বর্ষায় কলার নার্সারিতে (Banana Nursery) কৃষকেরা দেখতে পারেন লাভের মুখ

Friday, 19 June 2020 05:11 PM

ভারতে কিছুক্ষেত্রে বাণিজ্যিক চাষাবাদ করা হয়, যার মধ্যে কলার নার্সারি (Banana Nursery) অন্যতম৷ এই বাণিজ্যিক চাষে (Profitable Business) প্রচুর লাভের সম্ভাবনা থাকায় অনেকেই এতে আগ্রহ প্রকাশ করেন৷ এতে যেমন ব্যয় কম তেমনই গ্রাম্য পরিবেশে এই কম বিনিয়োগ করেই নার্সারি থেকে প্রচুর পরিমাণ অর্থ উপার্জনের সুযোগ থাকে৷ কমপক্ষে এক থেকে দেড় মাসের মধ্যেই কলার এই নার্সারি থেকে ভালো রোজগার করা যেতে পারে৷

লখনউ, গোরখপুর, কৌশাম্বি এমনই বিভিন্ন স্থানে কলার নার্সারির প্রচুর চাহিদা রয়েছে৷ সুযোগ থাকলে অন্যান্যরাও এটি চেষ্টা করে দেখতে পারেন, তবে তার জন্য কয়েকটি বিষয় একটু জেনে নেওয়া যাক৷ এই কলার নার্সারি (Banana Nursery) তৈরি করতে সময় লাগে কমপক্ষে ২৫-৩০ দিন৷ টিস্যু কালচার পদ্ধতি অনুসরণ করা হয় কলার নার্সারিতে৷ তাই কম সময়েই গাছ বেড়ে ওঠে এবং কৃষক যথাযথ মূল্যও পেয়ে থাকেন৷

বছরের যে কোনও সময়েই এই নার্সারি শুরু করা যেতে পারে৷ তবে মে এবং জুন মাসকে (Monsoon 2020) এই নার্সারির জন্য সবথেকে ভাসো সময় বলে মনে করা হয়৷ জুন পর্যন্ত নার্সারি তৈরি হয়ে গেলে জুলাই এবং অগস্টে কলার চারা রোপন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে৷ ফল উৎপাদনে ভারতে কলার স্থান তৃতীয়তে৷ ভারতে মোট ফল উৎপাদনের ৩৩ শতাংশ জুড়ে রয়েছে কলা৷ সারা বছরই পুষ্টিগুণে ভরা এই ফল পাওয়া যায় দেশে৷ পশ্চিমবঙ্গ, বিহার, উত্তরপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র, অসম, গুজরাত, কর্ণাটক প্রভৃতি রাজ্যগুলিতে কলার প্রচুর উৎপাদন হয়৷ আর এইসব রাজ্যের মধ্যে কলার সবথেকে বেশি ফলন হয় মহারাষ্ট্রে৷

কলার নার্সারির জন্য পলি ব্যাগ অত্যন্ত প্রয়োজনীয়৷ সবথেকে প্রথমে একটি পলি ব্যাগ নিয়ে তাতে মাটি এবং গোবর সার সমান সমান দিয়ে ভর্তি করতে হবে৷ এরপর এতে মাঝে মাঝে জল দিতে হবে পরিমিত পরিমাণে৷ এবং কিছু দিন পরে পরে ব্যাভিস্টিন এবং এনপিকে ১৯ ছড়াতে হবে৷

প্রায় এক মাসের মধ্যে নার্সারির জন্য জমি প্রস্তুত হয়ে যায়৷ প্রত্যেক রাজ্যে কৃষিশিক্ষা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান বা কৃষিবিজ্ঞান কেন্দ্র থেকে এই বিষয়ে বিস্তারিত শিখে নিতে পারেন ইচ্ছুক কৃষকেরা৷

এক বিঘা জমি থেকেই বাণিজ্যিকভাবে কলার নার্সারি শুরু করা যেতে পারে৷ এক বিঘাতে তৈরি হয়ে যাবে প্রায় এক লক্ষ গাছ৷ এই এক লক্ষ গাছের নার্সারির জমিতে ব্যয় হতে পারে প্রায় ৯-১০ লক্ষ টাকা৷ আরও কম টাকাতেও ছোট বা মাঝারি ধরণের নার্সারি করতে পারেন কৃষকেরা৷ খুব কম সময়ের মধ্যে ব্যাপক উপার্জন করতে চাইলে বাণিজ্যিকভাবে এই কলার নার্সারি লাভজনক হতে পারে৷

আরও পড়ুন- বর্ষায় স্বল্প ব্যয়েই চাষ করুন অড়হর (Pigeon Pea Farming), হবে প্রচুর মুনাফা

English Summary: Banana nursery will be profitable for farmers

CopyRight - 2018 Krishi Jagran Media Group. All Rights Reserved.