Polyhalite Fertilizer - এই সার প্রয়োগে বৃদ্ধি পাবে হলুদ ফসলের ফলন ও গুণমান, আইপিএল –এর থেকে পরিচালিত হল ওয়েবিনার

স্বপ্নম সেন
স্বপ্নম সেন
Meeting on Polyhalite (Image Credit - Google)
Meeting on Polyhalite (Image Credit - Google)

ইন্টারন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ পটাশ (IPI), সুইজারল্যান্ড, ভারতে হলুদ চাষের জন্য উপকারী সার পলিহ্যালাইটের সুবিধাগুলি সম্পর্কে কৃষি জাগরণের ফেসবুক পেজে লাইভ প্রোগ্রামের মাধ্যমে সরাসরি আলোচনা করে। উক্ত আলোচনায় ড. আদি পেরেলম্যান (সমন্বয়ক ভারত আন্তরাষ্ট্রীয় পটাশ সংস্থান) এবং ড. পি. কে কার্তিকেয়ান, সহকারী অধ্যাপক (মৃত্তিকা বিজ্ঞান), অন্নমালাই বিশ্ববিদ্যালয়, তামিলনাড়ু অংশ গ্রহণ করেন।

তামিলনাড়ুর এরোড জেলার আন্তর্জাতিক পটাশ ইনস্টিটিউটের সহযোগিতায় অন্নমালাই বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালিত একটি গবেষণার উপর এই আলোচনা চলে। এটি একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা ছিল, এতে ভারতের বিভিন্ন স্থানের মানুষ অংশগ্রহণ করেন। এই আলোচনায় ডঃ পি.কে. কার্তিকেয়ন সম্পূর্ণ পদ্ধতি এবং গবেষণার ফলাফল ব্যাখ্যা করেন। এ ছাড়া তিনি সরাসরি শ্রোতাদের জিজ্ঞাসা করা প্রশ্নের উত্তরও দিয়েছিলেন। আপনি কৃষি জাগরণের ফেসবুক পেজে গিয়ে আলোচনার ভিডিওটি দেখতে পারেন - https://www.facebook.com/watch/live/?v=546841659694981&ref=watch_permalink 

পলিহ্যালাইট কম্পোস্ট কী (Polyhalite Compost) ?

পলিহ্যালাইট কম্পোস্ট ২৬০ মিলিয়ন বছর আগে সমুদ্রের গভীরতায় জমাট বাঁধা শিলা, যা ইংল্যান্ডের উত্তর-পূর্ব উপকূল পৃষ্ঠ থেকে ১২০০ মিটার গভীরতায় পাওয়া গেছে। পলিহ্যালাইট একটি স্ফটিক খন্ড, সুতরাং এর সমস্ত উপাদান আস্তে আস্তে এক অনুপাতে নির্গত হয়ে যায়। তবে এর পুষ্টিগুণ দ্রবীভূত হয়ে যাওয়ার সাথে তা মাটির সাথে মিশে আলাদাভাবে প্রতিক্রিয়া দেখায়। ফসলের সালফার, পটাসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম এবং ক্যালসিয়ামের প্রয়োজনীয়তা এবং ঘাটতি পলিহ্যালাইট প্রয়োগ করে পূরণ করা যেতে পারে।

ভারতে হলুদের চাষ (Turmeric Farming In India) -

বিশ্বে হলুদ উৎপাদনে ভারত বৃহত্তম উত্পাদক এবং রফতানিকারক দেশ। অন্ধ্র প্রদেশ, তামিলনাড়ু, উড়িষ্যা, কর্ণাটক, পশ্চিমবঙ্গ, গুজরাট, মেঘালয়, মহারাষ্ট্র এবং আসাম ভারতে হলুদের উত্পাদনের প্রধান রাজ্য। হলুদ চাষের সময় পটাসিয়ামের প্রয়োজনীয়তা বেশি থাকলেও এর ফলন সাধারণত হলুদের জাত, মাটি এবং আবহাওয়ার অবস্থার উপর নির্ভর করে।

জলবায়ু এবং মাটি (Soil & Climate) - 

  • হলুদের চাষের জন্য ২৫-৩০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড তাপমাত্রা ১৫০০ মিমি বৃষ্টিপাত আদর্শ।

  • এর চাষের জন্য মাটিতে ৪.৫-৭.৫ পিএইচ এবং ভালো নিকাশি ব্যবস্থাসহ বেলে বা দো-আঁশ মাটি প্রয়োজন।

হলুদের পুষ্টিকর ব্যবস্থাপনা -

নাইট্রোজেন এবং ফসফরাস জাতীয় মূল পুষ্টি ছাড়াও হলুদে পটাসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ক্যালসিয়াম এবং সালফার প্রয়োজন হয়, তাই পলিহ্যালাইট হলুদ চাষের জন্য উপযুক্ত সার।

পলিহ্যালাইটের পুষ্টি -

  • ৪৬% সালফার ট্রাইঅক্সাইড রয়েছে এতে, অর্থাৎ সালফারের একটি দুর্দান্ত উত্স এটি এবং এর প্রয়োগে মাটিতে সোডিয়াম ও ফসফরাসের মতো অন্যান্য পুষ্টির মান বৃদ্ধি পায়।

  • উদ্ভিদের সামগ্রিক বৃদ্ধি এবং স্বাস্থ্যের জন্য ১৩.৫% ডাই পটাশিয়াম অক্সাইড প্রয়োজনীয়।

  • সালোকসংশ্লেষণের জন্য ৫.৫% ম্যাগনেসিয়াম অক্সাইড প্রয়োজনীয়।

  • ১৬.৫% CaO, যা কোষ বিভাজন এবং একটি শক্তিশালী কোষ গঠনের জন্য প্রয়োজনীয়।

পলিহ্যালাইট ব্যবহারের সুবিধা :

  • এটি একটি প্রাকৃতিক খনিজ (ডিহাইড্রেট পলিহ্যালাইট) যাতে চারটি প্রধান পুষ্টি উপাদান, পটাসিয়াম, সালফার, ক্যালসিয়াম এবং ম্যাগনেসিয়াম রয়েছে।

  • এর স্ফটিক আকৃতির কারণে এটি জলে আস্তে আস্তে দ্রবীভূত হয় এবং ধীরে ধীরে পুষ্টি উপাদানগুলি মাটিতে ছড়িয়ে পড়ে, তাই পুষ্টিগুলি শস্য চক্রকালে দীর্ঘ সময় মাটিতে রয়ে যায়।

  • এটি স্থায়ীভাবে হলুদের গুণমান এবং ফলন বৃদ্ধি করে।

পরীক্ষা:

তামিলনাড়ুর অন্নমালাই বিশ্ববিদ্যালয়, সুইজারল্যান্ডের আন্তর্জাতিক পটাশ ইনস্টিটিউট, সুইজারল্যান্ডের সহযোগিতায়, ২০১৯-২০২০ এবং ২০২০-২১ এর মধ্যে তামিলনাড়ুর অন্নমালাই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক তামিলনাড়ুর ইরোড জেলায় মাঠে হলুদ ফলনের উপর পলিহ্যালাইটের প্রভাব পরীক্ষা করার জন্য প্রয়োগ করা হয়। যার মধ্যে পলিহ্যালাইটের বিভিন্ন ডোজ অধ্যয়ন করা হয়েছিল। গবেষণায় রাইজোম, ক্লোরোফিল এবং কারকিউমিনের পরিমাণ ও ফলনের উপর প্রভাব লক্ষ্য করা গেছে।

ফলাফল:

  • হলুদে পটাশিয়াম ব্যবহারে তাৎপর্যপূর্ণ ফলাফল দেখা দেছে।

  • পলিহ্যালাইট ব্যবহারে রাইজোমের ফলন বেড়েছে।

  • পটাশিয়ামের জন্য এমওপির বিভিন্ন অনুপাত এবং পলিহ্যালাইট ব্যবহারের পরীক্ষাগুলিতে, ১:১ বা ২:১ বা ১:২ (এমওপি: পিএইচ) সিঙ্গেল এমওপি ব্যবহারের চেয়ে রাইজোম ফলন উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে।

  • পলিহ্যালাইট ব্যবহারের ফলে হলুদের কারকিউমিন উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি পেয়েছে, (১৪.২% থেকে ৭৩.৯%)।

  • পটাসিয়াম প্রয়োগের মাধ্যমে হলুদের ফলনের উন্নতি মাটিতে পটাসিয়ামের নিম্নমানের ইঙ্গিত দেয়।

উপসংহার :

এই সমস্ত ফলাফলের উপর ভিত্তি করে এই সিদ্ধান্তে উপনীত হওয়া যেতে পারে যে, হলুদ ফসলের জন্য পটাসিয়াম অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং এমওপির পাশাপাশি পলিহ্যালাইটের ব্যবহার হলুদের ফলন ও গুণমান উন্নত করতে খুব কার্যকর সার হিসাবে প্রমাণিত।

আরও পড়ুন - Krishi Vigyan Kendra - কৃষিক্ষেত্রে কৃষকদের জ্ঞান ও দক্ষতা বৃদ্ধিতে কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্রের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন

Like this article?

Hey! I am স্বপ্নম সেন . Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters