জানুন অড়হর ডালের পুষ্টিগুণ ও বিশেষ উপকারিতা (Benefits Of Pigeon Pea)

KJ Staff
KJ Staff
Pigeon Pea (Image Credit - Google)
Pigeon Pea (Image Credit - Google)

অড়হর (Pigeon Pea) এক প্রকার ডাল বীজ। এর বৈজ্ঞানিক নাম Cajanus cajan। ভারতীয়, বিশেষ করে অধিকাংশ বাঙালির কাছে খাবারের পাতে ডাল না থাকলে সেই খাবার একেবারেই যেন অসম্পূর্ণ লাগে।  বাঙালিদের কাছে ভাত-রুটির সঙ্গে অন্যতম সঙ্গীই হল ডাল। ডালে থাকে বিভিন্ন ধরনের পুষ্টি। তাই ডাল যে খাবার হিসেবে শুধু পেটই ভরায়, এমন নয়, বরং পাশাপাশি আমাদের শরীরকে সুস্থ রাখতেও ডাল ভীষণ সাহায্য করে। এরকমই একটি ডাল হল অড়হর ডাল। অবাঙালিদের কাছে এটি তুর ডাল নামে পরিচিত এবং ইংরেজিতে এই ডালকে বলে পিজিয়ন পি। অনেকেই বলে থাকেন এবং মনে করেন যে, অড়হর ডাল বেশ কিছু রোগের হাত থেকে আমাদের দূরে রাখতে এবং কিছু রোগের উপসর্গ কমাতেও সাহায্য করে। নিম্নলিখিত আলোচিত রোগগুলির উপসর্গ কমাতে অড়হর ডাল উপকারী হতে পারে। কিন্তু এটি সেই সব রোগের চিকিৎসা নয়।

অড়হর ডালের পুষ্টিগুণ (Nutrition) -

পুষ্টিগুণ   প্রতি ১০০ গ্রামে কত মাত্রা-

জল   ৬৮.৫৫ গ্রাম

শক্তি  ১২১ কিলোক্যালোরি

প্রোটিন ৬.৭৬ গ্রাম

ফ্যাট ০.৩৮ গ্রাম

কার্বোহাইড্রেট ২৩.২৫ গ্রাম

ফাইবার      ৬.৭ গ্রাম

মিনারেল

ক্যালশিয়াম ৪৩ মিলিগ্রাম

আয়রন ১.১১ মিলিগ্রাম

ম্যাগনেশিয়াম  ৪৬ মিলিগ্রাম

ফসফরাস ১১৯ মিলিগ্রাম

পটাশিয়াম ৩৮৪ মিলিগ্রাম

সোডিয়াম ৫ মিলিগ্রাম

জিংক ০.৯ মিলিগ্রাম

কপার ০.২৬৯ মিলিগ্রাম

সিলেনিয়াম ২.৯ মাইক্রোগ্রাম

ম্যাঙ্গানিজ ০.৫০১ মিলিগ্রাম

থিয়ামিন      ০.১৪৬ মিলিগ্রাম

রাইবোফ্লেবিন ০.০৫৯ মিলিগ্রাম

নিয়াসিন      ০.৭৮১ মিলিগ্রাম

পেন্টোথেনিক অ্যাসিড ০.৩১৯ মিলিগ্রাম

ভিটামিন- বি ৬ ০.০৫ মিলিগ্রাম

ফোলেট, DFE ১১১ মাইক্রোগ্রাম

ভিটামিন-এ, আইইয়ু ৩ আইইয়ু

লিপিড

ফ্যাটি অ্যাসিড টোটাল স্যাচুরেটেড-০.০৮৩ গ্রাম

ফ্যাটি অ্যাসিড টোটাল মনোস্যাচুরেটেড-০.০০৩ গ্রাম

ফ্যাটি অ্যাসিড টোটাল পলিআনস্যাচুরেটেড-০.২০৫ গ্রাম

উপকারিতা-

১. রোগ প্রতিরোধ কমাতে বাড়ায় - 

অড়হর ডাল খেলে যে কেবলমাত্র আমাদের শরীর সুস্থ থাকে তাইই নয়, বরং তা আমাদের শরীরকে বিভিন্ন রোগের হাত থেকে দূরে রাখতেও সাহায্য করে। অড়হর ডালে থাকে ইমিউনোমডুলেটরি (Immunomodulatory) গুণ। এই গুণ আমাদের শরীরের ইমিউনিটি পাওয়ার অর্থাৎ শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। 

 ২. ডায়াবেটিস রুখতে সাহায্য করে - 

শরীরে অক্সিডেটিভ স্ট্রেস বা জারণ চাপের স্তর বেড়ে গেলে তা মধুমেহ রোগের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। ফুড সায়েন্স এবং নিউট্রিশন বিভাগের তরফে করা একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, অক্সিডেটিভ স্ট্রেস বা জারণ চাপ কমাতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট গুণে ভরপুর কোনও খাবার খেলে তা লাভজনক হতে পারে। সেই জায়গায় অড়হর ডালে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান থাকে। তাই এটি ডায়াবেটিস বা মধুমেহ রোগের হাত থেকে বাঁচাতে আমাদের ভীষণ সাহায্য করে। সেই গবেষণায় আরও দেখা গিয়েছে যে, হাইপারগ্লেসেমিয়াকে (উচ্চ রক্ত শর্করা) নিয়ন্ত্রণ করতে অঙ্কুরিত অড়হর ডাল খুবই উপকারী। 

৩. ওজন কমাতে সাহায্য করে - 

ওজন কমানোর কাজে অড়হর ডালের উপকারিতা বেশ ভালোভাবেই লক্ষ্য করা যায়। আসলে, এই অড়হর ডালে অন্যান্য ডালের মতো পুষ্টিগুণ থাকলেও, এটিতে ফাইবার ভরপুর থাকে। আর আমরা সকলেই জানি ফাইবার যুক্ত খাবার খেলে তা দীর্ঘ সময় পর্যন্ত আমাদের পেত ভরা থাকতে সাহায্য করে। পাশাপাশি তা আমাদের অতিরিক্ত খাবার খেয়ে ফেলার প্রবণতাও কমায়। এইভাবেই বড়তে থাকা ওজন নিয়ন্ত্রণ করতে ফাইবার একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।তবে ওজন কমাতে অড়হর ডাল সরাসরি ভাবে ঠিক কতটা উপকারী, তা নিয়ে এখনও বেশ কিছু গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে।

৪. ক্যান্সার রুখতে সাহায্য - 

ক্যান্সারের মতো প্রাণঘাতী একটি রোগ রুখতে অড়হর ডালের ব্যবহার বেশ কিছু ক্ষেত্রে উপকারী প্রমাণিত হয়ে থাকে। ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অফ নিউট্রিশন (হায়দ্রাবাদ)-এর একটি গবেষণায় উল্লেখ করা হয়েছে যে, অড়হর ডাল অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের একটি অন্যতম উৎস। আর এই গুণের কারণে এটি আমাদের অক্সিডেটিভ স্ট্রেস বা জারণ চাপের কারণে হওয়া ক্যান্সারের ঝুঁকি থেকে বাঁচাতে সাহায্য করে। সেই গবেষণায় আরও দেখা গিয়েছে যে, অড়হরের মূলে থাকে অ্যান্টিক্যান্সার গুণ। অড়হরের মূলে পাওয়া যায় কেজোনল নামের একটি উপাদান। সেই উপাদানই অড়হরে পাওয়া যাওয়া অ্যান্টিক্যান্সার গুণের উৎস। তাই বলা যেতেই পারে যে অড়হর ডাল ও এই গাছের মূল আমাদের ক্যান্সারের হাত থেকে বাঁচাতে সাহয্য করে থাকে। তবে পাঠকদের মনে রাখা উচিৎ অড়হর ডাল কিন্তু ক্যান্সারের চিকিৎসা করতে সক্ষম নয়। তাই যে বা যাঁরা ক্যান্সারের মতো এই গুরুতর রোগে আক্রান্ত, তাঁদের উচিৎ চিকিৎসকের পরামর্শ মতো ওষুধ খাওয়া এবং তাঁদের নির্দেশ অমান্য না করা।

৫) কার্ডিওভাসকুলার বা হৃদরোগের হাত থেকে রক্ষা

বেশ কিছু কারণের জন্যই হৃদরোগ দেখা দিতে পারে। তার মধ্যে একটি অন্যতম কারণ হল শরীরে ফ্রি রেডিকেলস (Reactive Oxygen Species)- এর প্রভাব। হার্টের রোগের জন্য যে কারণগুলি অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ, যেমন- ডায়াবেটিস, মোটা হয়ে যাওয়া কিংবা উচ্চ রক্তচাপ অর্থাৎ সেগুলি কমাতে সাহায্য করে অক্সিডেটিভ উপাদান। সেভাবেই অড়হর ডালে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেটিভ উৎসেচক ফ্রি রেডিকেলসের প্রভাব কমিয়ে হার্টের রোগের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে।

আরও পড়ুন - জানুন হৃদযন্ত্র স্বাভাবিক রাখতে ও হজম ক্ষমতা বৃদ্ধিতে 'বেদানা' র উপকারিতা (Pomegranate Health Benefits)

Like this article?

Hey! I am KJ Staff. Did you liked this article and have suggestions to improve this article? Mail me your suggestions and feedback.

Share your comments

আমাদের নিউজলেটার অপশনটি সাবস্ক্রাইব করুন আর আপনার আগ্রহের বিষয়গুলি বেছে নিন। আমরা আপনার পছন্দ অনুসারে খবর এবং সর্বশেষ আপডেটগুলি প্রেরণ করব।

Subscribe Newsletters