ডায়বেটিস রোগে ও হাইপারটেনশন নিয়ন্ত্রণে রোজ সকালে খালি পেটে কাচা ছোলা খাওয়ার উপকারিতা g

KJ Staff
KJ Staff
Raw Gram (Image Credit - Google)
Raw Gram (Image Credit - Google)

কাঁচা ছোলা একটি উচ্চমাত্রার প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার। ছোলায় বিভিন্ন প্রকার ভিটামিন, খনিজ লবণ, ম্যাগনেশিয়াম ও ফসফরাস রয়েছে। কাঁচা ছোলা শরীরের জন্য খুবই উপকারী। তাছাড়া কাচা ছোলাতে থাকা নানান উপাদান আমাদের নানা ভাবে সাহায্য করে সুস্থ থাকতে।

পুষ্টিগুন (Nutrition) - 

প্রতি ১০০ গ্রাম খাবার ছোলায় ভিটামিন এ প্রায় ১৯২ মাইক্রোগ্রাম এবং প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি-১ ও বি-২ আছে।  আমিষ প্রায় ১৮ গ্রাম, কার্বোহাইড্রেট প্রায় ৬৫ গ্রাম, ফ্যাট মাত্র ৫ গ্রাম, ২০০ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম।রোজ সকালে ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে কাচা ছোলা খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী।

আসুন জেনে নেই কাঁচা ছোলার উপকারী গুন গুলি কি কি - 

১.যাদের ডায়াবেটিস আছে  তাদের রোজ সকালে কাচা ছোলা খাওয়া শরীরের জন্য খুবই উপকারী।ছোলায় শর্করা বা কার্বোহাইডেটের গ্লাইসেমিক ইনডেক্স কম পরিমানে থাকে ফলে ডায়াবেটিক রোগীদের জন্য ছোলার শর্করা ভাল। আমিষ বা প্রোটিন, শর্করা বা কার্বোহাইড্রেট এবং ফ্যাট বা তেল ছোলায় থাকে।  প্রতি ১০০ গ্রাম ছোলায় ক্যালসিয়াম আছে প্রায় ২০০ মিলিগ্রাম। লৌহ ১০ মিলিগ্রাম ও ভিটামিন এ ১৯০ মাইক্রোগ্রাম থাকে। এছাড়া আছে ভিটামিন বি-১, বি-২, ফসফরাস ও ম্যাগনেসিয়াম। ডায়াবেটিকদের জন্য প্রতিটি উপাদান প্রয়োজনীয়।

২.যারা অধিকমাত্রায় ফলিক অ্যাসিড জাতীয় খাবার খান তাদের হাইপারটেনশান বা উচ্চরক্তচাপ হবার সম্ভাবনা কম থাকে। কাচা ছোলাতে সঠিক মাত্রায় ফলিক অ্যাসিড থাকে। তাই রোজ নিয়ম করে কাচা ছোলা খেলে হাইপ্রেসার হবার সম্ভাবনা থাকে না। ছোলায় থাকা ফলিক অ্যাসিড রক্তচাপ নিয়ন্ত্রনে রাখতে সাহায্য করে। তাছাড়া পায়ের আর্টারিতে রক্ত চলাচল বেড়ে যায় ছোলা নিয়মিত খেলে। তাছাড়া ছোলায় অবস্থিত উপাদান স্ট্রোকে আক্রান্ত ব্যক্তিদের আর্টারির কার্যক্ষমতাকে বাড়িয়ে দেয়।  সুস্থ থাকতে ছোলা খাওয়া শুরু করুন।

৩.ওজন কমাতে চাইলে রোজ খালি পেটে সকালে অবশ্যই ছোলা খান। রক্তে যে চর্বি জমে তা সরাতে ছোলা সাহায্য করে। পলি আনস্যাচুয়েটেড নামক ফ্যাট থাকে ছোলায়। যা রক্তে জমা চর্বি কমিয়ে ওজন কমাতে সাহায্য করে। শরীরে জমে থাকা ক্ষতিকারক ফ্যাটকে কমিয়ে দেয় পলি আনস্যাচুয়েটেড ফ্যাট।

৪.ক্যান্সারের মত মারণ রোগ হওয়ার সম্ভাবনাকে জন্মাতে দেয়না ছোলা। ক্যান্সার রোধে ছোলা ভীষণ কার্যকরী ভূমিকা পালন করে।ফলিক অ্যাসিড শরীরে নানা রকমভাবে সাহায্য করে। বেশি পরিমাণ ফলিক অ্যাসিড খাবারের মাধ্যমে শরীরে গেলে ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা থাকে না। নারীরা কোলন ক্যান্সার এবং রেক্টাল ক্যান্সার দ্বারা বেশি আক্রান্ত হয়। ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকি থেকে নিজিদেরকে মুক্ত রাখতে রোজ সকালে খালি পেটে কাচা ছোলা খান।

৫.যাদের শ্বাসকষ্ট আছে তার নিয়মিত ছোলা খান। শ্বাসকষ্ট থেকে আরাম পাবেন। ছোলা রক্তে থাকা এলারজি কমিয়ে অ্যাজমা হওয়ার সম্ভাবনাকে কমিয়ে দেয়। হাঁপানি রোগীদের জন্য ছোলা খাওয়া খুবই ভালো।

৬.ছোলার অন্যান্য উপকারিতা - 

ছোলা বয়সসন্ধির সময়কালে মেয়েদের হার্ট ভাল রাখতেও সাহায্য করে। ছোলাতে থাকা দ্রবণীয় এবং অদ্রবণীয় উভয় ধরনের উপাদান আছে, খাবার আঁশ যা হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কমিয়ে দেয়। সহজে সুস্থ হার্টের মালিক থাকা যায় দীর্ঘদিন।

শরীরে আমিষ ও অ্যান্টিবায়োটিকের চাহিদার অনেক সময় ঘারতি দেখা দেয়। ছোলা খেলে সেই ঘাটতি সহজে পূরণ হয়ে যায়।

ছোলা শরীর মজবুত করতে ও স্বাস্থ্যবান রাখতে সাহায্য করে। শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়। ফলে সহজে রোগ দ্বারা আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়।

আরও পড়ুন - এই মরসুমে সুস্থ থাকতে খাবার পাতে রাখতেই হবে সজনে ফুল

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters