জানুন থাইরয়েড নিয়ন্ত্রণে ও মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য রক্ষায় ব্রাজিলীয় বাদামের উপকারিতা

KJ Staff
KJ Staff
Brazilian Nuts (Image Credit - Google)
Brazilian Nuts (Image Credit - Google)

নারকেল সদৃশ এক বিশেষ ধরনের বাদাম হল ব্রাজিলীয় বাদাম (Brazilian Nuts)।এই বাদাম গুলি সাধারণত ব্রাজিলের আমাজন অববাহিকার গভীর জঙ্গলে এক ধরনের বাদাম গাছ থেকে এই  বাদাম পাওয়া যায়। একটি খোলের ভিতরে অনেকগুলি বাদাম একসাথে থাকে। এই বাদাম গুলি সেলেনিয়াম এর উৎকৃষ্ট উৎস। ব্রাজিলীয় বাদামের বহু স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে। এই ব্রাজিলীয় বাদাম থাইরয়েড, হার্টের সমস্যা, ক্যান্সার, ব্রেনের সমস্যার মতন বহু রোগের ক্ষেত্রে, স্বাস্থ্য সুরক্ষায় এবং শরীরে অনাক্রমতা বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করে থাকে। তাহলে আসুন জেনে নিন ব্রাজিলীয় বাদামের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দিক গুলি।

ব্রাজিলীয় বাদামের পুষ্টিগুণ (Rich in Nutrition):

ব্রাজিলীয় বাদামের মধ্যে থাকা বিভিন্ন পুষ্টি উপাদান গুলির মধ্যে অন্যতম উৎকৃষ্ট উপাদান হলো সেলেনিয়াম। একমাত্র সেলেনিয়াম আরডিএর ১৭৫ শতাংশ পূরণ করে। একটি ব্রাজিলীয় বাদামের মধ্যে রয়েছে ৯৬ এমসিজি পুষ্টি। এছাড়া এই বাদাম গুলি হাঁড়ের স্বাস্থ্য রক্ষার ক্ষেত্রে সহায়তা করে। এর মধ্যে বহু স্বাস্থ্যকর ফ্যাট ফ্যাট গুলি রয়েছে যা ভালো ফ্যাটের অন্যতম উৎস।

প্রতি ১০০ গ্রাম ব্রাজিলীয় বাদামের মধ্যে রয়েছে –

শক্তি ৬৫৬ কিলোক্যালরি

কার্বোহাইড্রেট ১২ গ্রাম

প্রোটিন ১৪ গ্রাম

ফ্যাট ৬৪ গ্রাম

কোলেস্টেরল ০ মিলিগ্রাম

ডায়েটারি ফাইবার ৭.৫ গ্রাম

ফোলেটস ২২ এমসিজি

ভিটামিন-এ ০ আই ইউ

ভিটামিন-সি ০.৭ মিলিগ্রাম

ভিটামিন ই গামা ৭.৮৭ মিলিগ্রাম

সোডিয়াম ২ মিলিগ্রাম

পটাশিয়াম ৫৯৭ মিলিগ্রাম

ক্যালসিয়াম ১৬০ মিলিগ্রাম

তামা ১.৭৪৩ মিলিগ্রাম

আয়রন ২.৪৩ মিলিগ্রাম

ম্যাগনেসিয়াম ৩৭৬ মিলিগ্রাম

ফসফরাস ৭২৫ মিলিগ্রাম

সেলেনিয়াম ১৯১৭ এমসিজি

দস্তা ৪.০৬ এমসিজি।

ব্রাজিলীয় বাদামের উপকারিতা:

১.মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য রক্ষায় - 

বয়স্ক ব্যক্তিদের ওপরে করা একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, যারা ছয় মাস ধরে প্রতিদিন একটি করে ব্রাজিলীয় বাদাম খান তাদের শারীরিক অবস্থা এবং শারীরিক দক্ষতা অন্যান্যদের তুলনায় অনেক বেশি। ব্রাজিলীয় বাদামের মধ্যে থাকা সেলেনিয়াম, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ক্রিয়া-কলাপ বাড়াতে এবং মস্তিস্ককে যেকোনো ধরনের ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করতে সহায়তা করে। ব্রাজিলীয় বাদামের এলাজিক অ্যাসিডে অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্য রয়েছে, যা মস্তিষ্ককে যে কোন ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করতে সহায়তা করে। এছাড়া ওই বাদামের মধ্যে থাকা সেলেনিয়াম মেজাজ কে উন্নত করতে এবং হতাশা কম করতে সহায়তা করে। দৈনিক এই বাদাম খাওয়ার ফলে সেরোটোনিন-এর মাত্রা বৃদ্ধি পায়, যার ফলে মেজাজ আরো ভালো থাকে।

২.থাইরয়েড নিয়ন্ত্রণে -

শরীরের অন্যান্য অংশের তুলনায় থাইরয়েড গ্রন্থিতে সেলেনিয়াম সর্বোচ্চ পরিমাণে থাকে। থাইরয়েড গ্রন্থির অন্যান্য অনুগুলির সাথে সেলেনিয়াম আবদ্ধ হয়ে শরীরে থাইরয়েড হরমোন তৈরি করে এবং সেগুলি যথাযথভাবে ব্যবহার করতে সহায়তা করে। গবেষণায় দেখা গিয়েছে, থাইরয়েডের যে সমস্যা গুলি শরীরে হয়ে থাকে সেগুলি শরীরে সেলেনিয়াম এর ঘাটতির কারণে হয়ে থাকে। এছাড়াও গবেষণায় আরো দেখা গিয়েছে যে, যাদের শরীরে থাইরয়েড এর বিভিন্ন সমস্যা রয়েছে তারা যদি ব্রাজিলীয় বাদাম খাদ্যতালিকায় রাখেন সেক্ষেত্রে তাদের শরীরে সেলেনিয়াম এর পরিমাণ বাড়িয়ে তোলা সম্ভব হয় এবং এটি থাইরয়েড গ্রন্থির কার্যকারিতা কেও উন্নত করে। সেলেনিয়াম থাইরয়েড গ্রন্থি ছাড়াও শরীরের অ্যান্টি বডি গুলি কে শক্তিশালী করতে এবং শরীরকে যেকোনো রোগ থেকে রক্ষা করতে, থাইরয়েড রোগ থেকে দূরে রাখতে সহায়তা করে। তবে এক্ষেত্রে এটি প্রমাণের জন্য আরও গবেষণা প্রয়োজন। কিন্তু থাইরয়েড গ্রন্থিকে যথাযথ ভাবে কাজ করাতে সেলেনিয়াম এর গুরুত্ব অপরিসীম। 

অন্যান্য উপকারিতাঃ

হৃদ রোগ প্রতিরোধে:

ব্রাজিলীয় বাদামের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম এবং ম্যাগনেসিয়াম থাকে। এই তিনটি খনিজ শরীরের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সহায়তা করে। এর পাশাপাশি ব্রাজিলীয় বাদামের মধ্যে থাকা দ্রবণীয় ফাইবার এলডিএল কোলেস্টেরলের মাত্রা কম করতে সহায়তা করে। ব্রাজিলীয় বাদামের মধ্যে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ উপাদান গুলি শরীরের অভ্যন্তরীণ ক্ষতি রোধ করতে এবং হৃদরোগের সম্ভাবনা কম করতে সহায়তা করে। গবেষণায় দেখা গিয়েছে কেবলমাত্র দৈনিক ব্রাজিলীয় বাদাম খাদ্যতালিকায় রাখার ফলে লিপিড প্রোফাইল এর বিভিন্ন উপাদান গুলি উন্নত ভাবে কাজ করতে সহায়তা করে। 

প্রদাহ রোধ করতে:

ব্রাজিলীয় বাদামে অন্যান্য বাদামের মতন মনো এবং পলি উন ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে যা প্রদাহের বিরুদ্ধে লড়াই করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করে থাকে। বাদামের মধ্যে থাকা সেলেনিয়ামও যেকোনো প্রদাহের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সহায়তা করে। গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, দৈনিক যদি একটি করে ব্রাজিলীয় বাদাম খাওয়া যেতে পারে এক্ষেত্রে শরীর নিজে থেকেই যেকোনো প্রদাহের বিরুদ্ধে লড়াই করতে পারে। এছাড়াও দৈনিক ব্রাজিলীয় বাদাম গ্রহণ করার ফলে দীর্ঘমেয়াদী প্রদাহ জনিত সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে দেখা গিয়েছে। 

ওজন কম করতে:

ব্রাজিলীয় বাদামে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার রয়েছে। যে কারণে এটি দৈনিক গ্রহণ করার ফলে অনেকক্ষণ পেট ভর্তি থাকে এবং খাবার ইচ্ছা কমে যায়। এই ব্রাজিলীয় বাদাম আর্জিনাইন সমৃদ্ধ উপাদান। এটি একটি অ্যামিনো অ্যাসিড সমৃদ্ধ উপাদান হওয়ায় এটি শরীরের বাড়তি শক্তি ব্যয় করে এবং শরীরের নরম অংশে জমে থাকা চর্বিকে কম করে ওজন কম করতে সহায়তা করে।

ব্রাজিলীয় বাদামের মধ্যে থাকা সেলেনিয়াম শরীরের বিপাকীয় প্রক্রিয়াকে উন্নত করতে সহায়তা করে। এটি বিপাকে দক্ষতার সাথে কাজ করে এবং শরীরের বাড়তি ক্যালরি কে কম করতে সহায়তা করে।

আরও পড়ুন - আপনার দৈনন্দিন ব্যবহারের সরিষার তৈল আসল তো? পরীক্ষা করুন সহজ পদ্ধতিতে

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে:

ব্রাজিলীয় বাদামের মধ্যে থাকা সেলেনিয়াম বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতা গুলি কে বাড়িয়ে তুলতে সহায়তা করে। সেলেনিয়াম ছাড়া এটি যথাযথভাবে হওয়া সম্ভব না। এছাড়াও ব্রাজিলীয় বাদামের মধ্যে থাকা জিঙ্ক যেকোনো রোগজীবাণু ধ্বংস করে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সহায়তা করে। সেলেনিয়াম শরীরের বিভিন্ন কোষগুলিকে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তোলার জন্য বার্তা বহন করে থাকে। যার ফলে দৈনিক খাদ্য তালিকায় ব্রাজিলীয় বাদাম রাখলে পরে শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। 

টেস্টোস্টেরনের মাত্রা বাড়াতে:

ব্রাজিলীয় বাদামের মধ্যে সেলেনিয়াম দস্তা প্রচুর পরিমাণে রয়েছে। এই খণিজ গুলি পুরুষদের দেহের টেস্টোস্টেরনের মাত্রা কে বাড়াতে সহায়তা করে। যার ফলে যে সমস্ত পুরুষদের শরীরে টেস্টোস্টেরন এর ঘাটতি রয়েছে তাদের ক্ষেত্রে সেই সমস্যার সমাধান হয়। 

পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া:

প্রত্যেকটা জিনিসের ই ভালো গুণ থাকার পাশাপাশি অধিক ব্যবহার করার ফলে প্রত্যেকটা জিনিসই খারাপ প্রভাব ফেলে অর্থাৎ অধিক ব্যবহারে যে কোন জিনিসেরই পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করা যায়। এক্ষেত্রে ব্রাজিলীয় বাদাম এর ব্যাতিক্রম নয়। এটি অধিক পরিমানে গ্রহণের ফলে বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয়। জেনে নিন কি কি সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন।

১.সেলেনিয়ামের বিষাক্ততা

ইতিমধ্যেই আমরা জেনেছি ব্রাজিলীয় বাদাম সেলেনিয়াম সমৃদ্ধ একটি উপাদান। এক্ষেত্রে এটি অতিরিক্ত পরিমাণে গ্রহণ করলে সেলেনিয়াম এ বিষাক্ততা বা সেলেনোসিস রোগ হতে পারে। এই রোগের লক্ষণ হিসেবে ডায়েরিয়া, ভঙ্গুর নখ, চুল পড়া এবং কাশির সমস্যা গুলি দেখা দিতে পারে। প্রায় ৫০০ এমসিজি সেলেনিয়াম গ্রহণের ফলে বিষাক্ততা হতে পারে। যার ফলে শ্বাসকষ্ট, হার্ট অ্যাটাক এবং কিডনিতে বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিতে পারে। প্রাপ্তবয়স্কদের ক্ষেত্রে সেলেনিয়ামের পরিমাণ সর্বোচ্চ ৪০০ এমসিজি হারে প্রতিদিন গ্রহণ করতে পারে।

২.এলার্জি জনিত সমস্যা -

ব্রাজিলীয় বাদাম গ্রহণের ফলে যে সমস্ত ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে অ্যালার্জির সমস্যা রয়েছে তাদের সেই সমস্যা বাড়তে পারে। এক্ষেত্রে এর লক্ষন হিসেবে বমি ভাব এবং চোখ মুখে ফোলা ভাব দেখা দিতে পারে।

আরও পড়ুন - (Parijat Flower) জানুন পারিজাত বা পারিজাত মান্দার এর বিশেষ ভেষজ গুণাগুণ

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters