Amarnth Cultivation Process: ডাটা শাক চাষের পদ্ধতি

Amarnth Cultivation
Amarnth Cultivation

ডাটা শাক প্রত্যেক নিরামিষ ভোজনপ্রিয় বাঙালির কাছে অত্যন্ত প্রিয়। ডাটা শাকের চচ্চড়ি, অথবা মাছের মাথা দিয়ে ডাটা শাকের পদগুলি খেতে খুবই ভালো লাগে। ডাটা চাষ করে বর্তমানে বহু মানুষ সাফল্যের ছোঁয়া পেয়েছেন। ডাটা শাক চাষ খুব একটা কঠিন বিষয় নয়। বুদ্ধি করে এবং কৌশলগত ভাবে এগোলেই ডাটা চাষ সহজে করা যাবে। আসুন জেনে নেওয়া যাক এই চাষের সহজতম পদ্ধতি।

ডাটা চাষ মূলত শীতকাল ও গ্রীষ্মকাল দুই ঋতুতেই করা যায়। ভিটামিন-এ, বি, সি, ডি এবং ক্যালসিয়াম ও আয়রন পর্যাপ্ত পরিমাণে এই সবজির মধ্যে থাকে। এতগুলো ভিটামিন ও খনিজ সমৃদ্ধ সবজি খুব কম লক্ষ্য করা যায়।

জমি প্রস্তুতি- (Preparing the Land)

ডাটা চাষ করতে গেলে জমি গভীর ভাবে কর্ষণ করতে হবে। মনে রাখতে হবে মাটি যেন মিহি হয় এবং জমি যাতে ঢেলামুক্ত হয়। মূলত কাণ্ডের জন্য এই বিশেষ সবজি চাষ করা হয়। কম করে ৩০ সেমি. দূরত্ব রেখে সারি তৈরি করতে হবে। চারা গজানোর পর ক্রমান্বয়ে পাতলা করে দিতে হবে। যেন শেষ পর্যন্ত সারিতে পাশাপাশি দুটি গাছ ৮/১২ সে.মি. দূরত্বে থাকে।

 

বপনের উপযুক্ত সময় (Timing)

খরিফ মৌসুম (মার্চ-এপ্রিল) ও রবি মৌসুম (সেপ্টেম্বর-অক্টোবর) এই চাষের পক্ষে উপযুক্ত

আরও পড়ুন: Ayushman Golden Card – এই কার্ডে পাবেন ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত চিকিৎসার সুযোগ, কীভাবে আবেদন করবেন দেখে নিন

বীজ বপন (Planting)

 বিঘা প্রতি ১৯৮-৩৩০ গ্রাম বীজ বিক্ষিপ্ত ভাবে ছিটিয়ে দিয়ে অথবা লাইন করে পোঁতা যায়। সারি করে বীজ বপন করতে হলে, লম্বালম্বি ২০ সেমি. দূরত্ব রেখে সারি অনুযায়ী বীজ পুঁততে হবে। ডাটা বীজ বপন করার সময় সম পরিমাণ ছাই বা বালি মিশিয়ে দিলে ফলন ভালো হবে। দেখা যায় এই চাষের সময় অনেক সময় জমিতে প্রাকৃতিক কারণে রস থাকে না, সেইজন্য হালকা করে সেচ দিয়ে নিয়ে ভালো। বপনের হয়ে গেলে হালকা ভাবে মই দিয়ে বীজ ঢেকে দেওয়া ভালো।

সার দেওয়ার কৌশল (Fertilizer)

সার                                     প্রতি শতকের জন্য

পচা গোবর/কম্পোস্ট                 ৪০কেজি

ইউরিয়া                                  ২৬৪গ্রাম

টিএসপি                                 ৮০০গ্রাম

এমওপি                                  ৬০০গ্রাম

 

সার প্রয়োগের কৌশল (Process of Fertilizing)

 গোবর, টিএসপি, অর্ধেক ইউরিয়া এবং পটাশ সার শেষবার চাষ দেওয়ার সময় সমানুপাতে মাটিতে ছিটিয়ে দিতে হবে। বীজ বপন হয়ে গেলে তার ১৫ দিন বাদে বাকি পটাশ এবং ইউরিয়া সার ছড়িয়ে দিতে হবে।

 

আগাছা দমন (weed management)

ডাটা বীজ বপন হওয়ার এক সপ্তাহ বাদে গাছ পাতলা করণ ও আগাছা পরিষ্কারে হাত দিতে হবে। প্রত্যেকটা সারিতে ৫ সেমি. অন্তর চারা রেখে পাতলা করে দিতে হবে। জমির উপর চটা লাগে তবে তা ভেঙে দেওয়া উচিত। এর ফলে গাছের বৃদ্ধি  ত্বরান্বিত হবে এবং গাছ বিভিন্ন রোগের হাত থেকে বাঁচবে।

ফসল সংগ্রহ (Harvest)

 পাতা নরম বা মোলায়েম অবস্থায় ডাটা শাক তুলতে হয়। এই অবস্থায় ফসল তুললে শাকের স্বাদ অত্যন্ত ভালো হয়।

আরও পড়ুন: Betel cultivation in shade net: শেড নেট পদ্ধতিতে পান চাষে বিঘা প্রতি ব্যাপক আয়ের সুযোগ

 

Like this article?

Hey! I am কৌস্তভ গাঙ্গুলী. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters