Krishak Bondhu Prakalpa: দ্বিগুন হয়েছে কৃষক বন্ধু প্রকল্পের অনুদান, জেনে নিন বিস্তারিত তথ্য

KJ Staff
KJ Staff
Krishak Bondhu Prakalpa (image credit- Google)
Krishak Bondhu Prakalpa (image credit- Google)

দ্বিগুন হলো কৃষক বন্ধু প্রকল্পের অনুদান | বার্ষিক ৫ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ১০ হাজার টাকা করা হলো | কৃষকদের দেওয়া কথা রাখলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দ্বিগুন বৃদ্ধি করা হল ‘কৃষকবন্ধু প্রকল্পের ( Krishak Bandhu Prakalpa ) ভাতা বার্ষিক ৫ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ১০ হাজার টাকা করা হল। নবান্নে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল | রাজ্য সরকারের ‘কৃষকবন্ধু  প্রকল্পে এতদিন বছরে ৫ হাজার টাকা করে পেতেন কৃষকরা। একসাথে এই টাকা তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে জমা পড়ত। এবার থেকে পাবেন বার্ষিক ১০ হাজার টাকা। রাজ্য সরকারের এই সিদ্ধান্তে স্বভাবতই খুশি কৃষকবন্ধুরা |

কৃষকবন্ধু প্রকল্প কি (Benefits of Krishak Bondhu scheme):

এই প্রকল্পে নথিভুক্ত কৃষক এবং ভাগচাষী উভয়েই আবেদন করতে পারবেন। নথিভুক্ত কৃষক খরিফ এবং রবি মরসুমে সরকারি আর্থিক অনুদান পাবেন। ১ একর বা তার বেশি জমির মালিক বছরে ৫ হাজার টাকা সহায়তা পাবেন। বর্তমানে তা বেড়ে দাঁড়ালো ১০ হাজার টাকা | ১ এক একরের কম জমির ক্ষেত্রে আনুপাতিক হরে সহায়তা পাবেন তবে নূন্যতম ২০০০ টাকা অবশ্যই পাবেন। এই টাকা দুটি কিস্তিতে পাবেন। প্রথমটি খরিফ মরসুমে এবং দ্বিতীয়টি রবি মরসুমে। এই প্রকল্পে নাম থাকলে ১৮ থেকে ৬০ বয়স পর্যন্ত কৃষক মারা গেলে দুই লক্ষ টাকা অনুদান পাবেন। এই অনুদান সংশ্লিষ্ট ব্লকের ব্লক আধিকারিক আইন সম্মত উত্তরাধিকাকে প্রদান করবেন। এছাড়া, কৃষক বন্ধু প্রকল্পে নাম থাকলে খরিফ মরসুমে শস্যবীমার জন্য আলাদা ভাবে নাম তুলতে হবে না।

আরও পড়ুন - PMJAY - প্রধানমন্ত্রীর এই প্রকল্পের আওতায় কৃষক এবং শ্রমিকরা পাবেন বিনামূল্যে চিকিৎসা

প্রকল্পের আবেদন যোগ্যতা (Eligibility):

আবেদন করার জন্য কৃষকের নিজের নাম জমি থাকতে হবে।বর্তমানে এই প্রকল্পে কৃষকবন্ধু স্ব-ঘোষণা পত্র মাধ্যমে পৈতৃক সম্পত্তির অধিকারী এবং ভাগচাষি যাদের এখনো নাম সরকারি ভাবে জমির কাগজে নথিভুক্ত হয়নি তারাও আবেদন করতে পারবেন।

কি কি তথ্য জমা দিতে হবে (Required documents):

১) ভোটার কার্ড

২) আধার কার্ড (ঐচ্ছিক )

৩) ব্যাঙ্ক পাসবুক / বাতিল চেক

৪) পাসপোর্ট সাইজের সাম্প্রতিক একটি ছবি।

৫) চালু মোবাইল নং

৬) জমির রেকর্ড বা পর্চা এর জেরক্স কপি।

৭) স্ব–ঘোষণা পত্র ( যদি প্রয়োজন হয় -যাদের জমির রেকর্ড এ নিজের নাম নেই ) |

আবেদনপত্র কোথায় পাবেন?

আবেদন পত্র দুয়ারে সরকার ক্যাম্প এ অথবা ব্লক কৃষি আধিকারিকের অফিসে পেয়ে যাবেন।

রাজ্যে কৃষিক্ষেত্রে আরও উন্নয়নের জন্য বরাবর বাড়তি নজর রয়েছে সরকারের। পশ্চিমবঙ্গ কৃষিভিত্তিক রাজ্য হওয়ায়, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কৃষকদের পাশে দাঁড়াতে চালু করেছে কৃষকবন্ধু প্রকল্প। এই টাকা বৃদ্ধি নিতান্তই কৃষকদের জন্য ফলপ্রসূ |

নিবন্ধ: রায়না ঘোষ

আরও পড়ুন - Duare Aadhar Ration Card Aadhar Linking – সরকারি সহায়তায় এখন বাড়ি থেকেই রেশন কার্ড আধারের সাথে করা যাবে সংযোগ, পড়ুন পুরো খবর

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters