল আগমন ও দানা গঠিত হওয়ার সময়  ক্ষেতে পর্যাপ্ত জল থাকা একান্ত প্রয়োজন

ফসল কাটা (Harvesting):

সঠিক সময়ে ফসল কেটে নিতে হবে। ধান গাছে শিস আসার ৩০ থেকে ৩৫ দিন বাদে ফসল সংগ্রহ করে নিতে হবে।

আরও পড়ুন: Paddy Disease – ধান চাষে বৈজ্ঞানিক উপায়ে কীট ও রোগ ব্যবস্থাপনা

 

আমন ধানের রোগবালাই- ও কীট পতঙ্গ ব্যবস্থাপনা: ( disease and pest management )

সব ফসলেরই রোগবালাই থাকে তাই ধানেরও রোগ হওয়া আশ্চর্যের কিছু নয়। মূলত আমন ধানে ব্যাকটেরিয়ালজাত, ভাইরাস এবং ছত্রাক এই তিন প্রকারের রোগ পরিলক্ষিত হয়। এই রোগগুলির থেকে ধান গাছকে বাঁচাতে বাইথেন-এম-৪০, ৩ লিটার জলে মিশিয়ে নিয়ে ধান খেতে স্প্রে-র মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া উচিত। ৩ থেকে ৪ বার স্প্রে করলে ধান গাছ এই রোগগুলি থেকে দূরে থাকবে। এই রোগগুলি ছাড়াও, ধান খেতে মাদুড়া পোকা, বাদামী শোষক পোকার আক্রমণ লেগেই থাকে। এই পোকাগুলির অতিরিক্ত আক্রমণে ফসল সম্পূর্ণ ভাবে বিনষ্ট হয়ে যেতে পারে। অতএব এই পোকাগুলির থেকে ধান ক্ষেত কে বাঁচাতে মাঝে মাঝে অ্যান্ডাসালফেন বা ডিমেক্রন-১০০ স্প্রে করা উচিত।

আমন ধানের উৎপাদনে এই নিয়মগুলি মেনে চললে সুফলা সুজলা ধানক্ষেতের অধিকারী আপনি হতে পারবেন। ধান চাষের উন্নতির সাথে সাথে মা লক্ষীর কৃপা আপনার উপর বর্ষাতেও বেশি সময় লাগবে না।

আরও পড়ুন: Sustainable Agriculture System: সুস্থায়ী কৃষি ব্যবস্থা: বর্তমান ও ভবিষ্যতের সম্পদ

Like this article?

Hey! I am কৌস্তভ গাঙ্গুলী. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters