Krishi Vigyan Kendra - কৃষিক্ষেত্রে কৃষকদের জ্ঞান ও দক্ষতা বৃদ্ধিতে কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন

KJ Staff
KJ Staff
KVK (Image Credit -Google)
KVK (Image Credit -Google)

কৃষিক্ষেত্রে প্রশিক্ষণ থেকে শুরু করে বিভিন্ন কৃষি উত্পাদন ব্যবস্থায় কৃষকদের জ্ঞান ও দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রের এক অপরিহার্য ভূমিকা রয়েছে। কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রগুলি হল বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণকারী এমন এক প্রতিষ্ঠান, যা কৃষি মেলা, বিভিন্ন কৃষি প্রদর্শনী, দক্ষতা বৃদ্ধির উদ্দেশ্যে সেমিনার ইত্যাদির আয়োজন করে। 

এই ধারাবাহিকতায়, আইসিএআরের উপ-মহাপরিচালক (কৃষি সম্প্রসারণ), এ.কে. সিংয়ের সাথে আমাদের কৃষি জাগরণের সাংবাদিক জ্যোতি শর্মা কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র সম্পর্কে কথা বলেছেন। তাঁদের কথোপকথনের কিছু মূল অংশ নিম্নে উপস্থাপন করা হল -

কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র কৃষকদের জন্য কীভাবে উপকার করে (How KVK benefits farmers) ?

দেখুন, সকল জেলা পর্যায়ে কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। যদিও এখন কয়েকটি নতুন জেলা গঠিত হয়েছে, যার কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র নেই, তবে এই জেলাগুলিও পুরানো জেলাগুলি থেকেই বাইরে এসেছে। আপনি এভাবে বলতে পারেন যে, সকল পুরানো জেলারই কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র রয়েছে এবং এর নাম অনুসারে, কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র কেবল কৃষিক্ষেত্রেই কাজ করে। কৃষি বিজ্ঞান, পশুপালন, মৎস্য ও বিজ্ঞানের একদল বিশেষজ্ঞও এখানে নিযুক্ত থাকেন। যা মহিলাদের সমস্যা এবং পুষ্টি সম্পর্কিত সমস্যাগুলি সমাধানের পরামর্শ দিয়ে থাকে।

কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র জ্ঞানের কেন্দ্র। জেলার কৃষি উন্নয়নের জন্য যে প্রযুক্তিটির প্রয়োজন, তা সম্পর্কে কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রে সম্পূর্ণ তথ্য থাকে, সেখানকার পরিস্থিতি অনুযায়ী কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রে  কৃষকরা সকল তথ্য পেতে পারেন। উদাহরণ স্বরূপ, সেখানে জমির অবস্থা কেমন,  সেখানে জলবায়ু কেমন?  সেচের মাধ্যম কেমন হওয়া উচিৎ?  এবং সেই পরিস্থিতি অনুযায়ী নতুন প্রযুক্তিটি কী হওয়া উচিত।  এ ছাড়া বিভিন্ন ফসল, ডাল, ধান, গম বা শাকসবজি সকল কিছুর পর্যাপ্ত বীজ এখানে উপলভ্য। এছাড়াও, যদি ক্ষেতে কোনও রোগ হয় তবে আমরা এর জন্য বিশেষজ্ঞ সরবরাহ করি।  এ জন্য কৃষকরা চাইলে কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।  সুতরাং, আমি বলতে পারি যে কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র কৃষির সাথে সম্পর্কিত যে কোনও বিষয়ে কৃষককে সঠিক দিশা দেখানোর ক্ষমতা রাখে। 

কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রের কর্ম অঞ্চল নির্বাচনের প্রক্রিয়াটি কী (What is the process of selection of work area) ? 

কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রের কর্ম অঞ্চল জেলার সর্বত্র। এটি একটি বা দুটি গ্রামে কাজ করে না, সর্বত্র কাজ করে। তবে কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রে ৬ জন বিশেষজ্ঞ রয়েছেন, যারা সর্বত্র গিয়ে কর্ম সম্পাদন করতে পারেন না, তাই চেষ্টা করা হচ্ছে এমন কোনও গ্রামকে বেছে নেওয়ার জন্য যেখানে তারা কাজ করতে পারবেন।  তবে, যদি প্রযুক্তি সম্পর্কিত কোনও বার্তা বা প্রশিক্ষণ দিতে হয়, তবে জেলার সকল কৃষক সেটির জন্য কেন্দ্রে আসেন। যদিও, কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র সমস্ত বিষয়ে কাজ করে, তবে এরকম বহুবার ঘটেছে যে, কোনও এগ্রোনমি সেন্টার মাশরুম উত্পাদনে দক্ষতা অর্জন করেছে, অন্য কেউ মধু উত্পাদনে শীর্ষস্থান অধিকার করেছেন, তখন এটি দেখতে অন্যান্য জেলার কৃষকরাও আসে।

কোনও নতুন প্রযুক্তি যখন আসে, আপনি কীভাবে তা কৃষকদের কাছে উপস্থাপন করেন? 

দেখুন, কৃষকদের কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রের সাথে যুক্ত করার একটি দীর্ঘ প্রক্রিয়া রয়েছে। উদাহরণস্বরূপ, আমরা যেমন আপনার সাথে সাক্ষাত করছি এবং আপনি কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র সম্পর্কে জানতে পারছেন, এরপর আপনার মাধ্যমে অন্য কেউ কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র সম্পর্কে জানতে পারবে। এছাড়া আমাদের কিছু বিশেষজ্ঞ সংবাদপত্রে লিখতে থাকেন, যার মাধ্যমে মানুষ কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র সম্পর্কে জানতে পারে। বর্তমানে, সারা দেশে ১৪ কোটি কৃষক রয়েছেন এবং এর মধ্যে প্রায় ৫.৩ কোটি কৃষক এম পোর্টালে নিবন্ধিত এবং এই সমস্ত কৃষক কোন না কোনভাবে কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রের সাথে যুক্ত রয়েছে। মনে করুন, একটি জেলায় ৫ লক্ষ কৃষক বা একটি জেলায় ১০ লক্ষ কৃষক রয়েছেন, তাদের সাথে কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রের একরকম যোগাযোগ রয়েছে। আমাদের বিশেষজ্ঞরা এই সমস্ত কৃষকের সাথে সংযুক্ত আছেন, এই কৃষকদের সাথে আমাদের বিশেষজ্ঞরা সময়ে সময়ে কৃষির সাথে সম্পর্কিত তথ্য ভাগ করে নিচ্ছেন। এগুলি ছাড়াও সরকারের সমস্ত মন্ত্রক যারা কৃষকদের জন্য কাজ করতে চান, তারা কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রের মাধ্যমে এটি করতে চান, কারণ তারা জানেন যে এটিই একমাত্র সংস্থা, যারা প্রত্যক্ষভাবে কৃষকদের সাথে সংযুক্ত রয়েছেন।

কিষাণ মিত্র প্রকল্পটি কীভাবে নির্বাচিত হয়? এই প্রকল্পের আওতায় কৃষকরা কীভাবে সংযুক্ত আছেন (Kisan Mitra Prakalpa) ?

কিষাণ মিত্র প্রকল্পটি কৃষি বিভাগের পরিকল্পনা। আইসিএআর এবং কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রের সাথে এর কোনও যোগসূত্র নেই। তবে কিষাণ মিত্র প্রকল্পের আওতায় সরকার লোককে চেইন এজেন্ট হিসাবে সংযুক্ত করে। যাদের সচেতন হওয়ার তাগিদ রয়েছে, শিখতে চায় এবং যারা জ্ঞান ভাগ করতে চায়, সরকার এ জাতীয় লোককে কিষাণ মিত্র প্রকল্পে নিয়োগ করে।

মহিলা কৃষকদের উত্সাহিত করতে কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র কী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে?

আপনি জেনে খুশি হবেন যে আমরা বার্ষিক ১৬ লাখ কৃষককে প্রশিক্ষণ দিই, যার মধ্যে ৫ লক্ষাধিক রয়েছেন মহিলা কৃষক। গ্রামের যুবকরা এখন গ্রাম ছেড়ে শহরে পাড়ি দেন। গ্রামে এখন কেবল নারী ও প্রবীণরা রয়েছেন। এমন পরিস্থিতিতে কৃষিক্ষেত্রে নারীর প্রয়োজনের পরিপ্রেক্ষিতে আমরা ৫ লক্ষেরও বেশি নারীকে প্রশিক্ষণ দিয়েছি এবং আমরা প্রতিনিয়ত তাদের সংখ্যা বৃদ্ধির এবং আরও উন্নতির প্রচেষ্টা করছি। এই পর্বে, একটি প্রোগ্রামে, আমরা মহিলাদের কেন্দ্রে রেখে শুরু কাজ শুরু করেছি। আমরা এই প্রোগ্রামটির নাম রেখেছি ‘নারী’। এই কর্মসূচির আওতায় নারীদের উন্নতির কাজ শুরু হয়েছে।

কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র থেকে কৃষকরা কী সুবিধা পাচ্ছেন?

যদিও কৃষকের সংখ্যা হাজার হাজার রয়েছে, তবে আমি আপনাকে একটি উদাহরণ দিই। আমাদের দেশে ডালের উৎপাদন ছিল ১৬ থেকে ১৭ মিলিয়ন টন এবং আজ আমরা যখন তিন - চার বছরের পরিসংখ্যানের কথা বলি, তখন এটি উল্লেখ করতেই হয় যে এই সংখ্যা ২৪ থেকে ২৫ মিলিয়ন টন-এ পৌঁছেছে এবং দেশ বলছে যে আমরা স্বাবলম্বী হয়েছি।

আরও পড়ুন - Brown Plant Hopper – ধান চাষে ব্রাউন হপার-এর আক্রমণ হলে কীভাবে প্রতিরোধ করবেন?

কৃষিক্ষেত্রের স্বার্থে কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র এত দিন সক্রিয় ছিল, তাহলে আগের তুলনায় কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রের কার্যক্রমে কী পরিবর্তন এসেছে?

হ্যাঁ, অনেক পরিবর্তন এসেছে। আজ সমস্ত সরকারী বিভাগগুলি কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রের সাথে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে চায়। আজ, আমাদের কাজের ধরনও পরিবর্তিত হয়েছে। জেলা পর্যায়ে কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র কৃষকদের স্বার্থে কাজ করছে। কৃষকরা আমাদের উপর আস্থা রাখে এবং কৃষকদের আস্থা বজায় রেখে দীর্ঘ পথ চলাই আমাদের প্রচেষ্টা। এই উদ্দেশ্যে আমাদের নিরলস প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

আরও পড়ুন - IFFCO প্রচলন করল ন্যানো ইউরিয়া তরল, জানুন এর দাম, উপকারিতা এবং ফসলের উপর প্রভাব সম্পর্কে

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters