(White sandalwood) শ্বেত চন্দন চাষ করে কৃষক উপার্জন করতে পারেন ৬০ লাখ থেকে ১ কোটি পর্যন্ত

Monday, 27 July 2020 01:47 PM
Sandalwood farming

Sandalwood farming

দেশের কৃষকদের আর্থিক উন্নতির একটাই উপায় আর তা হল স্বল্প ব্যয়ে আরও বেশি মুনাফা অর্জন। ক্ষুদ্র থেকে বড় প্রতিটি কৃষকের লক্ষ্য কৃষিকাজ করে উপার্জনের সাথে সাথে নিজেদের আর্থিক সক্ষমতা বৃদ্ধি। দেশের বেশিরভাগ কৃষক এখনও ঐতিহ্যবাহী কৃষিকাজের সাথে যুক্ত, আবার এমন কিছু কৃষক আছেন যারা ঐতিহ্যবাহী চাষ থেকে দূরে সরে যেতে চান এমন কিছু জিনিস চাষ করার জন্য যা তাদের ভাল লাভ দিতে পারে। এ জন্য দেশের কৃষকরা প্রতিদিন কৃষিতে নতুন নতুন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে চলেছেন। মূল ফসলের সাথে তারা সাথী ফসল চাষ করেন অতিরিক্ত উপার্জনের জন্য।

চন্দন কাঠের চাষ বেশ লাভজনক, উল্লেখযোগ্য বিষয়টি হ'ল আমাদের দেশের পাশাপাশি বিদেশেও এর চাহিদা ভালোই রয়েছে। সেই প্রাচীনকাল থেকে শুরু করে আজও এর চাহিদা উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পেয়েছে। চন্দন কাঠের চাষে আপনাকে যে পরিমাণ অর্থ ব্যয় করতে হবে, তার বহুগুণ বেশি অর্থ আপনি উপার্জন করতে পারবেন অর্থাৎ, এটি বেশ লাভজনক। তবে, এর জন্য আপনাকে কমপক্ষে ১৫-২০ বছর দীর্ঘ অপেক্ষা করতে হবে। এতে ব্যয় হয় প্রায় এক লাখ টাকা এবং এতে মুনাফা হয় ৬০ লাখ থেকে ১ কোটি টাকা পর্যন্ত। শ্বেত চন্দন গাছগুলিকে চিরসবুজ হিসাবে বিবেচনা করা হয়, এর থেকে উত্পাদিত তেল এবং কাঠ ঔষধ তৈরি করতেও ব্যবহৃত হয়। শ্বেত চন্দন কাঠের তেল সাবান, প্রসাধনী এবং আতর সুগন্ধ হিসাবে ব্যবহৃত হয়।

Profitable Sandalwood farming

Profitable Sandalwood farming

কত দিনের মধ্যে চন্দন গাছ প্রস্তুত হয় (In how many days the sandalwood tree is ready) -

চন্দন গাছ দুটি উপায়ে প্রস্তুত করা যায়, প্রথমটি জৈব চাষ এবং দ্বিতীয়টি ঐতিহ্যবাহী উপায়ে চাষ। জৈব পদ্ধতিতে এবং প্রচলিত উপায়ে চন্দন গাছ প্রস্তুত হতে ১০ থেকে ১৫ বছর সময় লাগে। অন্যান্য গাছের তুলনায় চন্দন গাছ বেশ ব্যয়বহুল, তবে আপনি যদি একবারে অনেকগুলি গাছ কিনে থাকেন তবে এটি গড়ে ৪০০ টাকায় পাবেন। শ্বেতচন্দন গাছ চাষ করা যেমন সহজসাধ্য, তেমনি অত্যন্ত লাভজনকও। এই গাছ চাষে তেমনভাবে কোনও খরচও নেই। সেচও লাগে কম। প্রথম দুই বছর গাছের সামান্য যত্ন নিতে পারলেই আর কোনও অসুবিধা নেই।

কত দাম পেতে পারেন কৃষক (How much can the farmer get) - 

গাছের বয়স ২০ হলেই প্রায় পরিণত এই গাছ ৩০০ থেকে ৩৫০ কেজি কাঠ দেবে। মাটির উপরের ভাগের কাঠের দাম বর্তমান বাজারে যা ১৫ হাজার টাকা প্রতি কেজি৷ তা ২০ বছর পর আরও দাম বাড়ার সম্ভাবনা। এমনকি মাটির ভিতর শিকড় ইত্যাদি কাঠও পাওয়া যেতে পারে নয় নয় করেও প্রায় ১৫ লক্ষ টাকার। অর্থাৎ বর্তমানে কোনও গাছ রোপণ করলে ২০ বছর পর অনায়াসেই আপনি গাছের সংখ্যা অনুযায়ী ৬০ লক্ষ থেকে কোটি টাকার মালিক হয়ে যেতে পারেন।

Image Source - Google 

Related link - (Post office scheme) সরকারের এই পাঁচটি প্রকল্পে বিনিয়োগে বিনিয়োগকারী পাবেন অতিরিক্ত সুবিধা

স্বল্প বিনিয়োগ মুনাফা অধিক, ২০২০ সালের জন্য (Unique business idea) ইউনিক বিজনেস আইডিয়া

(Bangla Krishi Sech Yojana) বাংলা কৃষি সেচ যোজনা - স্প্রিঙ্কলার সেচ এবং ড্রিপ সেচ মেশিন বিনামূল্যে পাবেন কৃষক

English Summary: Farmers can earn 60 million to 1 crore by cultivating white sandalwood


Krishi Jagran Bengali Magazine Subscription Subscribe Online

Download Krishi Jagran Mobile App

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.